০৫:০১ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

খুলনার কয়রার দক্ষিণ বেদকাশী থেকে গরান কাঠ আটক

###    খুলনার কয়রা উপজেলার দক্ষিণ বেদকাশী গ্রাম থেকে সুন্দরনের কর্তন নিষিদ্ধ ৪০০ পিস গরানের কাঠ আটক করেছে বন বিভাগ। সোমবার  বেদকাশী গ্রামের ওম্মদ খাঁর পুত্র নজরুল খাঁর পুকুর থেকে এই কাঠ উদ্ধার করা হয়। পরে কাঠগুলি বন বিভাগের কোবাদক ষ্টেশনে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। সুন্দরবনের কোবাদক ফরেস্ট স্টেশন কর্মকর্তা মোঃ ফারুকুল ইসলাম জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খবর পেয় বনবিভাগের একটি টিম অভিযান চালিয়ে দক্ষিণ বেদকাশী গ্রামের বিপুল সরকারের মৎস্য ঘের থেকে সুন্দরবন থেকে গরানের কাঠ উদ্ধার করা হয়। ঘটনাস্থল থেকে ৪০০ পিস গরান কাঠ পাওয়া যায়। এ ব্যাপারে অভিযুক্ত বিপুল সরকার বলেন, আমার ঘেরের পাশে নজরুল খাঁর পুকুর থেকে এ গরান কচা জব্দ করে আমাকে ফাঁসানোর চেষ্টা করছে। আমি বন মন্ত্রনালয় থেকে বৈধ লাইসেন্স করে স্থানীয় ঘড়িলাল বাজারে কাঁকড়ার ব্যাবসা করি। এস.ও ফারুকুল ইসলাম আমার নিকট মোটা অংকের টাকা মাসোহারা চাইলে আমি দিতে অস্বীকার করায় নয় মাসে আগে সুন্দরবন থেকে একটি বন্য শুকর লোকালয়ে প্রবেশ করে। শুকরটি আমার মাকে কামড় দিলে এলাকাবাসী একত্রিত হয়ে শুকরটি মেরে ফেলে। ঐ মামলায় আমাকে আসামী করা হয়। সেখান থেকে কোবাদক স্টেশন কর্মকর্তা আমাকে বিভিন্ন ভাবে হয়রানি করে যাচ্ছে। তাছাড়া ২৮/০৮/২০২২ তারিখে আরো একটি মিথ্যা মামলায় আমাকে আসামী করে হয়রানি করাসহ মিথ্যা মামলায় ফাঁসানোর হুমকি দিলে আমি ডিএফও বরাবর আবেদন করলে তার হুমকি আরো বেড়ে যায়। সে ক্ষিপ্ত হয়ে আরো মামলায় ফাঁসানোর হুমকি দেয়। তার ২দিন পর আমার ঘেরের পাশে নজরুল খাঁর পুকুর থেকে গরানের কচা জব্দ করে আমিকে ফাঁসানোর চেষ্টা করছে। সাতক্ষীরা রেঞ্জের সহকারি বন সংরক্ষক(এসএিফ) এমকেএম ইকবাল হুসাইন চৌধুরী বলেন, এ ব্যাপারে বন আইনে মামলার প্রস্তুতি চলছে। ##

Tag :
লেখক তথ্য সম্পর্কে

Dainik adhumati

জনপ্রিয়

গলাচিপায় অবৈধ দোকান উচ্ছেদের মাধ্যমে রাস্তা উন্মুক্ত করায় প্রসংশিত মেয়র

খুলনার কয়রার দক্ষিণ বেদকাশী থেকে গরান কাঠ আটক

প্রকাশিত সময় : ০৮:২৪:২২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৪ এপ্রিল ২০২৩

###    খুলনার কয়রা উপজেলার দক্ষিণ বেদকাশী গ্রাম থেকে সুন্দরনের কর্তন নিষিদ্ধ ৪০০ পিস গরানের কাঠ আটক করেছে বন বিভাগ। সোমবার  বেদকাশী গ্রামের ওম্মদ খাঁর পুত্র নজরুল খাঁর পুকুর থেকে এই কাঠ উদ্ধার করা হয়। পরে কাঠগুলি বন বিভাগের কোবাদক ষ্টেশনে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। সুন্দরবনের কোবাদক ফরেস্ট স্টেশন কর্মকর্তা মোঃ ফারুকুল ইসলাম জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খবর পেয় বনবিভাগের একটি টিম অভিযান চালিয়ে দক্ষিণ বেদকাশী গ্রামের বিপুল সরকারের মৎস্য ঘের থেকে সুন্দরবন থেকে গরানের কাঠ উদ্ধার করা হয়। ঘটনাস্থল থেকে ৪০০ পিস গরান কাঠ পাওয়া যায়। এ ব্যাপারে অভিযুক্ত বিপুল সরকার বলেন, আমার ঘেরের পাশে নজরুল খাঁর পুকুর থেকে এ গরান কচা জব্দ করে আমাকে ফাঁসানোর চেষ্টা করছে। আমি বন মন্ত্রনালয় থেকে বৈধ লাইসেন্স করে স্থানীয় ঘড়িলাল বাজারে কাঁকড়ার ব্যাবসা করি। এস.ও ফারুকুল ইসলাম আমার নিকট মোটা অংকের টাকা মাসোহারা চাইলে আমি দিতে অস্বীকার করায় নয় মাসে আগে সুন্দরবন থেকে একটি বন্য শুকর লোকালয়ে প্রবেশ করে। শুকরটি আমার মাকে কামড় দিলে এলাকাবাসী একত্রিত হয়ে শুকরটি মেরে ফেলে। ঐ মামলায় আমাকে আসামী করা হয়। সেখান থেকে কোবাদক স্টেশন কর্মকর্তা আমাকে বিভিন্ন ভাবে হয়রানি করে যাচ্ছে। তাছাড়া ২৮/০৮/২০২২ তারিখে আরো একটি মিথ্যা মামলায় আমাকে আসামী করে হয়রানি করাসহ মিথ্যা মামলায় ফাঁসানোর হুমকি দিলে আমি ডিএফও বরাবর আবেদন করলে তার হুমকি আরো বেড়ে যায়। সে ক্ষিপ্ত হয়ে আরো মামলায় ফাঁসানোর হুমকি দেয়। তার ২দিন পর আমার ঘেরের পাশে নজরুল খাঁর পুকুর থেকে গরানের কচা জব্দ করে আমিকে ফাঁসানোর চেষ্টা করছে। সাতক্ষীরা রেঞ্জের সহকারি বন সংরক্ষক(এসএিফ) এমকেএম ইকবাল হুসাইন চৌধুরী বলেন, এ ব্যাপারে বন আইনে মামলার প্রস্তুতি চলছে। ##