০৫:১২ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

খুবিতে টিচিং লার্নিং বেইজড অন ওবিই ফরম্যাট কারিকুলা শীর্ষক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত

###     খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনস্টিটিউশনাল কোয়ালিটি অ্যাসুরেন্স সেলের উদ্যোগে ‘টিচিং লার্নিং বেইজড অন ওবিই ফরম্যাট কারিকুলা’ শীর্ষক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়।১৬ জানুয়ারি(সোমবার) বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য জগদীশচন্দ্র বসু একাডেমিক ভবনের সাংবাদিক লিয়াকত আলী মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত এ প্রশিক্ষণের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপাচার্য প্রফেসর ড. মাহমুদ হোসেন। তিনি বলেন, সময়ের সাথে সাথে ওবিই কারিকুলার ইমপ্রুভমেন্ট হবে। সিনিয়র শিক্ষকদের অভিজ্ঞতার সাথে ওবিই কারিকুলার সংমিশ্রণ হলে বিশ্ববিদ্যালয় অনেক এগিয়ে যাবে। খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়কে বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে এগিয়ে নিতে শিক্ষকদের অবদান গুরুত্বপূর্ণ। এজন্য শিক্ষকদের সবসময় শেখার মানসিকতা থাকতে হবে। তিনি বলেন, পুরো কোর্সে কি কি করতে হবে- এ বিষয়ে শিক্ষার্থীদের জানার অধিকার রয়েছে। সিলেবাসের বাইরেও তাদের জানার আগ্রহ থাকবে। এজন্য ওবিই কারিকুলার সাথে লেটেস্ট কোনো তথ্য থাকলে সে বিষয়েও পড়ানো যেতে পারে। সেশনাল ট্যুর এবং ফিল্ডওয়ার্ক যথোপযুক্তভাবে করতে হবে। এখন সবকিছুই প্রযুক্তি নির্ভর। আমাদেরও প্রযুক্তির সাথে নিজেদেরকে মানিয়ে নিতে হবে।
তিনি আরও বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের জবাবদিহিতা সবচেয়ে বেশি। কারণ, আমরা যে উন্নত-সমৃদ্ধ স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণের স্বপ্ন দেখছি, তার পেছনে শিক্ষকদের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা দক্ষ ও দেশপ্রেমিক নাগরিক তৈরি করতে না পারলে দেশ তার স্বপ্নের পথে এগোতে পারবে না। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্য রাখেন আইকিউএসির পরিচালক প্রফেসর ড. মোহাম্মদ জিয়াউল হায়দার। স্বাগত বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত পরিচালক প্রফেসর ড. জগদীশ চন্দ্র জোয়ার্দার। ফিডব্যাক গ্রহণ করেন আইকিউএসির অতিরিক্ত পরিচালক মো. মতিউল ইসলাম। উদ্বোধনী অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন আইকিউএসির উপ-রেজিস্ট্রার মোঃ নুরুল ইসলাম সিদ্দিকী। এ প্রশিক্ষণ কর্মসূচিতে রিসোর্স পার্সন হিসেবে বিষয়ভিত্তিক ৪টি টেকনিক্যাল সেশন পরিচালনা করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইইআর এর শিক্ষক প্রফেসর ড. মো. আহসান হাবীব। এ প্রশিক্ষণ কর্মসূচিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন ডিসিপ্লিনের ৯০ জন শিক্ষক অংশগ্রহণ করেন। ##

Tag :
লেখক তথ্য সম্পর্কে

Dainik Madhumati

জনপ্রিয়

দেবহাটায় জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন এ্যাডভোকেসি সভা অনুষ্ঠিত 

খুবিতে টিচিং লার্নিং বেইজড অন ওবিই ফরম্যাট কারিকুলা শীর্ষক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত সময় : ০১:২১:৪৯ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৭ জানুয়ারী ২০২৩

###     খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনস্টিটিউশনাল কোয়ালিটি অ্যাসুরেন্স সেলের উদ্যোগে ‘টিচিং লার্নিং বেইজড অন ওবিই ফরম্যাট কারিকুলা’ শীর্ষক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়।১৬ জানুয়ারি(সোমবার) বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য জগদীশচন্দ্র বসু একাডেমিক ভবনের সাংবাদিক লিয়াকত আলী মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত এ প্রশিক্ষণের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপাচার্য প্রফেসর ড. মাহমুদ হোসেন। তিনি বলেন, সময়ের সাথে সাথে ওবিই কারিকুলার ইমপ্রুভমেন্ট হবে। সিনিয়র শিক্ষকদের অভিজ্ঞতার সাথে ওবিই কারিকুলার সংমিশ্রণ হলে বিশ্ববিদ্যালয় অনেক এগিয়ে যাবে। খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়কে বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে এগিয়ে নিতে শিক্ষকদের অবদান গুরুত্বপূর্ণ। এজন্য শিক্ষকদের সবসময় শেখার মানসিকতা থাকতে হবে। তিনি বলেন, পুরো কোর্সে কি কি করতে হবে- এ বিষয়ে শিক্ষার্থীদের জানার অধিকার রয়েছে। সিলেবাসের বাইরেও তাদের জানার আগ্রহ থাকবে। এজন্য ওবিই কারিকুলার সাথে লেটেস্ট কোনো তথ্য থাকলে সে বিষয়েও পড়ানো যেতে পারে। সেশনাল ট্যুর এবং ফিল্ডওয়ার্ক যথোপযুক্তভাবে করতে হবে। এখন সবকিছুই প্রযুক্তি নির্ভর। আমাদেরও প্রযুক্তির সাথে নিজেদেরকে মানিয়ে নিতে হবে।
তিনি আরও বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের জবাবদিহিতা সবচেয়ে বেশি। কারণ, আমরা যে উন্নত-সমৃদ্ধ স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণের স্বপ্ন দেখছি, তার পেছনে শিক্ষকদের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা দক্ষ ও দেশপ্রেমিক নাগরিক তৈরি করতে না পারলে দেশ তার স্বপ্নের পথে এগোতে পারবে না। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্য রাখেন আইকিউএসির পরিচালক প্রফেসর ড. মোহাম্মদ জিয়াউল হায়দার। স্বাগত বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত পরিচালক প্রফেসর ড. জগদীশ চন্দ্র জোয়ার্দার। ফিডব্যাক গ্রহণ করেন আইকিউএসির অতিরিক্ত পরিচালক মো. মতিউল ইসলাম। উদ্বোধনী অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন আইকিউএসির উপ-রেজিস্ট্রার মোঃ নুরুল ইসলাম সিদ্দিকী। এ প্রশিক্ষণ কর্মসূচিতে রিসোর্স পার্সন হিসেবে বিষয়ভিত্তিক ৪টি টেকনিক্যাল সেশন পরিচালনা করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইইআর এর শিক্ষক প্রফেসর ড. মো. আহসান হাবীব। এ প্রশিক্ষণ কর্মসূচিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন ডিসিপ্লিনের ৯০ জন শিক্ষক অংশগ্রহণ করেন। ##