০৭:২০ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল’ প্রশিক্ষণ উদ্বোধন

###    খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনস্টিটিউশনাল কোয়ালিটি অ্যাসুরেন্স সেল (আইকিউএসি) এর উদ্যোগে আজ ২৮ নভেম্বর (সোমবার) ‘জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল (এনআইএস)’ শীর্ষক দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়। সকাল ৯.১৫ মিনিটে কবি জীবনানন্দ দাশ একাডেমিক ভবনের ইংরেজি ডিসিপ্লিনের স্মার্ট ক্লাসরুমে এ প্রশিক্ষণের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপাচার্য প্রফেসর ড. মাহমুদ হোসেন। তিনি বলেন, প্রশিক্ষণ জ্ঞান ও কর্মদক্ষতা বিকশিত করে। সময়ের সাথে পরিবর্তনশীল অনেক কিছুই জানা এবং কর্মক্ষেত্রে প্রয়োগের জন্য মাঝে মাঝে প্রশিক্ষণ দরকার। কর্মক্ষেত্রে নিজেদের উপর অর্পিত দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করলে তা দেশপ্রেমের পরিচায়ক। পেশাগত দায়িত্ব পালনের ক্ষেত্রে প্রত্যেকের কমিটমেন্ট থাকা দরকার। যিনি যে কাজটি ভালো জানেন, তার অধীনস্থদের সে বিষয়টি শেখানো উচিত। তাহলে ধারাবাহিকতা বজায় থাকে।
তিনি আরও বলেন, জাতি গঠনে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শুদ্ধাচার চর্চা জরুরি। কারণ, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হলো মনন তৈরি ও জ্ঞানলাভের সূতিকাগার। এখান থেকে যে শিক্ষা ও চর্চার শুরু হয় তা জীবনে প্রভাব ফেলে। সেজন্য দক্ষ, নীতি-নৈতিকতা, সততা, মূলবোধ, স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে এই চর্চা খুবই জরুরি। তিনি কাজের ক্ষেত্রে আত্মমূল্যায়নের ওপরও জোর দেন, যাতে কার কোথায় ঘাটতি আছে তা জানা সম্ভব হয় এবং সেগুলো জেনে কর্মক্ষেত্রে তা প্রয়োগ করা যায়।
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ার যে প্রত্যয় তা এই জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল রপ্ত করতে পারলেই বাস্তবায়ন করা সম্ভব হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে শুদ্ধাচার বাস্তবায়নে বিভিন্ন উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, এ বিষয়ে বেশকিছু বিষয় অনুসৃত হচ্ছে এবং সর্বোচ্চ গুরুত্বারোপ করা হয়েছে।আইকিউএসির পরিচালক প্রফেসর ড. মোহাম্মদ জিয়াউল হায়দার এর সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন আইকিউএসির অতিরিক্ত পরিচালক প্রফেসর ড. মো. মতিউল ইসলাম। বক্তব্য রাখেন আইকিউএসির অতিরিক্ত পরিচালক মো. মোস্তাফিজুর রহমান।   দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত এ প্রশিক্ষণ কর্মসূচিতে রিসোর্স পার্সন হিসেবে বিষয়ভিত্তিক সেশন পরিচালনা করেন বাংলাদেশ লোকপ্রশাসন প্রশিক্ষণ কেন্দ্র, সাভার, ঢাকার মেম্বার ডিরেক্টিং স্টাফ আবু মমতাজ সাদ উদ্দিন, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের এগ্রোটেকনোলজি ডিসিপ্লিনের প্রফেসর ড. মো. ইয়ামিন কবির, খুলনা ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আব্দুল্লাহ পিইঞ্জ। উদ্বোধনপর্ব সঞ্চালনা করেন আইকিউএসির উপ-রেজিস্ট্রার মোঃ নুরুল ইসলাম সিদ্দিকী। এ প্রশিক্ষণ কর্মসূচিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভাগীয় ও শাখা প্রধানসহ বিভিন্ন পর্যায়ের ৩১ জন কর্মকর্তা অংশগ্রহণ করেন। ##

Tag :
লেখক তথ্য সম্পর্কে

Dainik Madhumati

জনপ্রিয়

দেবহাটায় জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন এ্যাডভোকেসি সভা অনুষ্ঠিত 

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল’ প্রশিক্ষণ উদ্বোধন

প্রকাশিত সময় : ১১:০৬:৪৯ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২

###    খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনস্টিটিউশনাল কোয়ালিটি অ্যাসুরেন্স সেল (আইকিউএসি) এর উদ্যোগে আজ ২৮ নভেম্বর (সোমবার) ‘জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল (এনআইএস)’ শীর্ষক দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়। সকাল ৯.১৫ মিনিটে কবি জীবনানন্দ দাশ একাডেমিক ভবনের ইংরেজি ডিসিপ্লিনের স্মার্ট ক্লাসরুমে এ প্রশিক্ষণের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপাচার্য প্রফেসর ড. মাহমুদ হোসেন। তিনি বলেন, প্রশিক্ষণ জ্ঞান ও কর্মদক্ষতা বিকশিত করে। সময়ের সাথে পরিবর্তনশীল অনেক কিছুই জানা এবং কর্মক্ষেত্রে প্রয়োগের জন্য মাঝে মাঝে প্রশিক্ষণ দরকার। কর্মক্ষেত্রে নিজেদের উপর অর্পিত দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করলে তা দেশপ্রেমের পরিচায়ক। পেশাগত দায়িত্ব পালনের ক্ষেত্রে প্রত্যেকের কমিটমেন্ট থাকা দরকার। যিনি যে কাজটি ভালো জানেন, তার অধীনস্থদের সে বিষয়টি শেখানো উচিত। তাহলে ধারাবাহিকতা বজায় থাকে।
তিনি আরও বলেন, জাতি গঠনে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শুদ্ধাচার চর্চা জরুরি। কারণ, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হলো মনন তৈরি ও জ্ঞানলাভের সূতিকাগার। এখান থেকে যে শিক্ষা ও চর্চার শুরু হয় তা জীবনে প্রভাব ফেলে। সেজন্য দক্ষ, নীতি-নৈতিকতা, সততা, মূলবোধ, স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে এই চর্চা খুবই জরুরি। তিনি কাজের ক্ষেত্রে আত্মমূল্যায়নের ওপরও জোর দেন, যাতে কার কোথায় ঘাটতি আছে তা জানা সম্ভব হয় এবং সেগুলো জেনে কর্মক্ষেত্রে তা প্রয়োগ করা যায়।
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ার যে প্রত্যয় তা এই জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল রপ্ত করতে পারলেই বাস্তবায়ন করা সম্ভব হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে শুদ্ধাচার বাস্তবায়নে বিভিন্ন উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, এ বিষয়ে বেশকিছু বিষয় অনুসৃত হচ্ছে এবং সর্বোচ্চ গুরুত্বারোপ করা হয়েছে।আইকিউএসির পরিচালক প্রফেসর ড. মোহাম্মদ জিয়াউল হায়দার এর সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন আইকিউএসির অতিরিক্ত পরিচালক প্রফেসর ড. মো. মতিউল ইসলাম। বক্তব্য রাখেন আইকিউএসির অতিরিক্ত পরিচালক মো. মোস্তাফিজুর রহমান।   দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত এ প্রশিক্ষণ কর্মসূচিতে রিসোর্স পার্সন হিসেবে বিষয়ভিত্তিক সেশন পরিচালনা করেন বাংলাদেশ লোকপ্রশাসন প্রশিক্ষণ কেন্দ্র, সাভার, ঢাকার মেম্বার ডিরেক্টিং স্টাফ আবু মমতাজ সাদ উদ্দিন, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের এগ্রোটেকনোলজি ডিসিপ্লিনের প্রফেসর ড. মো. ইয়ামিন কবির, খুলনা ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আব্দুল্লাহ পিইঞ্জ। উদ্বোধনপর্ব সঞ্চালনা করেন আইকিউএসির উপ-রেজিস্ট্রার মোঃ নুরুল ইসলাম সিদ্দিকী। এ প্রশিক্ষণ কর্মসূচিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভাগীয় ও শাখা প্রধানসহ বিভিন্ন পর্যায়ের ৩১ জন কর্মকর্তা অংশগ্রহণ করেন। ##