০৫:৪০ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

খুলনায় দলিত জনগোষ্ঠীর অধিকার প্রতিষ্ঠায় ও পরিসেবাসমূহে অন্তর্ভূক্তি শীর্ষক আলোচনা সভা

  • অফিস ডেক্স।।
  • প্রকাশিত সময় : ০৪:৪৭:৫৬ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২২
  • ৪১ পড়েছেন

###   খুলনায় দলিত জনগোষ্ঠীর অধিকার প্রতিষ্ঠায় ও বিবিধ পরিসেবাসমূহে দলিতদের অন্তর্ভূক্তি শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত  হয়েছে। মঙ্গলবার নগরীর ২১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর অফিসের কমিউনিটি সেন্টারে প্রমোটিং অ্যাডভোকেসি  অ্যান্ড  রাইটস প্রোগ্রামের অধীনে স্ট্রেংথেনিং অ্যাডভোকেসি ইনিশিয়েটিভস অফ দলিত কমিউনিটি শীর্ষক প্রকল্পের উদ্যোগে এ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত  হয়। ০৫ নং ঘাট হরিজন কলোনীর সভাপতি মতিলাল রাউথের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন ২১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শামসুজ্জামান মিয়া স্বপন। সভায় যুব ফোরামের যুগ্ম আহবায়ক লিলি রানী দাস এলাকার সুনির্দিষ্ট সমস্যাবলী উপস্থাপন করেন। এলাকার শিক্ষা, নিরাপত্তা, সুপেয় পানির সংকট, স্যানিটেশন ব্যবস্থাপনা, মাদক নিরসন, ল্যাম্প পোস্টসহ বিভিন্ন সমস্যাবলী নিরসনের জন্য প্রধান অতিথি জনাব শামসুজ্জামান মিয়া স্বপন এর সহযোগিতায় একটি এ্যাকশান প্লান তৈরী করা হয়। এছাড়া তিনি অতিসত্তর নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে এই সকল সমস্যার সমাধান করবেন বলে প্রতিশ্রæতি প্রদান করেন। দলিত জনগোষ্ঠীর অধিকার প্রতিষ্ঠায় ও বিবিধ পরিসেবাসমূহে দলিতদের অন্তর্ভূক্তিশীর্ষক আলোচনা সভার মূল লক্ষ্য হল-দলিত জনগোষ্ঠির অধিকার প্রতিষ্ঠায় আলোচনা সভার মাধ্যমে বিভিন্ন প্লাটফর্মের সাথে সুসম্পর্ক সৃষ্টি করা, এবং তাদের দৃঢ় কন্ঠস্বর উপস্থাপন ও দলিত সম্প্রদায়ের প্রাপ্ত পরিসেবা সমূহের মান উন্নতকরন। আলোচনা সভাগুলো দলিত ইয়ুথ ফোরামের নেতৃত্বে পরিচালিত হবে যার মাধ্যমে তাদের কমিউনিটিতে গ্রহণযোগ্যতা বৃদ্ধি পাবে এবং নেতৃত্বের গুনাবলী বিকশিত হবে। আলোচনা সভার মূল উদ্দেশ্য হল-চিহ্নিত স্টেকহোল্ডারদের সাথে দলিত প্রতিনিধিদের সম্পর্ক স্থাপন করা। দলিত সম্প্রদায়ের সামগ্রিক অধিকার অদায়ের জন্য সমস্যা চিহ্নিতকরণ ও উপস্থাপন করা। দলিত জনগোষ্ঠিকে সরকারি পরিসেবাগুলিতে অন্তর্ভূক্তিকরণ ও প্রাপ্ত পরিসেবা সমূহের মান উন্নতকরন। সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন সচিব এস. এম. আল মামুন, কেসিসি সদস্য  এইচ এম হেলাল উদ্দিন, সহসভাপতি সিডিসি ক্লাস্টর ২১ নং ওয়াড মোঃ রিপন হাওলাদার,  জ্যোসনা রানী, মিতা রাউথ, তপন বাশফোড়, লিলি রানী দাস, পাপ্পু হাওলাদার, জ্যোতী রানী, দলিত হেড অফ প্রোগ্রাম বিকাশ কুমার দাস,  প্রকল্প কর্মকর্তা ল²ী দাস, কমিউনিটি ফ্যাসিলিটেটর অরুন দাস,  ভলেন্টিয়ার তারেক সরকার প্রমুখ। সভায় ১১ জন পুরুষ এবং  ৪ জন নারী অংশগ্রহণ করেন। দলিত (সেইড) প্রকল্পটি কাউন্টারপার্ট ইন্টারন্যাশনালের সহায়তায় এবং ইউএসএইড’র অর্থায়নে প্রকল্পটি ০১লা এপ্রিল ২০২২ থেকে ডিসেম্বর ২০২২ পর্যন্ত চলবে। ##

Tag :
লেখক তথ্য সম্পর্কে

Dainik Madhumati

জনপ্রিয়

দেবহাটায় জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন এ্যাডভোকেসি সভা অনুষ্ঠিত 

খুলনায় দলিত জনগোষ্ঠীর অধিকার প্রতিষ্ঠায় ও পরিসেবাসমূহে অন্তর্ভূক্তি শীর্ষক আলোচনা সভা

প্রকাশিত সময় : ০৪:৪৭:৫৬ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২২

###   খুলনায় দলিত জনগোষ্ঠীর অধিকার প্রতিষ্ঠায় ও বিবিধ পরিসেবাসমূহে দলিতদের অন্তর্ভূক্তি শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত  হয়েছে। মঙ্গলবার নগরীর ২১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর অফিসের কমিউনিটি সেন্টারে প্রমোটিং অ্যাডভোকেসি  অ্যান্ড  রাইটস প্রোগ্রামের অধীনে স্ট্রেংথেনিং অ্যাডভোকেসি ইনিশিয়েটিভস অফ দলিত কমিউনিটি শীর্ষক প্রকল্পের উদ্যোগে এ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত  হয়। ০৫ নং ঘাট হরিজন কলোনীর সভাপতি মতিলাল রাউথের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন ২১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শামসুজ্জামান মিয়া স্বপন। সভায় যুব ফোরামের যুগ্ম আহবায়ক লিলি রানী দাস এলাকার সুনির্দিষ্ট সমস্যাবলী উপস্থাপন করেন। এলাকার শিক্ষা, নিরাপত্তা, সুপেয় পানির সংকট, স্যানিটেশন ব্যবস্থাপনা, মাদক নিরসন, ল্যাম্প পোস্টসহ বিভিন্ন সমস্যাবলী নিরসনের জন্য প্রধান অতিথি জনাব শামসুজ্জামান মিয়া স্বপন এর সহযোগিতায় একটি এ্যাকশান প্লান তৈরী করা হয়। এছাড়া তিনি অতিসত্তর নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে এই সকল সমস্যার সমাধান করবেন বলে প্রতিশ্রæতি প্রদান করেন। দলিত জনগোষ্ঠীর অধিকার প্রতিষ্ঠায় ও বিবিধ পরিসেবাসমূহে দলিতদের অন্তর্ভূক্তিশীর্ষক আলোচনা সভার মূল লক্ষ্য হল-দলিত জনগোষ্ঠির অধিকার প্রতিষ্ঠায় আলোচনা সভার মাধ্যমে বিভিন্ন প্লাটফর্মের সাথে সুসম্পর্ক সৃষ্টি করা, এবং তাদের দৃঢ় কন্ঠস্বর উপস্থাপন ও দলিত সম্প্রদায়ের প্রাপ্ত পরিসেবা সমূহের মান উন্নতকরন। আলোচনা সভাগুলো দলিত ইয়ুথ ফোরামের নেতৃত্বে পরিচালিত হবে যার মাধ্যমে তাদের কমিউনিটিতে গ্রহণযোগ্যতা বৃদ্ধি পাবে এবং নেতৃত্বের গুনাবলী বিকশিত হবে। আলোচনা সভার মূল উদ্দেশ্য হল-চিহ্নিত স্টেকহোল্ডারদের সাথে দলিত প্রতিনিধিদের সম্পর্ক স্থাপন করা। দলিত সম্প্রদায়ের সামগ্রিক অধিকার অদায়ের জন্য সমস্যা চিহ্নিতকরণ ও উপস্থাপন করা। দলিত জনগোষ্ঠিকে সরকারি পরিসেবাগুলিতে অন্তর্ভূক্তিকরণ ও প্রাপ্ত পরিসেবা সমূহের মান উন্নতকরন। সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন সচিব এস. এম. আল মামুন, কেসিসি সদস্য  এইচ এম হেলাল উদ্দিন, সহসভাপতি সিডিসি ক্লাস্টর ২১ নং ওয়াড মোঃ রিপন হাওলাদার,  জ্যোসনা রানী, মিতা রাউথ, তপন বাশফোড়, লিলি রানী দাস, পাপ্পু হাওলাদার, জ্যোতী রানী, দলিত হেড অফ প্রোগ্রাম বিকাশ কুমার দাস,  প্রকল্প কর্মকর্তা ল²ী দাস, কমিউনিটি ফ্যাসিলিটেটর অরুন দাস,  ভলেন্টিয়ার তারেক সরকার প্রমুখ। সভায় ১১ জন পুরুষ এবং  ৪ জন নারী অংশগ্রহণ করেন। দলিত (সেইড) প্রকল্পটি কাউন্টারপার্ট ইন্টারন্যাশনালের সহায়তায় এবং ইউএসএইড’র অর্থায়নে প্রকল্পটি ০১লা এপ্রিল ২০২২ থেকে ডিসেম্বর ২০২২ পর্যন্ত চলবে। ##