১০:৪৯ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
জেলা আওয়ামী লীগের শান্তি সমাবেশে শেখ হারুন

আ’লীগ রাজপথে জনগণকে নিয়ে বিএনপি-জামায়াতের ষড়যন্ত্র ও অপরাজনীতির মোকাবেলা করবে

  • অফিস ডেক্স।।
  • প্রকাশিত সময় : ১০:১০:৫৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ১১ মার্চ ২০২৩
  • ৩৫ পড়েছেন

###    খুলনা জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ হারুনুর রশীদ বলেছেন, বিএনপি-জামায়াত আন্দোলনের নামে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করে দেশকে অস্থিতিশীল করতে চায়। আমরা জনগণের নিরাপত্তার জন্য রাজপথে শান্তি সমাবেশ করি। কারণ আওয়ামী লীগ রাজপথে থাকলে তারা জনগণের জানমালের ক্ষতিসাধণ করতে পারে না। আগুনে পুড়িয়ে মানুষের সম্পদের ক্ষতি ও মানুষকে পুড়িয়ে মারতে পারে না। তিনি বলেন, বাংলাদেশ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নয়নের মহাসড়কে দুর্বার গতিতে এগিয়ে চলেছে। দেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখতে ও স্মার্ট বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে রাজপথেই বিএনপি-জামায়াতের কুকর্মের জবাব দেবে আওয়ামী লীগ। আমরা রাজপথে থাকলে তারা জনগণের জানমালের ক্ষতিসাধন করতে পারে না, এজন্য তাদের মাথা ব্যাথা। আওয়ামী লীগ রাজপথে থেকেই জনগণকে সঙ্গে নিয়ে বিএনপি-জামায়াতের সব ষড়যন্ত্র ও অপরাজনীতির মোকাবিলা করবে। তিনি আরও বলেন, আপনারা ঐক্যবদ্ধ থাকবেন, ধৈর্যশীল থাকবেন, ওদের কৌশল আমাদেরকে অত্যাচারী এবং কর্তৃত্ববাদী সরকার হিসাবে বহির্বিশ্বে উপস্থাপন করা। ওরা পায়ে পাড়া দিয়ে ঝগড়া করতে চাইবে, বিভিন্ন রকম উস্কানি দিতে চেষ্টা করবে। আপনারা ওদের ফাঁদে পা দেবেন না। ওরা প্রতারণায় এবং প্রোপাগান্ডায় ভীষণভাবে পটু। কিন্তু রাজপথ আমরা ছেড়ে দেব না। আমাদেরকে ব্লাকমেইল করার সুযোগ দেব না। ওরা কিন্তু দিনকে রাত বানাতে এবং রাতকে দিন বানাতে বড় পারদর্শী। মিথ্যার উপরই এই দলটার সৃষ্টি।
গতকাল শনিবার বিকাল ৪টায় দলীয় কার্যালয়ের সামনের সড়কে জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত শান্তি সমাবেশে সভাপতির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন। সমাবেশ পরিচালনা করেন জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. সুজিত অধিকারী। এসময়ে বক্তৃতা করেন ও উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা এ্যাড. সোহরাব আলী সানা, বীর মুক্তিযোদ্ধা এ্যাড. এম এম মুজিবর রহমান, এ্যাড. রবীন্দ্রনাথ মন্ডল, অধ্যক্ষ দেলোয়ারা বেগম, বি এম এ ছালাম, এ্যাড. অধ্যাঃ নিমাই চন্দ্র রায়, রফিকুর রহমান রিপন, যুগ্ম সাধারন সম্পাদক মোঃ সরফুদ্দিন বিশ্বাস বাচ্চু, মোঃ কামরুজ্জামান জামাল, সাংগঠনিক সম্পাদক সরদার আবু সালেহ, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক জোবায়ের আহম্মেদ খান জবা, দপ্তর সম্পাদক এম এ রিয়াজ কচি, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক এ্যাড. তারিক হাসান মিন্টু, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক শেখ মো. রকিকুল ইসলাম লাবু, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক হালিমা ইসলাম, শ্রম সম্পাদক মোজাফফর মোল্যা, সাংস্কৃতিক সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা মোখলেসুর রহমান বাবলু, উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক খায়রুল আলম, নির্বাহী কমিটির সদস্য অসিত বরণ বিশ্বাস, পাপিয়া সরোয়ার শিউলি, শাহিনা আক্তার লিপি, অমিয় অধিকারী, মোঃ আজগর বিশ্বাস তারা, মোঃ জামিল খান, সরদার আবুল কাশেম ডাবলু, শাহনেওয়াজ হোসেন জোয়ারদার, আশরাফুজ্জামান বাবুল, মোঃ মানিকুজ্জামান অশোক, নেত্রী হোসনেয়ারা চম্পা, যুবলীগ নেতা ইঞ্জিঃ মাহফুজুর রহমান সোহাগ, এম এম আজিজুর রহমান রাসেল, এ্যাড. সেলিনা আক্তার পিয়া, খান সাইফুল ইসলাম, মনোয়ারা খাতুন শিউলি, ইঞ্জিঃ বরকত, আহম্মেদ ফিরোজ ইব্রাহিম তন্ময়, সরদার জাকির হোসেন, দেব দুলাল বাড়ই বাপ্পি, মুশফিকুর রহমান সাগর, মোঃ পারভেজ হাওলাদার, মোঃ ইমরান হোসেন, মোঃ হারুনুর রশীদ, হাসনা হেনা, আমিরুল মোমেনিন রানা, মৃণাল কান্তি বাছাড়, এড শিউলি আক্তার লিপি, শারমিন সুলতানা রুণা, এ্যাড. আক্তারুন্নেসা তিতাস, তানভীর রহমান আকাশ, শিউলি বিশ্বাস, কাজি নাজিব, আশিক তানভির, নাজমুল বাশার সম্রাট, শেখ মাসুদ রানা, জান্নাতুল হাওয়া শান্তা, রোজিনা ইয়াসমিন নিশি, মোফিজুর রহমান মুন্না, মোল্যা নাহিদুর রহমান, ফয়সাল শরিফ, রাসেল, ইমন, জুয়েল প্রমুখ।##

Tag :
লেখক তথ্য সম্পর্কে

Dainik adhumati

জনপ্রিয়

কেইউজের নির্বাচন ২৯ জুন :  ভুয়া কমিটি নিয়ে বিভ্রান্ত না হতে সদস্যদের প্রতি নেতৃবৃন্দের আহ্বান

জেলা আওয়ামী লীগের শান্তি সমাবেশে শেখ হারুন

আ’লীগ রাজপথে জনগণকে নিয়ে বিএনপি-জামায়াতের ষড়যন্ত্র ও অপরাজনীতির মোকাবেলা করবে

প্রকাশিত সময় : ১০:১০:৫৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ১১ মার্চ ২০২৩

###    খুলনা জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ হারুনুর রশীদ বলেছেন, বিএনপি-জামায়াত আন্দোলনের নামে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করে দেশকে অস্থিতিশীল করতে চায়। আমরা জনগণের নিরাপত্তার জন্য রাজপথে শান্তি সমাবেশ করি। কারণ আওয়ামী লীগ রাজপথে থাকলে তারা জনগণের জানমালের ক্ষতিসাধণ করতে পারে না। আগুনে পুড়িয়ে মানুষের সম্পদের ক্ষতি ও মানুষকে পুড়িয়ে মারতে পারে না। তিনি বলেন, বাংলাদেশ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নয়নের মহাসড়কে দুর্বার গতিতে এগিয়ে চলেছে। দেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখতে ও স্মার্ট বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে রাজপথেই বিএনপি-জামায়াতের কুকর্মের জবাব দেবে আওয়ামী লীগ। আমরা রাজপথে থাকলে তারা জনগণের জানমালের ক্ষতিসাধন করতে পারে না, এজন্য তাদের মাথা ব্যাথা। আওয়ামী লীগ রাজপথে থেকেই জনগণকে সঙ্গে নিয়ে বিএনপি-জামায়াতের সব ষড়যন্ত্র ও অপরাজনীতির মোকাবিলা করবে। তিনি আরও বলেন, আপনারা ঐক্যবদ্ধ থাকবেন, ধৈর্যশীল থাকবেন, ওদের কৌশল আমাদেরকে অত্যাচারী এবং কর্তৃত্ববাদী সরকার হিসাবে বহির্বিশ্বে উপস্থাপন করা। ওরা পায়ে পাড়া দিয়ে ঝগড়া করতে চাইবে, বিভিন্ন রকম উস্কানি দিতে চেষ্টা করবে। আপনারা ওদের ফাঁদে পা দেবেন না। ওরা প্রতারণায় এবং প্রোপাগান্ডায় ভীষণভাবে পটু। কিন্তু রাজপথ আমরা ছেড়ে দেব না। আমাদেরকে ব্লাকমেইল করার সুযোগ দেব না। ওরা কিন্তু দিনকে রাত বানাতে এবং রাতকে দিন বানাতে বড় পারদর্শী। মিথ্যার উপরই এই দলটার সৃষ্টি।
গতকাল শনিবার বিকাল ৪টায় দলীয় কার্যালয়ের সামনের সড়কে জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত শান্তি সমাবেশে সভাপতির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন। সমাবেশ পরিচালনা করেন জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. সুজিত অধিকারী। এসময়ে বক্তৃতা করেন ও উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা এ্যাড. সোহরাব আলী সানা, বীর মুক্তিযোদ্ধা এ্যাড. এম এম মুজিবর রহমান, এ্যাড. রবীন্দ্রনাথ মন্ডল, অধ্যক্ষ দেলোয়ারা বেগম, বি এম এ ছালাম, এ্যাড. অধ্যাঃ নিমাই চন্দ্র রায়, রফিকুর রহমান রিপন, যুগ্ম সাধারন সম্পাদক মোঃ সরফুদ্দিন বিশ্বাস বাচ্চু, মোঃ কামরুজ্জামান জামাল, সাংগঠনিক সম্পাদক সরদার আবু সালেহ, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক জোবায়ের আহম্মেদ খান জবা, দপ্তর সম্পাদক এম এ রিয়াজ কচি, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক এ্যাড. তারিক হাসান মিন্টু, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক শেখ মো. রকিকুল ইসলাম লাবু, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক হালিমা ইসলাম, শ্রম সম্পাদক মোজাফফর মোল্যা, সাংস্কৃতিক সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা মোখলেসুর রহমান বাবলু, উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক খায়রুল আলম, নির্বাহী কমিটির সদস্য অসিত বরণ বিশ্বাস, পাপিয়া সরোয়ার শিউলি, শাহিনা আক্তার লিপি, অমিয় অধিকারী, মোঃ আজগর বিশ্বাস তারা, মোঃ জামিল খান, সরদার আবুল কাশেম ডাবলু, শাহনেওয়াজ হোসেন জোয়ারদার, আশরাফুজ্জামান বাবুল, মোঃ মানিকুজ্জামান অশোক, নেত্রী হোসনেয়ারা চম্পা, যুবলীগ নেতা ইঞ্জিঃ মাহফুজুর রহমান সোহাগ, এম এম আজিজুর রহমান রাসেল, এ্যাড. সেলিনা আক্তার পিয়া, খান সাইফুল ইসলাম, মনোয়ারা খাতুন শিউলি, ইঞ্জিঃ বরকত, আহম্মেদ ফিরোজ ইব্রাহিম তন্ময়, সরদার জাকির হোসেন, দেব দুলাল বাড়ই বাপ্পি, মুশফিকুর রহমান সাগর, মোঃ পারভেজ হাওলাদার, মোঃ ইমরান হোসেন, মোঃ হারুনুর রশীদ, হাসনা হেনা, আমিরুল মোমেনিন রানা, মৃণাল কান্তি বাছাড়, এড শিউলি আক্তার লিপি, শারমিন সুলতানা রুণা, এ্যাড. আক্তারুন্নেসা তিতাস, তানভীর রহমান আকাশ, শিউলি বিশ্বাস, কাজি নাজিব, আশিক তানভির, নাজমুল বাশার সম্রাট, শেখ মাসুদ রানা, জান্নাতুল হাওয়া শান্তা, রোজিনা ইয়াসমিন নিশি, মোফিজুর রহমান মুন্না, মোল্যা নাহিদুর রহমান, ফয়সাল শরিফ, রাসেল, ইমন, জুয়েল প্রমুখ।##