০৯:২৬ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ২২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে গোপন মনিটরিং সেল গঠন :

কেসিসি নির্বাচনে ভোট না দিতে নেতাকর্মীদের প্রতি আহবান, দিলে কঠোর সাংগঠনিক ব্যবস্থা : বিএনপি

###    খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে দলের সিদ্ধান্ত অমান্য করে ফ্যাসিস্ট সরকারের অধীনে  অংশগ্রহনকারী কোন প্রার্থীদের পক্ষে কাজ করলে বা ভোট কেন্দ্রে ভোট প্রয়োগ করার সুনির্দিষ্ট অভিযোগ পেলেই তার বিরুদ্ধে কঠোর সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে খুলনা মহানগর বিএনপি। এ দিকে নগরীর ৩১টি ওয়ার্ডে গোপন মনিটরিং সেল গঠন করেছে দলটি। শনিবার বিএনপির মিডিয়া সেলের সদস্যরা মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব শফিকুল আলম তুহিনের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে। শনিবার দেয়া মহানগর বিএনপির এক বিবৃতিতে বলা হয়, নেতাকর্মীদের প্রতি নজরদারী রাখার জন্য প্রতিটি ওয়ার্ডে ২১ সদস্যের গোপন মনিটরিং সেল গঠন করা হয়েছে। ভোটের দিন দলের দায়িত্বশীল ব্যক্তি ভোটপ্রদান করলে মনিটরিং সেলের দায়িত্বপ্রাপ্তদের প্রতিবেদনে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। বিবৃতিতে মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব শফিকুল আলম তুহিন বলেন, বিগত ১৫ বছর ধরে অবৈধ সরকারের বিরুদ্ধে বিএনপিসহ দেশপ্রেমিক জনগণ নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নিরপেক্ষ নির্বাচনের দাবিতে আন্দোলন করে আসছে। জনগণের ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠার আন্দোলনে এদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় নেত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া দীর্ঘ প্রায় ৫ (পাঁচ) বছর যাবৎ কারাভোগ করছেন। নিপীড়ক সরকার বিএনপি নেতাকর্মীদের হত্যা, নির্যাতন এবং প্রায় ৫০ (পঞ্চাশ) লক্ষ নেতাকর্মীকে মিথ্যা মামলা দিয়ে প্রতিনিয়ত হয়রানি করছে। ইতিমধ্যে অনেক নেতাকর্র্মীকে গুম করে রাখা হয়েছে। এমতাবস্থায় ফ্যাসিস্ট হাসিনা সরকারের অধীনে কোন নির্বাচনে বিএনপি অংশগ্রহন না করার সিদ্ধান্ত ঘোষনা করেছে। সে ঘোষনার আলোকে খুলনা মহানগর বিএনপি সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন বর্জন করেছে। নির্বাচন বর্জন করা সত্ত্বেও দলের দায়িত্বশীল পদে থেকে ব্যক্তি স্বার্থ চিন্তা করে দলীয় সিদ্ধান্তকে উপেক্ষা করে নির্বাচনে অংশ নেয়ায় ৯জনকে বিশ্বাসঘাতক, বেঈমান ও মীর জাফর আখ্যায়িত করে আজীবনের জন্য বহিস্কার করা হয়েছে। সদস্য সচিব তুহিন জাতীয়তাবাদী দলের ডাকে সাড়া দিয়ে বিএনপির সাথে খুলনাবাসিকে ভোটদান থেকে বিরত থাকার আহবান জানিয়েছেন। ##

Tag :
লেখক তথ্য সম্পর্কে

Dainik adhumati

ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে গোপন মনিটরিং সেল গঠন :

কেসিসি নির্বাচনে ভোট না দিতে নেতাকর্মীদের প্রতি আহবান, দিলে কঠোর সাংগঠনিক ব্যবস্থা : বিএনপি

প্রকাশিত সময় : ০৮:৪৯:১০ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১১ জুন ২০২৩

###    খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে দলের সিদ্ধান্ত অমান্য করে ফ্যাসিস্ট সরকারের অধীনে  অংশগ্রহনকারী কোন প্রার্থীদের পক্ষে কাজ করলে বা ভোট কেন্দ্রে ভোট প্রয়োগ করার সুনির্দিষ্ট অভিযোগ পেলেই তার বিরুদ্ধে কঠোর সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে খুলনা মহানগর বিএনপি। এ দিকে নগরীর ৩১টি ওয়ার্ডে গোপন মনিটরিং সেল গঠন করেছে দলটি। শনিবার বিএনপির মিডিয়া সেলের সদস্যরা মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব শফিকুল আলম তুহিনের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে। শনিবার দেয়া মহানগর বিএনপির এক বিবৃতিতে বলা হয়, নেতাকর্মীদের প্রতি নজরদারী রাখার জন্য প্রতিটি ওয়ার্ডে ২১ সদস্যের গোপন মনিটরিং সেল গঠন করা হয়েছে। ভোটের দিন দলের দায়িত্বশীল ব্যক্তি ভোটপ্রদান করলে মনিটরিং সেলের দায়িত্বপ্রাপ্তদের প্রতিবেদনে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। বিবৃতিতে মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব শফিকুল আলম তুহিন বলেন, বিগত ১৫ বছর ধরে অবৈধ সরকারের বিরুদ্ধে বিএনপিসহ দেশপ্রেমিক জনগণ নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নিরপেক্ষ নির্বাচনের দাবিতে আন্দোলন করে আসছে। জনগণের ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠার আন্দোলনে এদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় নেত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া দীর্ঘ প্রায় ৫ (পাঁচ) বছর যাবৎ কারাভোগ করছেন। নিপীড়ক সরকার বিএনপি নেতাকর্মীদের হত্যা, নির্যাতন এবং প্রায় ৫০ (পঞ্চাশ) লক্ষ নেতাকর্মীকে মিথ্যা মামলা দিয়ে প্রতিনিয়ত হয়রানি করছে। ইতিমধ্যে অনেক নেতাকর্র্মীকে গুম করে রাখা হয়েছে। এমতাবস্থায় ফ্যাসিস্ট হাসিনা সরকারের অধীনে কোন নির্বাচনে বিএনপি অংশগ্রহন না করার সিদ্ধান্ত ঘোষনা করেছে। সে ঘোষনার আলোকে খুলনা মহানগর বিএনপি সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন বর্জন করেছে। নির্বাচন বর্জন করা সত্ত্বেও দলের দায়িত্বশীল পদে থেকে ব্যক্তি স্বার্থ চিন্তা করে দলীয় সিদ্ধান্তকে উপেক্ষা করে নির্বাচনে অংশ নেয়ায় ৯জনকে বিশ্বাসঘাতক, বেঈমান ও মীর জাফর আখ্যায়িত করে আজীবনের জন্য বহিস্কার করা হয়েছে। সদস্য সচিব তুহিন জাতীয়তাবাদী দলের ডাকে সাড়া দিয়ে বিএনপির সাথে খুলনাবাসিকে ভোটদান থেকে বিরত থাকার আহবান জানিয়েছেন। ##