০৬:০৩ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
জড়িতদের গ্রেফতারের দাবীতে বিক্ষোভ-সমাবেশ :

খুলনার সব হাসপাতাল-ক্লিনিকে চিকিৎসকদের ২৪ঘন্টার কর্মবিরতি পালন, চরম ভোগান্তিতে রোগীরা

rbt

###    খুলনা শহীদ শেখ আবু নাসের বিশেষায়িত হাসপাতালের প্লাস্টিক সার্জারী বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ডা. শেখ নিশাত আব্দুল্লাহর উপর হামলা ও হত্যা চেষ্টা ঘটনায় জড়িত এএসআই নাঈম ও তার সহযোগীদের গ্রেফতারের দাবীতে ২৪ঘন্টার কর্মবিরতি পালন করেছে খুলনার চিকিৎসকরা। বুধবার সকাল থেকে খুলনা বিএমএ’র আহবানে জেলার সকল সরকারী-বেসরকারী হাসপাতাল ও ক্লিনিকে এ কর্মবিরতি পালন করা হয়। চিকিৎসকদের কর্মবিরতির ফলে খুলনা মহানগরীসহ জেলার সকল হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে এসে চরম বোগান্তীতে পড়েছে রোগীরা। অনেককেই চিকিৎসা সেবা না নিয়ে ফিরে যেতে হযেছে।

এদিকে, বাংলাদেশ মেডিক্যাল এসোসিয়েশনের আহবানে দিনব্যাপী কর্মবিরতি পালনকালে বিক্সোভ সমাবেশ করেছে চিকিৎসকরা্। এদিন সকাল ১১টার দিকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল চত্বরে চিকিৎসকদের এ বিক্ষোভ-সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে বাংলাদেশ মেডিক্যাল এসোসিয়েশনের খুলনার সভাপতি ডা. শেখ বাহারুল আলম, সাধারণ সম্পাদক ডা. মেহেদী নেওয়াজ ও যুগ্মসম্পাদক ডা. নেওয়াজ মোস্তাফি চৌধুরী, প্রচার ও জন-সংযোগ সম্পাদক ডা: সাইফুল্লাহ মানছুরসহ চিকিৎসক নেতৃবৃন্দ বক্তৃতা করেন। এ সময় নেতৃবৃন্দ চিকিৎসক লাঞ্চিতের ঘটনার সাথে জড়িতদেরকে দ্রুত গ্রেফতার ও ডাক্তারদের কর্মক্ষেত্রে নিরাপত্তার দাবী জানান। অন্যথায় চিকিৎসক সমাজ আরো কঠোর আন্দোলনের কর্মসূচী ঘোষনা করতে বাধ্য হবে বলে হুশিয়ারী দেয়া হয়।

উল্লেখ্য, গত ২৫ফেব্রুয়ারি খুলনা মহানগরীর শেখপাড়াস্থ হক নার্সিং হোমে অপারেশন চলাকালীন সময়ে রোগীর স্বজনরা শহীদ শেখ আবু নাসের বিশেষায়িত হাসপাতালের বার্ন প্লাস্টিক সার্জারী বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ও বিভাগীয় প্রধান ডা. শেখ নিশাত আদুল্লাহকে শারিরিকভাবে লাঞ্ছিত ও তাকে হত্যা করার চেষ্টাও করে। পূর্বে অপারেশন করা রোগীর জটিলতার অজুহাতে সাতক্ষীরা জেলার পুলিশে কর্মরত এএসআই নাঈম ও তার সঙ্গীরা ডা. নিশাতকে জোর জবরদস্তি করে অপারেশন মাঝ পথে বন্ধ করে দেয়। তার উপর পৈশাচিকভাবে আক্রমন করে। এ ঘটনায় মঙ্গলবার(২৮ ফেব্রুয়ারি)সকালে সোনাডাঙ্গা মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। ##

Tag :
লেখক তথ্য সম্পর্কে

Dainik adhumati

জনপ্রিয়

গলাচিপায় অবৈধ দোকান উচ্ছেদের মাধ্যমে রাস্তা উন্মুক্ত করায় প্রসংশিত মেয়র

জড়িতদের গ্রেফতারের দাবীতে বিক্ষোভ-সমাবেশ :

খুলনার সব হাসপাতাল-ক্লিনিকে চিকিৎসকদের ২৪ঘন্টার কর্মবিরতি পালন, চরম ভোগান্তিতে রোগীরা

প্রকাশিত সময় : ০৯:৩১:৫২ অপরাহ্ন, বুধবার, ১ মার্চ ২০২৩

###    খুলনা শহীদ শেখ আবু নাসের বিশেষায়িত হাসপাতালের প্লাস্টিক সার্জারী বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ডা. শেখ নিশাত আব্দুল্লাহর উপর হামলা ও হত্যা চেষ্টা ঘটনায় জড়িত এএসআই নাঈম ও তার সহযোগীদের গ্রেফতারের দাবীতে ২৪ঘন্টার কর্মবিরতি পালন করেছে খুলনার চিকিৎসকরা। বুধবার সকাল থেকে খুলনা বিএমএ’র আহবানে জেলার সকল সরকারী-বেসরকারী হাসপাতাল ও ক্লিনিকে এ কর্মবিরতি পালন করা হয়। চিকিৎসকদের কর্মবিরতির ফলে খুলনা মহানগরীসহ জেলার সকল হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে এসে চরম বোগান্তীতে পড়েছে রোগীরা। অনেককেই চিকিৎসা সেবা না নিয়ে ফিরে যেতে হযেছে।

এদিকে, বাংলাদেশ মেডিক্যাল এসোসিয়েশনের আহবানে দিনব্যাপী কর্মবিরতি পালনকালে বিক্সোভ সমাবেশ করেছে চিকিৎসকরা্। এদিন সকাল ১১টার দিকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল চত্বরে চিকিৎসকদের এ বিক্ষোভ-সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে বাংলাদেশ মেডিক্যাল এসোসিয়েশনের খুলনার সভাপতি ডা. শেখ বাহারুল আলম, সাধারণ সম্পাদক ডা. মেহেদী নেওয়াজ ও যুগ্মসম্পাদক ডা. নেওয়াজ মোস্তাফি চৌধুরী, প্রচার ও জন-সংযোগ সম্পাদক ডা: সাইফুল্লাহ মানছুরসহ চিকিৎসক নেতৃবৃন্দ বক্তৃতা করেন। এ সময় নেতৃবৃন্দ চিকিৎসক লাঞ্চিতের ঘটনার সাথে জড়িতদেরকে দ্রুত গ্রেফতার ও ডাক্তারদের কর্মক্ষেত্রে নিরাপত্তার দাবী জানান। অন্যথায় চিকিৎসক সমাজ আরো কঠোর আন্দোলনের কর্মসূচী ঘোষনা করতে বাধ্য হবে বলে হুশিয়ারী দেয়া হয়।

উল্লেখ্য, গত ২৫ফেব্রুয়ারি খুলনা মহানগরীর শেখপাড়াস্থ হক নার্সিং হোমে অপারেশন চলাকালীন সময়ে রোগীর স্বজনরা শহীদ শেখ আবু নাসের বিশেষায়িত হাসপাতালের বার্ন প্লাস্টিক সার্জারী বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ও বিভাগীয় প্রধান ডা. শেখ নিশাত আদুল্লাহকে শারিরিকভাবে লাঞ্ছিত ও তাকে হত্যা করার চেষ্টাও করে। পূর্বে অপারেশন করা রোগীর জটিলতার অজুহাতে সাতক্ষীরা জেলার পুলিশে কর্মরত এএসআই নাঈম ও তার সঙ্গীরা ডা. নিশাতকে জোর জবরদস্তি করে অপারেশন মাঝ পথে বন্ধ করে দেয়। তার উপর পৈশাচিকভাবে আক্রমন করে। এ ঘটনায় মঙ্গলবার(২৮ ফেব্রুয়ারি)সকালে সোনাডাঙ্গা মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। ##