০৫:১৭ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

খুবিতে আন্তঃডিসিপ্লিন ফুটবল প্রতিযোগিতার উদ্বোধন

####

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের শারীরিক শিক্ষা চর্চা বিভাগের আয়োজনে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে আন্তঃডিসিপ্লিন ফুটবল প্রতিযোগিতা শুরু হয়েছে। ৩০ জুন (রবিবার) বিকাল ৫টায় প্রধান অতিথি হিসেবে এ প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন উপাচার্য প্রফেসর ড. মাহমুদ হোসেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য বলেন, খেলাধুলা মনকে প্রফুল্ল করে, হতাশামুক্ত করে। মনের বিশালতা তৈরি করে। খেলোয়াড়দের চিন্তাশক্তি, দর্শন, শারীরিক ও মানসিক সক্ষমতা সবকিছুই অন্যরকম হয়। মাঠে খেলার সময় অপ্রীতিকর পরিস্থিতি যাতে না ঘটে এবং খেলা যাতে উপভোগ্য হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে সকলের প্রতি আহ্বান জানান। তিনি আরও বলেন, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা, গবেষণা ও অবকাঠামোগত ক্ষেত্রে অনেক পরিবর্তন ঘটেছে। খেলার মাঠের উন্নয়নেও পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। শীঘ্রই বিকেএসপির একটি বিশেষজ্ঞ দল এসে এই মাঠের উন্নয়নে কি কি করণীয় আছে, সে বিষয়ে মতামত দিলে যথাসম্ভব উন্নয়ন করা হবে। উদ্বোধনের পর উপাচার্য খেলোয়াড়দের সাথে পরিচিত হন ও কুশল বিনিময় করেন। এ সময় প্রতিযোগিতা উপলক্ষ্যে তৈরিকৃত একটি প্রোমো ভিডিও ডিজিটাল স্ক্রিনে প্রদর্শিত হয়। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার প্রফেসর অমিত রায় চৌধুরী। সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর খান গোলাম কুদ্দুস। সভাপতিত্ব করেন শারীরিক শিক্ষা চর্চা বিভাগের পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর ড. আহসান হাবীব। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সংশ্লিষ্ট বিভাগের উপ-পরিচালক মো. মঈনুল ইসলাম। এসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং শিক্ষার্থীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Tag :
লেখক তথ্য সম্পর্কে

Dainik Madhumati

জনপ্রিয়

রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক একীভূতকরণের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন, ষড়যন্ত্রমূলক অপতৎপরতা রুখে দাড়ানোর আহবান

খুবিতে আন্তঃডিসিপ্লিন ফুটবল প্রতিযোগিতার উদ্বোধন

প্রকাশিত সময় : ০৭:৩৩:২৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩০ জুন ২০২৪

####

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের শারীরিক শিক্ষা চর্চা বিভাগের আয়োজনে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে আন্তঃডিসিপ্লিন ফুটবল প্রতিযোগিতা শুরু হয়েছে। ৩০ জুন (রবিবার) বিকাল ৫টায় প্রধান অতিথি হিসেবে এ প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন উপাচার্য প্রফেসর ড. মাহমুদ হোসেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য বলেন, খেলাধুলা মনকে প্রফুল্ল করে, হতাশামুক্ত করে। মনের বিশালতা তৈরি করে। খেলোয়াড়দের চিন্তাশক্তি, দর্শন, শারীরিক ও মানসিক সক্ষমতা সবকিছুই অন্যরকম হয়। মাঠে খেলার সময় অপ্রীতিকর পরিস্থিতি যাতে না ঘটে এবং খেলা যাতে উপভোগ্য হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে সকলের প্রতি আহ্বান জানান। তিনি আরও বলেন, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা, গবেষণা ও অবকাঠামোগত ক্ষেত্রে অনেক পরিবর্তন ঘটেছে। খেলার মাঠের উন্নয়নেও পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। শীঘ্রই বিকেএসপির একটি বিশেষজ্ঞ দল এসে এই মাঠের উন্নয়নে কি কি করণীয় আছে, সে বিষয়ে মতামত দিলে যথাসম্ভব উন্নয়ন করা হবে। উদ্বোধনের পর উপাচার্য খেলোয়াড়দের সাথে পরিচিত হন ও কুশল বিনিময় করেন। এ সময় প্রতিযোগিতা উপলক্ষ্যে তৈরিকৃত একটি প্রোমো ভিডিও ডিজিটাল স্ক্রিনে প্রদর্শিত হয়। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার প্রফেসর অমিত রায় চৌধুরী। সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর খান গোলাম কুদ্দুস। সভাপতিত্ব করেন শারীরিক শিক্ষা চর্চা বিভাগের পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর ড. আহসান হাবীব। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সংশ্লিষ্ট বিভাগের উপ-পরিচালক মো. মঈনুল ইসলাম। এসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং শিক্ষার্থীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।