০৬:০৪ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

খুলনা বিএমএ’র নির্বাচনে দু’প্যানেল সমানে সমান : সভাপতি বাহারুল-সাধারন সম্পাদক মেহেদী

##   বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশন (বিএমএ) খুলনা শাখার দ্বি-বার্ষিক নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী দুই প্যানেলই সমান সংখ্যক পদে বিজয়ী হয়েছে।  বৃহষ্পতিবার অনুষ্ঠিত নির্বাচনে ২৪টি পদের মধ্যে ডা: বাহারুল আলম-ডা: জিল্লুর রহমান তরুন পরিষদ সভাপতিসহ ১২টি পদে জয়লাভ করেছে। অন্যদিকে, ডা: হামিদ আসগর-ডা:মেহেদী নেওয়াজ পরিষদও সাধারন সম্পাদকসহ ১২টি পদে জয়লাভ করেছে। বিএমএ মিলনায়তনে দিনব্যাপী চরম উত্তেজনা ও উৎসব মুখর পরিবেশে এ নির্বাচনের ভোটগ্রহন অনুষ্ঠিত হয়। সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোট গ্রহন শেষে নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক ডা: খসরুল আলম মল্লিক এবং সদস্য ডা: চন্দন কুমার সাহা, ডা: এস এম খালেদুজ্জামান, ডা: জিএম সাফাত আলদ্বীন ভোট গণনা শেষে ফলাফল ঘোষণা করেন।

নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সূত্রে জানা গেছে, খুলনা বিএমএ মিলনায়তনে বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশন (বিএমএ) খুলনার সবশেষ দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন ২০১৫সালে অনুষ্টিত হয়। ওই র্বাচনে ডা: বাহারুল আলম ও ডা: মেহেদী নেওয়াজ প্যানেল বিজয়ী হয়। কিন্তু কমিটির মেয়াদ শেষ হলেও তারা নির্বাচন দিতে ব্যর্থ হয়।পরে চলতি বছর অনেক চড়াই-উৎরাই পেরিয়ে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। কিন্তু শুরুতেই ক্ষমতা ও নেতৃত্ব নির্বাচন নিয়ে একই আদর্শের বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ সমর্থক চিকিৎসকদের সংগঠন স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ (স্বাচিপ) নেতাদের মধ্যে বিরোধ সৃষ্টি হয়। পরে স্বাচিপ নেতারা দ্বিধা বিভক্ত হয়ে পৃথক প্যানেল ঘোষনা করে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে। নির্বাচনে ২৪টি পদের জন্য ডা: বাহারুল আলম ও ডা: জিল্লুর রহমান তরুনের নেতৃত্বে একটি এবং  ডা: হামিদ আসগর ও ডা:মেহেদী নেওয়াজের নেতৃত্বে দুটি প্যানেলে ৪৮জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। এই দুটি প্যানেলের বাইরে স্বতন্ত্র প্রার্থী সহ-সভাপতি ডা: মামুনুর রশীদ প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। নির্বাচনে ২৪টি পদের মধ্যে ডা: বাহারুল-ডা: তরুন পরিষদের মনোনীত প্রার্থীরা ১২টি পদে জয়লাভ করেন। অপরদিকে ডা: আসগর-ডা:মেহেদী পরিষদের মনোনীত প্রার্থীদের মধ্যে ১২টি পদে জয়লাভ করেন। নির্বাচন পরিচালনা কমিটি ঘোষিত ফলাফলে ডা: বাহার-ডা: তরুণ পরিষদের মনোনীত বিজয়ীর হলো-সভাপতি পদে ডা: শেখ বাহারুল আলম ৯২২ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ডা: হামিদ আজগর পেয়েছেন ৭৩৬ ভোট, সহ-সভাপতি ডা: এটিএম মঞ্জুর মোর্শেদ ৮৫৯ভোট পেয়ে, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা: নিয়াজ মুস্তাফিজ চৌধুরী ৯৪৯ভোট পেয়ে, সাংগঠনিক সম্পাদক ডা: সুমন রায় ৮১০ভোট পেয়ে, বিজ্ঞান বিষয়ক সম্পাদক ডা: দেবনাথ তালুকদার ৮৩৩ভোট পেয়ে, প্রচার ও জনসংযোগ সম্পাদক ডা: সাইফুল্লাহ মানসুর ৮৭২ ভোট পেয়ে, সংস্কৃতি ও আপ্যায়ন বিষয়ক সম্পাদক ডা: সোহানা সেলিম ৮৬২ ভোট পেয়ে, কার্যকরী সদস্য ডা: উপানন্দ রায় ৮৮৭ ভোট পেয়ে, ডা: মেহেদী হাসান ৮৭২ ভোট, ডা: আওরঙ্গজেব প্রিন্স ৮৭১ভোট, ডা: নিরুপম মন্ডল ৮৬১ ভোট ও ডা: মিথুন কুমার পাল ৭৭৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়। অপরদিকে, ডা: হামিদ আসগর ও ডা: মেহেদী নেওয়াজ পরিষদের মনোনীত বিজয়ীর হলো- সহসভাপতি ডা: মোল্লা হারুন অর রশীদ ৮০১ভোট পেয়ে ও ডা: সামসুল আহসান মাসুম ৭৫২ ভোট পেয়ে, সাধারণ সম্পাদক ডা: মো: মেহেদী নেওয়াজ ৯৭২ভোট পেয়ে, কোষাধ্যক্ষ ডা: কুতুব উদ্দিন মল্লিক ৯১২ভোট পেয়ে, দপ্তর সম্পাদক ডা: এস এম তুষার আলম ৮৫৩ভোট পেয়ে, সমাজকল্যাণ সম্পাদক ডা: মুহিবুল হাসান খান ৯২৪ভোট পেয়ে, প্রকাশনা ও গ্রন্থাগার সম্পাদক ডা: পলাশ কুমার দে ৯৭১ভোট পেয়ে, কার্যকরী সদস্য ডা: পরিতোষ কুমার চৌধুরী ৮০৬ভোট, ডা: প্রিতিশ তরফদার ১১০৩ভোট, ডা: ডলি হালদার ৯৪২ভোট, ডা: পার্থ প্রতীম দেবনাথ ৯১৮ভোট ও ডা: মেহেদী হাসান সৈকত ৭৯০ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়। নির্বাচনে মোট ২হাজার ১৫০ জন ভোটারের মধ্যে ১হাজার ৬৮০ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। ##

Tag :
লেখক তথ্য সম্পর্কে

Dainik Madhumati

জনপ্রিয়

রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক একীভূতকরণের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন, ষড়যন্ত্রমূলক অপতৎপরতা রুখে দাড়ানোর আহবান

খুলনা বিএমএ’র নির্বাচনে দু’প্যানেল সমানে সমান : সভাপতি বাহারুল-সাধারন সম্পাদক মেহেদী

প্রকাশিত সময় : ০১:৩০:১৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২২

##   বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশন (বিএমএ) খুলনা শাখার দ্বি-বার্ষিক নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী দুই প্যানেলই সমান সংখ্যক পদে বিজয়ী হয়েছে।  বৃহষ্পতিবার অনুষ্ঠিত নির্বাচনে ২৪টি পদের মধ্যে ডা: বাহারুল আলম-ডা: জিল্লুর রহমান তরুন পরিষদ সভাপতিসহ ১২টি পদে জয়লাভ করেছে। অন্যদিকে, ডা: হামিদ আসগর-ডা:মেহেদী নেওয়াজ পরিষদও সাধারন সম্পাদকসহ ১২টি পদে জয়লাভ করেছে। বিএমএ মিলনায়তনে দিনব্যাপী চরম উত্তেজনা ও উৎসব মুখর পরিবেশে এ নির্বাচনের ভোটগ্রহন অনুষ্ঠিত হয়। সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোট গ্রহন শেষে নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক ডা: খসরুল আলম মল্লিক এবং সদস্য ডা: চন্দন কুমার সাহা, ডা: এস এম খালেদুজ্জামান, ডা: জিএম সাফাত আলদ্বীন ভোট গণনা শেষে ফলাফল ঘোষণা করেন।

নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সূত্রে জানা গেছে, খুলনা বিএমএ মিলনায়তনে বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশন (বিএমএ) খুলনার সবশেষ দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন ২০১৫সালে অনুষ্টিত হয়। ওই র্বাচনে ডা: বাহারুল আলম ও ডা: মেহেদী নেওয়াজ প্যানেল বিজয়ী হয়। কিন্তু কমিটির মেয়াদ শেষ হলেও তারা নির্বাচন দিতে ব্যর্থ হয়।পরে চলতি বছর অনেক চড়াই-উৎরাই পেরিয়ে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। কিন্তু শুরুতেই ক্ষমতা ও নেতৃত্ব নির্বাচন নিয়ে একই আদর্শের বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ সমর্থক চিকিৎসকদের সংগঠন স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ (স্বাচিপ) নেতাদের মধ্যে বিরোধ সৃষ্টি হয়। পরে স্বাচিপ নেতারা দ্বিধা বিভক্ত হয়ে পৃথক প্যানেল ঘোষনা করে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে। নির্বাচনে ২৪টি পদের জন্য ডা: বাহারুল আলম ও ডা: জিল্লুর রহমান তরুনের নেতৃত্বে একটি এবং  ডা: হামিদ আসগর ও ডা:মেহেদী নেওয়াজের নেতৃত্বে দুটি প্যানেলে ৪৮জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। এই দুটি প্যানেলের বাইরে স্বতন্ত্র প্রার্থী সহ-সভাপতি ডা: মামুনুর রশীদ প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। নির্বাচনে ২৪টি পদের মধ্যে ডা: বাহারুল-ডা: তরুন পরিষদের মনোনীত প্রার্থীরা ১২টি পদে জয়লাভ করেন। অপরদিকে ডা: আসগর-ডা:মেহেদী পরিষদের মনোনীত প্রার্থীদের মধ্যে ১২টি পদে জয়লাভ করেন। নির্বাচন পরিচালনা কমিটি ঘোষিত ফলাফলে ডা: বাহার-ডা: তরুণ পরিষদের মনোনীত বিজয়ীর হলো-সভাপতি পদে ডা: শেখ বাহারুল আলম ৯২২ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ডা: হামিদ আজগর পেয়েছেন ৭৩৬ ভোট, সহ-সভাপতি ডা: এটিএম মঞ্জুর মোর্শেদ ৮৫৯ভোট পেয়ে, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা: নিয়াজ মুস্তাফিজ চৌধুরী ৯৪৯ভোট পেয়ে, সাংগঠনিক সম্পাদক ডা: সুমন রায় ৮১০ভোট পেয়ে, বিজ্ঞান বিষয়ক সম্পাদক ডা: দেবনাথ তালুকদার ৮৩৩ভোট পেয়ে, প্রচার ও জনসংযোগ সম্পাদক ডা: সাইফুল্লাহ মানসুর ৮৭২ ভোট পেয়ে, সংস্কৃতি ও আপ্যায়ন বিষয়ক সম্পাদক ডা: সোহানা সেলিম ৮৬২ ভোট পেয়ে, কার্যকরী সদস্য ডা: উপানন্দ রায় ৮৮৭ ভোট পেয়ে, ডা: মেহেদী হাসান ৮৭২ ভোট, ডা: আওরঙ্গজেব প্রিন্স ৮৭১ভোট, ডা: নিরুপম মন্ডল ৮৬১ ভোট ও ডা: মিথুন কুমার পাল ৭৭৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়। অপরদিকে, ডা: হামিদ আসগর ও ডা: মেহেদী নেওয়াজ পরিষদের মনোনীত বিজয়ীর হলো- সহসভাপতি ডা: মোল্লা হারুন অর রশীদ ৮০১ভোট পেয়ে ও ডা: সামসুল আহসান মাসুম ৭৫২ ভোট পেয়ে, সাধারণ সম্পাদক ডা: মো: মেহেদী নেওয়াজ ৯৭২ভোট পেয়ে, কোষাধ্যক্ষ ডা: কুতুব উদ্দিন মল্লিক ৯১২ভোট পেয়ে, দপ্তর সম্পাদক ডা: এস এম তুষার আলম ৮৫৩ভোট পেয়ে, সমাজকল্যাণ সম্পাদক ডা: মুহিবুল হাসান খান ৯২৪ভোট পেয়ে, প্রকাশনা ও গ্রন্থাগার সম্পাদক ডা: পলাশ কুমার দে ৯৭১ভোট পেয়ে, কার্যকরী সদস্য ডা: পরিতোষ কুমার চৌধুরী ৮০৬ভোট, ডা: প্রিতিশ তরফদার ১১০৩ভোট, ডা: ডলি হালদার ৯৪২ভোট, ডা: পার্থ প্রতীম দেবনাথ ৯১৮ভোট ও ডা: মেহেদী হাসান সৈকত ৭৯০ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়। নির্বাচনে মোট ২হাজার ১৫০ জন ভোটারের মধ্যে ১হাজার ৬৮০ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। ##