০৪:২৮ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

খুবিতে চারুকলার ষষ্ঠ বার্ষিক প্রদর্শনী সমাপ্ত, দর্শকের উপচেপড়া ভীড়

  • অফিস ডেক্স।।
  • প্রকাশিত সময় : ০১:১৫:৪৭ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৭ জানুয়ারী ২০২৩
  • ৪৫ পড়েছেন

###    খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা স্কুল আয়োজিত ৫দিনব্যাপী ৬ষ্ঠ বার্ষিক শিল্পকর্ম প্রদর্শনী সোমবার শেষ হয়েছে। গত ১২ জানুয়ারি থেকে শুরু হওয়া এ প্রদর্শনীতে প্রত্যেক দিনেই বিপুল সংখ্যক চিত্র-কলা অনুরাগী, দর্শকদের উপস্থিতি ছিলো লক্ষ্যণীয়। এ বছরই সর্বাধিক ৪ শত শিল্পকর্ম এই প্রদর্শনীতে স্থান পায়। খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা স্কুলের তিনটি ডিসিপ্লিনের শিক্ষার্থীদের এই শিল্পকর্মগুলো দর্শকদের প্রশংসা লাভ করেছে। এ বছর ৪টি ক্যাটাগরিতে ৩৯ জন কৃতি শিক্ষার্থীকে তাদের শিল্পকর্মের জন্য সম্মাননা প্রদান করা হয়। চারুকলা স্কুলের ডিন প্রফেসর ড. নিহার রঞ্জন সিংহ জানান, এ বছর বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের বিশেষ করে উপাচার্যের সহায়তা, দিকনির্দেশনা ও অনুপ্রেরণায় ঢাকার বাইরে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে এতো বড় শিল্পকর্ম প্রদর্শনীর আয়োজন করা সম্ভব হয়েছে। আগামী বছর চারুকলার বড় আয়তনের একটি স্থান সাজসজ্জার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এ ব্যাপারে ইতোমধ্যেই উপাচার্য প্রয়োজনীয় বরাদ্দ প্রদানে আশ্বাস দিয়েছেন। ডিজাইন তৈরি হয়েছে, আশা করা হচ্ছে শীঘ্রই এর কাজ শুরু হবে। আগামী বছর এই নতুন স্থানে আরও বড় আকারে প্রদর্শনীর আয়োজন সম্ভব হবে। যার ফলে দর্শনার্থী একই স্থানে বিপুল সংখ্যক শিল্পকর্ম দেখতে পারবেন। তিনি চারুকলা স্কুলের সকল শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের কর্মপ্রচেষ্টার জন্য ধন্যবাদ জানান। ##

Tag :
লেখক তথ্য সম্পর্কে

Dainik Madhumati

জনপ্রিয়

রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক একীভূতকরণের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন, ষড়যন্ত্রমূলক অপতৎপরতা রুখে দাড়ানোর আহবান

খুবিতে চারুকলার ষষ্ঠ বার্ষিক প্রদর্শনী সমাপ্ত, দর্শকের উপচেপড়া ভীড়

প্রকাশিত সময় : ০১:১৫:৪৭ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৭ জানুয়ারী ২০২৩

###    খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা স্কুল আয়োজিত ৫দিনব্যাপী ৬ষ্ঠ বার্ষিক শিল্পকর্ম প্রদর্শনী সোমবার শেষ হয়েছে। গত ১২ জানুয়ারি থেকে শুরু হওয়া এ প্রদর্শনীতে প্রত্যেক দিনেই বিপুল সংখ্যক চিত্র-কলা অনুরাগী, দর্শকদের উপস্থিতি ছিলো লক্ষ্যণীয়। এ বছরই সর্বাধিক ৪ শত শিল্পকর্ম এই প্রদর্শনীতে স্থান পায়। খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা স্কুলের তিনটি ডিসিপ্লিনের শিক্ষার্থীদের এই শিল্পকর্মগুলো দর্শকদের প্রশংসা লাভ করেছে। এ বছর ৪টি ক্যাটাগরিতে ৩৯ জন কৃতি শিক্ষার্থীকে তাদের শিল্পকর্মের জন্য সম্মাননা প্রদান করা হয়। চারুকলা স্কুলের ডিন প্রফেসর ড. নিহার রঞ্জন সিংহ জানান, এ বছর বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের বিশেষ করে উপাচার্যের সহায়তা, দিকনির্দেশনা ও অনুপ্রেরণায় ঢাকার বাইরে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে এতো বড় শিল্পকর্ম প্রদর্শনীর আয়োজন করা সম্ভব হয়েছে। আগামী বছর চারুকলার বড় আয়তনের একটি স্থান সাজসজ্জার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এ ব্যাপারে ইতোমধ্যেই উপাচার্য প্রয়োজনীয় বরাদ্দ প্রদানে আশ্বাস দিয়েছেন। ডিজাইন তৈরি হয়েছে, আশা করা হচ্ছে শীঘ্রই এর কাজ শুরু হবে। আগামী বছর এই নতুন স্থানে আরও বড় আকারে প্রদর্শনীর আয়োজন সম্ভব হবে। যার ফলে দর্শনার্থী একই স্থানে বিপুল সংখ্যক শিল্পকর্ম দেখতে পারবেন। তিনি চারুকলা স্কুলের সকল শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের কর্মপ্রচেষ্টার জন্য ধন্যবাদ জানান। ##