০২:৩০ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
খোলা বাজারে বিক্রয় কার্যক্রম আকস্মিক পরিদর্শন শেষে গণমাধ্যমকর্মীদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন

অপরাদ প্রবনতা ঠেকাতে কার্ডের মাধ্যমে ওএমএসে চাল বিতরণ করা হবে: খাদ্যমন্ত্রী

  • অফিস ডেক্স।।
  • প্রকাশিত সময় : ০৪:২২:০২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২ মার্চ ২০২৩
  • ৩৯ পড়েছেন

###    খাদ্যমন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেছেন, খুব শীঘ্রই কার্ডের মাধ্যমে চাল বিতরণ শুরু হবে। এক ব্যক্তি বার বার ওএমএস এর চাল নেয়। সে আবার সেটা বিক্রি করে দেয়। কার্ডের মাধ্যমে বিতরণ করা হলে এ প্রবনতা কমবে এবং সবাই পাবে।

বৃহস্পতিবার (০২ মার্চ) নওগাঁর পোরশা উপজেলার কপালির বাজারে চলমান খোলা বাজারে বিক্রয় কার্যক্রম (ওমএসএস) আকস্মিক পরিদর্শন শেষে গণমাধ্যমকর্মীদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন তিনি।

খাদ্যমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা খোলা বাজারে বিক্রয় কার্যক্রম (ওমএসএস) কার্ডের মাধ্যমে বিতরণের নির্দেশনা দিয়েছেন। কার্ডের মাধ্যমে একজন সপ্তাহে একবার ওএমএসএর চাল কিনতে পারবে বলে উল্লেখ করেন তিনি। চালের বাজার দর কমাতে বিদেশ থেকে চাল আমদানি করা হবে কিনা-এমন প্রশ্নের জবাবে খাদ্যমন্ত্রী বলেন, দেশে চালের অনেক মজুত আছে, কোন অভাব নেই। আমনের উৎপাদন ভালো হয়েছে। বোরো ফসলের চাষ শুরু হয়েছে। বেশি আমদানি করলে কৃষক নায্যমূল্য পাবে না। নিন্ম আয়ের লোকদের কোন সমস্যা হবে না উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, তাদের জন্য ওএমএমএসে ৩০ টাকায় চাল দেয়া হচ্ছে। আবার মার্চ মাস থেকেই খাদ্যবান্ধব কর্মসূচি চালু হয়েছে। ৫০ লক্ষ পরিবার প্রতি মাসে একবার করে ৩০ কেজি চাল পাবেন। এ সময় পোরশা উপজেলা নির্বাহী অফিসার সালমা বেগম, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহ মঞ্জুর মোর্শেদ চৌধুরী, থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জহিরুল ইসলামসহ খাদ্য বিভাগের কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন। পরে খাদ্যমন্ত্রী নিতপুর খাদ্য গুদাম পরিদর্শন করেন। এসময় তিনি গুদামে রক্ষিত চালের গুণগতমান পরীক্ষা করে দেখেন।##

Tag :
লেখক তথ্য সম্পর্কে

Dainik adhumati

জনপ্রিয়

খোলা বাজারে বিক্রয় কার্যক্রম আকস্মিক পরিদর্শন শেষে গণমাধ্যমকর্মীদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন

অপরাদ প্রবনতা ঠেকাতে কার্ডের মাধ্যমে ওএমএসে চাল বিতরণ করা হবে: খাদ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত সময় : ০৪:২২:০২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২ মার্চ ২০২৩

###    খাদ্যমন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেছেন, খুব শীঘ্রই কার্ডের মাধ্যমে চাল বিতরণ শুরু হবে। এক ব্যক্তি বার বার ওএমএস এর চাল নেয়। সে আবার সেটা বিক্রি করে দেয়। কার্ডের মাধ্যমে বিতরণ করা হলে এ প্রবনতা কমবে এবং সবাই পাবে।

বৃহস্পতিবার (০২ মার্চ) নওগাঁর পোরশা উপজেলার কপালির বাজারে চলমান খোলা বাজারে বিক্রয় কার্যক্রম (ওমএসএস) আকস্মিক পরিদর্শন শেষে গণমাধ্যমকর্মীদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন তিনি।

খাদ্যমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা খোলা বাজারে বিক্রয় কার্যক্রম (ওমএসএস) কার্ডের মাধ্যমে বিতরণের নির্দেশনা দিয়েছেন। কার্ডের মাধ্যমে একজন সপ্তাহে একবার ওএমএসএর চাল কিনতে পারবে বলে উল্লেখ করেন তিনি। চালের বাজার দর কমাতে বিদেশ থেকে চাল আমদানি করা হবে কিনা-এমন প্রশ্নের জবাবে খাদ্যমন্ত্রী বলেন, দেশে চালের অনেক মজুত আছে, কোন অভাব নেই। আমনের উৎপাদন ভালো হয়েছে। বোরো ফসলের চাষ শুরু হয়েছে। বেশি আমদানি করলে কৃষক নায্যমূল্য পাবে না। নিন্ম আয়ের লোকদের কোন সমস্যা হবে না উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, তাদের জন্য ওএমএমএসে ৩০ টাকায় চাল দেয়া হচ্ছে। আবার মার্চ মাস থেকেই খাদ্যবান্ধব কর্মসূচি চালু হয়েছে। ৫০ লক্ষ পরিবার প্রতি মাসে একবার করে ৩০ কেজি চাল পাবেন। এ সময় পোরশা উপজেলা নির্বাহী অফিসার সালমা বেগম, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহ মঞ্জুর মোর্শেদ চৌধুরী, থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জহিরুল ইসলামসহ খাদ্য বিভাগের কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন। পরে খাদ্যমন্ত্রী নিতপুর খাদ্য গুদাম পরিদর্শন করেন। এসময় তিনি গুদামে রক্ষিত চালের গুণগতমান পরীক্ষা করে দেখেন।##