০৫:১৩ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আর্মেনিয়ার দিকে আবারও মর্টার ছুড়ল আজারবাইজান

  • মধুমতি ডেস্ক :
  • প্রকাশিত সময় : ০১:৪৯:০৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২২
  • ৩৫ পড়েছেন

আজারবাইজান ও আর্মেনিয়ার মধ্যে নতুন সংঘাতের খবর পাওয়া গেছে। আর্মেনিয়া একটি বিবৃতিতে দাবি করেছে, বুধবার সকালে তাদের সেনাদের লক্ষ্য করে কামান, ছোট অস্ত্র ব্যবহার করে হামলা ও মর্টার ছুঁড়েছে আজারবাইজান।

মঙ্গলবার মধ্যরাতে রক্ষক্ষয়ী সংঘর্ষে আর্মেনিয়ার ৪৯ জন ও আজারবাইজানের ৫০ জন সেনা নিহত হয়েছে। এর একদিন পর পরিস্থিতি শান্ত হওয়ার বদলে আবারও উত্তপ্ত হয়েছে।

অন্যদিকে আজারবাইজান দাবি করেছে তাদের সেনা চৌকি ও বিভিন্ন স্থাপনার ওপর হামলা করেছে আর্মেনিয়ান সেনারা।

এ ব্যাপারে আজারবাইজানের প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেছেন, আমাদের সেনা স্থাপনায় পর্যায়ক্রমে হামলা হচ্ছে। আমাদের সেনারা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিচ্ছে।

এদিকে নতুন করে হামলার বিষয়টিতে একে-অপরকে দায়ী করেছে দুই দেশ। কিন্তু কে আসল দায়ী সেটি নিশ্চিত করতে পারেনি আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলো।

আর্মেনিয়া হলো রাশিয়ার মিত্র দেশ। তাদের ওপর কোনো দেশ হামলা করলে রাশিয়া এগিয়ে আসবে এমন চুক্তি আছে। এরই প্রেক্ষিতে মঙ্গলবার এগিয়ে আসে রাশিয়া। তাদের পক্ষ থেকে জানানো হয় যুদ্ধবিরতিতে সম্মত হয়েছে আজারবাইজান-আর্মেনিয়া। কিন্তু এরপরও বুধবার আবারও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।

সূত্র: আল জাজিরা

Tag :
লেখক তথ্য সম্পর্কে

dainik madhumati

জনপ্রিয়

রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক একীভূতকরণের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন, ষড়যন্ত্রমূলক অপতৎপরতা রুখে দাড়ানোর আহবান

আর্মেনিয়ার দিকে আবারও মর্টার ছুড়ল আজারবাইজান

প্রকাশিত সময় : ০১:৪৯:০৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২২

আজারবাইজান ও আর্মেনিয়ার মধ্যে নতুন সংঘাতের খবর পাওয়া গেছে। আর্মেনিয়া একটি বিবৃতিতে দাবি করেছে, বুধবার সকালে তাদের সেনাদের লক্ষ্য করে কামান, ছোট অস্ত্র ব্যবহার করে হামলা ও মর্টার ছুঁড়েছে আজারবাইজান।

মঙ্গলবার মধ্যরাতে রক্ষক্ষয়ী সংঘর্ষে আর্মেনিয়ার ৪৯ জন ও আজারবাইজানের ৫০ জন সেনা নিহত হয়েছে। এর একদিন পর পরিস্থিতি শান্ত হওয়ার বদলে আবারও উত্তপ্ত হয়েছে।

অন্যদিকে আজারবাইজান দাবি করেছে তাদের সেনা চৌকি ও বিভিন্ন স্থাপনার ওপর হামলা করেছে আর্মেনিয়ান সেনারা।

এ ব্যাপারে আজারবাইজানের প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেছেন, আমাদের সেনা স্থাপনায় পর্যায়ক্রমে হামলা হচ্ছে। আমাদের সেনারা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিচ্ছে।

এদিকে নতুন করে হামলার বিষয়টিতে একে-অপরকে দায়ী করেছে দুই দেশ। কিন্তু কে আসল দায়ী সেটি নিশ্চিত করতে পারেনি আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলো।

আর্মেনিয়া হলো রাশিয়ার মিত্র দেশ। তাদের ওপর কোনো দেশ হামলা করলে রাশিয়া এগিয়ে আসবে এমন চুক্তি আছে। এরই প্রেক্ষিতে মঙ্গলবার এগিয়ে আসে রাশিয়া। তাদের পক্ষ থেকে জানানো হয় যুদ্ধবিরতিতে সম্মত হয়েছে আজারবাইজান-আর্মেনিয়া। কিন্তু এরপরও বুধবার আবারও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।

সূত্র: আল জাজিরা