১০:১৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

খুলনায় রেলস্টেশনের ইয়ার্ড থেকে নিখোঁজ ব্যাবসায়ীর লাশ উদ্ধার

####

 

খুলনা নগরীর ২১নং ওয়ার্ডের প্রভাতী স্কুলের বিপরীতদিকের রেলস্টেশনের ইয়ার্ড থেকে নিখোজ কদমতলা মোড়ের ব্যবসায়ী বনমালি কুমার মন্ডলের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার সকাল সাড়ে সাতটায় খুলনা রেলওয়ে থানা পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে। পরে ময়না তদন্তের জন্য মেডিকেল কলেজের মর্গে প্রেরন করেছে। নিহত বনমালী কুমার মন্ডল নগরীর কদমতলা এলাকার মেসার্স পদ্মা ভান্ডারের মালিক এবং খুলনার কয়রা উপ‌জেলার ৬ নং কয়রা গ্রা‌মের জো‌তিন্দ্র নাথ মণ্ডলের ছেলে। তার পরিবারের অভিযোগ,  রবিবার দুপুরে শেখপাড়ার বাসা থেকে বের হওয়ার পর আর বাসায় না ফেরেনি। বিকাল সাড়ে চারটায় নিজ দোকানের কর্মচারীকে ম্যাসেজ দিয়ে জানায় কয়েকজন দুষ্কৃতকারী তাকে তুলে নিয়ে গেছে। এ বিষয়ে পরিবারের পক্ষ থেকে সোনাডাঙ্গা থানায় অবহিত করা হলেও পুলিশ কোন ব্যবস্থা না নিয়ে অপেক্ষা করতে বলে। পুলিশ কোন ব্যবস্তা না নেওয়ায় এমন মর্মান্তিক ঘটনা ঘটেছে বলে নিহতের পরিবার ধারনা করছে।নিহত ব্যবসায়ীর দোকানের কর্মচারী হেমন্ত কুমার মন্ডল ও স্বজনরা জানায়, রবিবার দুপুর তিনটায় ব্যবসায়ী বনমালি কুমার মন্ডল নগরীর শেখ পাড়ার বাসা থেকে বের হয়ে আর বাসায় ফেরেননি। বিকাল সাড়ে চারটার দিকে তিনি তার(হেমন্ত কুমার মন্ডল) মোবাইলে ম্যাসেজ করে জানায় যে, তাকে তিন চারজন ব্যাক্তি চোখ বেধে তুলে নিয়ে গেছে। তারা তাকে মেরে ফেলার হুমকি দিচ্ছে। এই ম্যাসেজ পাওয়ার পর অনেক খোঁজাখুঁজি করেও তাকে না পেয়ে রাতে সোনাডাঙা থানায় গিয়ে বিষয়টি অবহিত করে তার কর্শচারী ও আত্মীয়রা। কিন্তু পুলিশ সব শুনেও কোন পদক্ষেপ না নিয়ে তাদেরকে আরো অপেক্ষা করতে বলে। সোমবার সকাল সাড়ে সাতটার দিকে ব্যবসায়ী বনমালী কুমার মন্ডলের লাশ খুলনা রেল ষ্টেশনের ইয়ার্ড থেকে উদ্ধার হয়।

এ বিষয়ে সোনাডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মমতাজুল হক জানান, সোমবার রাত ১২টার দিকে নিখোঁজ ব্যাবসায়ীর আত্মীয়-স্বজনরা থানায় আসেন। ব্যাবসায়ীর বটিয়াঘাটায় এক আত্মীয়ের বাড়ী যাবার কথা ছিলো। পরে তিনি ম্যাসেজ পাঠান কর্মচারীকে। বিষয়টি পরিষ্কার না হওয়ায় আমরা আরো অপেক্ষা করতে বলি। এ বিষয়ে খুলনা রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো: খবির আহম্মেদ বলেন, সকাল সাড়ে সাতটার দিকে ব্যাবসায়ী বনমালী কুমার মন্ডলের লাশ প্রভাতী স্কুল মাঠের উল্টোপাশে রেল ষ্টেশন ইয়ার্ড থেকে উদ্ধার করা হয়। তবে লাশ ট্রেনে কাঁটা নয়। লাশের গায়ে কোন ক্ষত চিহ্নও নেই। সুরতহাল প্রতিবেদনের পর লাশ ময়নাতদন্তের জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে নিহতের পরিবারের অভিযোগ ও হত্যার বিষয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও তিনি জানান। ##

Tag :
লেখক তথ্য সম্পর্কে

Dainik Madhumati

জনপ্রিয়

কুয়েটে পবিত্র ঈদ-উল-আযহার জামাত সকাল ৭ টায় 

খুলনায় রেলস্টেশনের ইয়ার্ড থেকে নিখোঁজ ব্যাবসায়ীর লাশ উদ্ধার

প্রকাশিত সময় : ০৩:২৮:০৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৮ জুন ২০২৩

####

 

খুলনা নগরীর ২১নং ওয়ার্ডের প্রভাতী স্কুলের বিপরীতদিকের রেলস্টেশনের ইয়ার্ড থেকে নিখোজ কদমতলা মোড়ের ব্যবসায়ী বনমালি কুমার মন্ডলের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার সকাল সাড়ে সাতটায় খুলনা রেলওয়ে থানা পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে। পরে ময়না তদন্তের জন্য মেডিকেল কলেজের মর্গে প্রেরন করেছে। নিহত বনমালী কুমার মন্ডল নগরীর কদমতলা এলাকার মেসার্স পদ্মা ভান্ডারের মালিক এবং খুলনার কয়রা উপ‌জেলার ৬ নং কয়রা গ্রা‌মের জো‌তিন্দ্র নাথ মণ্ডলের ছেলে। তার পরিবারের অভিযোগ,  রবিবার দুপুরে শেখপাড়ার বাসা থেকে বের হওয়ার পর আর বাসায় না ফেরেনি। বিকাল সাড়ে চারটায় নিজ দোকানের কর্মচারীকে ম্যাসেজ দিয়ে জানায় কয়েকজন দুষ্কৃতকারী তাকে তুলে নিয়ে গেছে। এ বিষয়ে পরিবারের পক্ষ থেকে সোনাডাঙ্গা থানায় অবহিত করা হলেও পুলিশ কোন ব্যবস্থা না নিয়ে অপেক্ষা করতে বলে। পুলিশ কোন ব্যবস্তা না নেওয়ায় এমন মর্মান্তিক ঘটনা ঘটেছে বলে নিহতের পরিবার ধারনা করছে।নিহত ব্যবসায়ীর দোকানের কর্মচারী হেমন্ত কুমার মন্ডল ও স্বজনরা জানায়, রবিবার দুপুর তিনটায় ব্যবসায়ী বনমালি কুমার মন্ডল নগরীর শেখ পাড়ার বাসা থেকে বের হয়ে আর বাসায় ফেরেননি। বিকাল সাড়ে চারটার দিকে তিনি তার(হেমন্ত কুমার মন্ডল) মোবাইলে ম্যাসেজ করে জানায় যে, তাকে তিন চারজন ব্যাক্তি চোখ বেধে তুলে নিয়ে গেছে। তারা তাকে মেরে ফেলার হুমকি দিচ্ছে। এই ম্যাসেজ পাওয়ার পর অনেক খোঁজাখুঁজি করেও তাকে না পেয়ে রাতে সোনাডাঙা থানায় গিয়ে বিষয়টি অবহিত করে তার কর্শচারী ও আত্মীয়রা। কিন্তু পুলিশ সব শুনেও কোন পদক্ষেপ না নিয়ে তাদেরকে আরো অপেক্ষা করতে বলে। সোমবার সকাল সাড়ে সাতটার দিকে ব্যবসায়ী বনমালী কুমার মন্ডলের লাশ খুলনা রেল ষ্টেশনের ইয়ার্ড থেকে উদ্ধার হয়।

এ বিষয়ে সোনাডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মমতাজুল হক জানান, সোমবার রাত ১২টার দিকে নিখোঁজ ব্যাবসায়ীর আত্মীয়-স্বজনরা থানায় আসেন। ব্যাবসায়ীর বটিয়াঘাটায় এক আত্মীয়ের বাড়ী যাবার কথা ছিলো। পরে তিনি ম্যাসেজ পাঠান কর্মচারীকে। বিষয়টি পরিষ্কার না হওয়ায় আমরা আরো অপেক্ষা করতে বলি। এ বিষয়ে খুলনা রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো: খবির আহম্মেদ বলেন, সকাল সাড়ে সাতটার দিকে ব্যাবসায়ী বনমালী কুমার মন্ডলের লাশ প্রভাতী স্কুল মাঠের উল্টোপাশে রেল ষ্টেশন ইয়ার্ড থেকে উদ্ধার করা হয়। তবে লাশ ট্রেনে কাঁটা নয়। লাশের গায়ে কোন ক্ষত চিহ্নও নেই। সুরতহাল প্রতিবেদনের পর লাশ ময়নাতদন্তের জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে নিহতের পরিবারের অভিযোগ ও হত্যার বিষয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও তিনি জানান। ##