০৯:১৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৭ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
কেসিসি নির্বাচনে তালুকদার আব্দুল খালেককে নৌকা প্রতীকে প্রার্থী নির্বাচিত হওয়ায়;

নগর যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও ছাত্রলীগের আনন্দ মিছিল

###   খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এমডিএ বাবুল রানা বলেছেন, দক্ষীনাঞ্চলের বর্ষীয়ান রাজনীতিবীদ তালুকদার আব্দুল খালেককে খুলনা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী নির্বাচন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একটি যুগান্তকারী পদক্ষেপ। খুলনা মহানগরীকে একটি আধুনিক শহর হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষ্যে চলমান প্রকল্পের অসমাপ্ত কাজ শেষ করতে প্রধানমন্ত্রীর এ সিদ্ধান্তকে সাধুবাদ জানান তিনি। তিনি আরো বলেন, বিগত দিনে খুলনায় অনেক মেয়র ছিলেন, তারা খুলনার জন্য কি করেছেন তা জনগণ দেখেছেন। খুলনার উন্নয়নে তালুকদার আব্দুল খালেকের বিকল্প নেই। তাই মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে তালুকদার আব্দৃুল খালেকের উন্নায়ন কর্মকান্ডের প্রচার মানুষের ঘরে ঘরে পোঁছে দেয়ার জন্য সকল সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের প্রতি আহবার জানান তিনি।
রবিবার (১৬ এপ্রিল) বেলা সাড়ে ১১টায় নগরীর শঙ্খ মার্কেটস্থ দলীয় কার্যালয়ে প্রাঙ্গণে আসন্ন সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে তালুকদার আব্দুল খালেককে পুনরায় নৌকা প্রতীকে মনোনায়ন দেওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়ে যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও ছাত্রলীগের যৌথ উদ্যেগে অনুষ্ঠিত আনন্দ মিছিল পূর্বক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
খুলনা মহানগর যুবলীগের সভাপতি শফিকুর রহমান পলাশের সভাপতিত্বে এবং নগর স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম আসাদুজ্জামান রাসেলের সঞ্চালনায় এসময় উপস্থিত ছিলেন মহানগর আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি এ্যাড. আইয়ুব আলী শেখ, দপ্তর সম্পাদক মুন্সী মাহাবুব আলম সোহাগ, সদস্য অধ্যাপক রুনু ইকবাল বিথার, মহানগর শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক রনজিৎ কুমার ঘোষ, জেলা যুবলীগের সভাপতি শেখ রায়হান ফরিদ, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি এম এ নাসিম, মহানগর যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক শেখ শাহ্জালাল হোসেন সুজন, যুবলীগ নেতা আবুল হোসেন, কবীর পাঠান, তাজুল ইসলাম, কাউন্সিলর সুলতান আহমেদ পিন্টু, অভিজিৎ পাল, ইলিয়াস হোসেন লাবু, আরীফুর রহমান আরীফ, জামিল আহমেদ সোহাগ, সবুজ হাজরা, পলাশ মন্ডল, রফিকুল ইসলাম রফিক, সজল বাড়ৈই, জব্বার আলী হীরা, জহির আব্বাস, সোহান হোসেন শাওন, রফিকুল ইসলাম রফিক, মাহামুদুর রহমান রাজেশ, জনি বসু, রুম্মান আহমেদ, সাগর মজুমদার, স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতা কাজী ইউসুফ আলী মন্টু, মোঃ কামরুল ইসলাম, মোঃ রাজিব হোসাইন, মোঃ আকরাম হোসেন, মোঃ জিলহাজ্জ হাওলাদার, মোঃ নজরুল ইসলাম নবী, মিঠু দে, মোঃ তাজমুল হক তাজু, আসিফ ইকবাল সবুজ, মোঃ রবিউল ইসলাম প্রিন্স, মোঃ শফিকুল ইসলাম অভি, আসাদুল ইসলাম সানি, ফাহিদ হোসেন ঐশর্য, মোঃ দিদারুল আলম, মোঃ কবির হোসেন, রবিন ধন, রফিকুল ইসলাম কাজল, ছাত্রলীগ নেতা মাসুদ হোসেন সোহান, দিদারুল আলম, সোহান হোসেন শাওন, ইবনুল হাসান, মাহমুদুল ইসলাম রাজেশ, বায়জিত সিনা, আব্দুল কাদের সৈকত, আহনাফ অর্পন, শংকর কুন্ডু, শাহরিয়ার নেওয়াজ রাব্বি, অভিজিৎ সরকার রাহুল, রুম্মান আহমেদ, সাইফুল ইসলাম সাব্বির, স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা আবুল বাশার খোকন, কাজী মোঃ জায়েদুল ইসলাম জনি, মোঃ হাফিজুল ইসলাম, মোঃ আসাদুজ্জামান লিপন, মোঃ জিয়া উদ্দীন মল্লিক তাজু, মোঃ হাফিজুর রহমান সুমন, মোঃ রফিকুল ইসলাম শাওন, মোঃ শহিদুল ইসলাম, আরিফুল ইসলাম অনিক, মোঃ শাহীন আলম, মোঃ রফিকুল রহমান মারুফ, মোঃ ইব্রাহীম মোড়ল, শেখ ইমরান হোসেন, রুপম তালুকদার, জাহিদুল ইসলাম, সোহাগ হোসেইন, মোঃ সোহেল রানা, মোঃ হাবিবুর রহমান, মোঃ সোহেল মিয়া, মোঃ সোহাগ গাজী, মোঃ নাইম দেওয়ান, মোঃ রিপনুজ্জামান রিপন, মোঃ কবির হোসেন, মোঃ বায়োজিত হোসেন, মোঃ মাহাবুব, মোঃ মাসুদ চৌধুরী, মোঃ নাছির মৃধা, মোঃ আনিস শেখ, মোঃ জাহিদুল ইসলাম, শেখ নিয়াজ মোর্শেদ, মোঃ সম্রাট হাওলাদার, আবুল কালাম খন্দকার, মোঃ মারুফ খান, লিটন মাহামুদ, দিদারুল আলম, মোঃ নাসির উদ্দিন, মোঃ শাহরিয়ান নেওয়াজ রাব্বি, মোঃ মারুফ চৌধুরী রিমন, তুষার সরকার, মোঃ আনিস শেখ , মোঃ নান্নু, শাজাহান শিকদার, মোঃ ইমরান হাওলাদার, মোঃ ছাইদ, মাফুজুর রহমান জনি, নুর মোহাম্মদ ময়না, মোঃ রফিক, নাসির সেখ, মোঃ মানিক, মোঃ শাহারিয়ান নেওয়াজ প্রমুখ্য: সমাবেশ শেষে একটি আনন্দ মিছিল শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন শেষে দলীয় কার্যালয় প্রাঙ্গণে গিয়ে শেষ হয়।##

Tag :
লেখক তথ্য সম্পর্কে

Dainik adhumati

জনপ্রিয়

বাকেরগঞ্জে কৃষি ব্যাংকের গ্রাহকদের সঙ্গে মতবিনিময় সভা

কেসিসি নির্বাচনে তালুকদার আব্দুল খালেককে নৌকা প্রতীকে প্রার্থী নির্বাচিত হওয়ায়;

নগর যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও ছাত্রলীগের আনন্দ মিছিল

প্রকাশিত সময় : ০৪:২৩:৩৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৩

###   খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এমডিএ বাবুল রানা বলেছেন, দক্ষীনাঞ্চলের বর্ষীয়ান রাজনীতিবীদ তালুকদার আব্দুল খালেককে খুলনা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী নির্বাচন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একটি যুগান্তকারী পদক্ষেপ। খুলনা মহানগরীকে একটি আধুনিক শহর হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষ্যে চলমান প্রকল্পের অসমাপ্ত কাজ শেষ করতে প্রধানমন্ত্রীর এ সিদ্ধান্তকে সাধুবাদ জানান তিনি। তিনি আরো বলেন, বিগত দিনে খুলনায় অনেক মেয়র ছিলেন, তারা খুলনার জন্য কি করেছেন তা জনগণ দেখেছেন। খুলনার উন্নয়নে তালুকদার আব্দুল খালেকের বিকল্প নেই। তাই মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে তালুকদার আব্দৃুল খালেকের উন্নায়ন কর্মকান্ডের প্রচার মানুষের ঘরে ঘরে পোঁছে দেয়ার জন্য সকল সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের প্রতি আহবার জানান তিনি।
রবিবার (১৬ এপ্রিল) বেলা সাড়ে ১১টায় নগরীর শঙ্খ মার্কেটস্থ দলীয় কার্যালয়ে প্রাঙ্গণে আসন্ন সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে তালুকদার আব্দুল খালেককে পুনরায় নৌকা প্রতীকে মনোনায়ন দেওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়ে যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও ছাত্রলীগের যৌথ উদ্যেগে অনুষ্ঠিত আনন্দ মিছিল পূর্বক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
খুলনা মহানগর যুবলীগের সভাপতি শফিকুর রহমান পলাশের সভাপতিত্বে এবং নগর স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম আসাদুজ্জামান রাসেলের সঞ্চালনায় এসময় উপস্থিত ছিলেন মহানগর আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি এ্যাড. আইয়ুব আলী শেখ, দপ্তর সম্পাদক মুন্সী মাহাবুব আলম সোহাগ, সদস্য অধ্যাপক রুনু ইকবাল বিথার, মহানগর শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক রনজিৎ কুমার ঘোষ, জেলা যুবলীগের সভাপতি শেখ রায়হান ফরিদ, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি এম এ নাসিম, মহানগর যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক শেখ শাহ্জালাল হোসেন সুজন, যুবলীগ নেতা আবুল হোসেন, কবীর পাঠান, তাজুল ইসলাম, কাউন্সিলর সুলতান আহমেদ পিন্টু, অভিজিৎ পাল, ইলিয়াস হোসেন লাবু, আরীফুর রহমান আরীফ, জামিল আহমেদ সোহাগ, সবুজ হাজরা, পলাশ মন্ডল, রফিকুল ইসলাম রফিক, সজল বাড়ৈই, জব্বার আলী হীরা, জহির আব্বাস, সোহান হোসেন শাওন, রফিকুল ইসলাম রফিক, মাহামুদুর রহমান রাজেশ, জনি বসু, রুম্মান আহমেদ, সাগর মজুমদার, স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতা কাজী ইউসুফ আলী মন্টু, মোঃ কামরুল ইসলাম, মোঃ রাজিব হোসাইন, মোঃ আকরাম হোসেন, মোঃ জিলহাজ্জ হাওলাদার, মোঃ নজরুল ইসলাম নবী, মিঠু দে, মোঃ তাজমুল হক তাজু, আসিফ ইকবাল সবুজ, মোঃ রবিউল ইসলাম প্রিন্স, মোঃ শফিকুল ইসলাম অভি, আসাদুল ইসলাম সানি, ফাহিদ হোসেন ঐশর্য, মোঃ দিদারুল আলম, মোঃ কবির হোসেন, রবিন ধন, রফিকুল ইসলাম কাজল, ছাত্রলীগ নেতা মাসুদ হোসেন সোহান, দিদারুল আলম, সোহান হোসেন শাওন, ইবনুল হাসান, মাহমুদুল ইসলাম রাজেশ, বায়জিত সিনা, আব্দুল কাদের সৈকত, আহনাফ অর্পন, শংকর কুন্ডু, শাহরিয়ার নেওয়াজ রাব্বি, অভিজিৎ সরকার রাহুল, রুম্মান আহমেদ, সাইফুল ইসলাম সাব্বির, স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা আবুল বাশার খোকন, কাজী মোঃ জায়েদুল ইসলাম জনি, মোঃ হাফিজুল ইসলাম, মোঃ আসাদুজ্জামান লিপন, মোঃ জিয়া উদ্দীন মল্লিক তাজু, মোঃ হাফিজুর রহমান সুমন, মোঃ রফিকুল ইসলাম শাওন, মোঃ শহিদুল ইসলাম, আরিফুল ইসলাম অনিক, মোঃ শাহীন আলম, মোঃ রফিকুল রহমান মারুফ, মোঃ ইব্রাহীম মোড়ল, শেখ ইমরান হোসেন, রুপম তালুকদার, জাহিদুল ইসলাম, সোহাগ হোসেইন, মোঃ সোহেল রানা, মোঃ হাবিবুর রহমান, মোঃ সোহেল মিয়া, মোঃ সোহাগ গাজী, মোঃ নাইম দেওয়ান, মোঃ রিপনুজ্জামান রিপন, মোঃ কবির হোসেন, মোঃ বায়োজিত হোসেন, মোঃ মাহাবুব, মোঃ মাসুদ চৌধুরী, মোঃ নাছির মৃধা, মোঃ আনিস শেখ, মোঃ জাহিদুল ইসলাম, শেখ নিয়াজ মোর্শেদ, মোঃ সম্রাট হাওলাদার, আবুল কালাম খন্দকার, মোঃ মারুফ খান, লিটন মাহামুদ, দিদারুল আলম, মোঃ নাসির উদ্দিন, মোঃ শাহরিয়ান নেওয়াজ রাব্বি, মোঃ মারুফ চৌধুরী রিমন, তুষার সরকার, মোঃ আনিস শেখ , মোঃ নান্নু, শাজাহান শিকদার, মোঃ ইমরান হাওলাদার, মোঃ ছাইদ, মাফুজুর রহমান জনি, নুর মোহাম্মদ ময়না, মোঃ রফিক, নাসির সেখ, মোঃ মানিক, মোঃ শাহারিয়ান নেওয়াজ প্রমুখ্য: সমাবেশ শেষে একটি আনন্দ মিছিল শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন শেষে দলীয় কার্যালয় প্রাঙ্গণে গিয়ে শেষ হয়।##