০৭:৪১ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে সিটিজেন চার্টার এন্ড জিআরএস শীর্ষক প্রশিক্ষণ

###    খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনস্টিটিউশনাল কোয়ালিটি অ্যাসুরেন্স সেল (আইকিউএসি)-এর উদ্যোগে ‘সিটিজেন চার্টার এন্ড গ্রিভেন্স রেড্রেস সিস্টেম’ শীর্ষক দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়। সোমবার সকালে কবি জীবনানন্দ দাশ একাডেমিক ভবনের ইংরেজি ডিসিপ্লিনের স্মার্ট ক্লাসরুমে এ প্রশিক্ষণের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপাচার্য প্রফেসর ড. মাহমুদ হোসেন। এ সময় তিনি বলেন, সেবাদানের ক্ষেত্রে সবচেয়ে বড় প্রয়োজন মানসিকতার পরিবর্তন। যে বিষয়ে জ্ঞান সীমিত প্রশিক্ষণের মাধ্যমে তা প্রসারিত করা যায়। সময়ের সাথে এখন অনেক কিছু পরিবর্তন হচ্ছে। এই পরিবর্তনের ধারায় নিজেদেরকে মানিয়ে নিতে না পারলে টিকে থাকা যাবে না। পৃথিবীতে যতো জীবসত্ত্বা রয়েছে তার মধ্যে যারা পরিবেশের সাথে মানিয়ে নিতে পেরেছে তারা টিকে আছে। মানুষেরই ক্ষমতা এই ব্যাপারে সবচেয়ে বেশি যে পরিবেশের সকল প্রতিকূলতার সাথে খাপ খাইয়ে টিকে আছে। তিনি আরও বলেন, আমরা মানুষ মাত্র ক্ষমতা দেখাতে পছন্দ করি। উপমহাদেশে সামন্তবাদী ধারায় এ প্রবণতা লক্ষ্য করা যায়। কিন্তু আমরা যার সাথে ক্ষমতা দেখাই, যার ফাইলটা আটকে রেখে দিনের পর দিন ভোগান্তি সৃষ্টি করি, তার প্রাপ্যতা থেকে বঞ্চিত করি, তা আমরা বিবেচনা করি না। এখান থেকেই মানুষের মধ্যে অভিযোগ বা ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। এই মানসিকতা পরিহার করতে হবে। উপাচার্য বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় উচ্চশিক্ষার পীঠস্থান হিসেবে এখান থেকে সবাই অনেক কিছু শিখতে চায়। তাই বিশেষ করে এখান থেকে শিক্ষার্থীরা যেনো এমন শিক্ষা নিয়ে বের হয়, যারা সেবাদানে মানুষের পাশে দাঁড়াবে। দেশের কল্যাণে কাজ করবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মকর্তাদের ওপর গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব রয়েছে বলে উল্লেখ করে তিনি বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়কে এগিয়ে নিতে তাদের দক্ষতা ও আন্তরিকতা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। কেউ ভালো কাজ করলে, আন্তরিক হলে, ভালো আচরণ করলে তার জন্য স্বীকৃতি প্রেরণা জোগায়। এমনকি শুধুমাত্র তাকে প্রশংসা করলেও সে উৎসাহিত হয়। তিনি খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়কে বিশ্বমানে পৌঁছাতে বিভিন্ন উদ্যোগের কথা উল্লেখ করে দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য প্রশিক্ষণ অব্যাহত রাখা হবে বলে জানান। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. মোসাম্মাৎ হোসনে আরা। আইকিউএসির পরিচালক প্রফেসর ড. মোহাম্মদ জিয়াউল হায়দারের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন আইকিউএসির অতিরিক্ত পরিচালক প্রফেসর ড. জগদীশ চন্দ্র জোয়ার্দার, আইকিউএসির অতিরিক্ত পরিচালক প্রফেসর ড. মো. মতিউল ইসলাম। দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত এ প্রশিক্ষণ কর্মসূচিতে রিসোর্স পার্সন হিসেবে বিষয়ভিত্তিক সেশন পরিচালনা করেন খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণিত ডিসিপ্লিনের প্রফেসর ড. লস্কর এরশাদ আলী, খুলনা সিটি কর্পোরেশনের সচিব মো. আজমুল হক এবং ইউজিসির যুগ্ম-সচিব(প্রশাসন) জাফর আহম্মদ জাহাঙ্গীর। উদ্বোধনপর্ব সঞ্চালনা করেন আইকিউএসির উপ-রেজিস্ট্রার মোঃ নুরুল ইসলাম সিদ্দিকী। প্রশিক্ষণ কর্মসূচিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-রেজিস্ট্রার, সহকারী রেজিস্ট্রার ও সেকশন অফিসার পর্যায়ের ৩০ জন কর্মকর্তা অংশগ্রহণ করেন। ##

Tag :
লেখক তথ্য সম্পর্কে

Dainik Madhumati

জনপ্রিয়

মোল্লাহাটে বিয়ের জন্য মেয়েকে পছন্দ না করায় ছেলের ভগ্নিপতিকে হত্যা, আহত ১০

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে সিটিজেন চার্টার এন্ড জিআরএস শীর্ষক প্রশিক্ষণ

প্রকাশিত সময় : ০১:১০:৪১ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২২ নভেম্বর ২০২২

###    খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনস্টিটিউশনাল কোয়ালিটি অ্যাসুরেন্স সেল (আইকিউএসি)-এর উদ্যোগে ‘সিটিজেন চার্টার এন্ড গ্রিভেন্স রেড্রেস সিস্টেম’ শীর্ষক দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়। সোমবার সকালে কবি জীবনানন্দ দাশ একাডেমিক ভবনের ইংরেজি ডিসিপ্লিনের স্মার্ট ক্লাসরুমে এ প্রশিক্ষণের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপাচার্য প্রফেসর ড. মাহমুদ হোসেন। এ সময় তিনি বলেন, সেবাদানের ক্ষেত্রে সবচেয়ে বড় প্রয়োজন মানসিকতার পরিবর্তন। যে বিষয়ে জ্ঞান সীমিত প্রশিক্ষণের মাধ্যমে তা প্রসারিত করা যায়। সময়ের সাথে এখন অনেক কিছু পরিবর্তন হচ্ছে। এই পরিবর্তনের ধারায় নিজেদেরকে মানিয়ে নিতে না পারলে টিকে থাকা যাবে না। পৃথিবীতে যতো জীবসত্ত্বা রয়েছে তার মধ্যে যারা পরিবেশের সাথে মানিয়ে নিতে পেরেছে তারা টিকে আছে। মানুষেরই ক্ষমতা এই ব্যাপারে সবচেয়ে বেশি যে পরিবেশের সকল প্রতিকূলতার সাথে খাপ খাইয়ে টিকে আছে। তিনি আরও বলেন, আমরা মানুষ মাত্র ক্ষমতা দেখাতে পছন্দ করি। উপমহাদেশে সামন্তবাদী ধারায় এ প্রবণতা লক্ষ্য করা যায়। কিন্তু আমরা যার সাথে ক্ষমতা দেখাই, যার ফাইলটা আটকে রেখে দিনের পর দিন ভোগান্তি সৃষ্টি করি, তার প্রাপ্যতা থেকে বঞ্চিত করি, তা আমরা বিবেচনা করি না। এখান থেকেই মানুষের মধ্যে অভিযোগ বা ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। এই মানসিকতা পরিহার করতে হবে। উপাচার্য বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় উচ্চশিক্ষার পীঠস্থান হিসেবে এখান থেকে সবাই অনেক কিছু শিখতে চায়। তাই বিশেষ করে এখান থেকে শিক্ষার্থীরা যেনো এমন শিক্ষা নিয়ে বের হয়, যারা সেবাদানে মানুষের পাশে দাঁড়াবে। দেশের কল্যাণে কাজ করবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মকর্তাদের ওপর গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব রয়েছে বলে উল্লেখ করে তিনি বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়কে এগিয়ে নিতে তাদের দক্ষতা ও আন্তরিকতা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। কেউ ভালো কাজ করলে, আন্তরিক হলে, ভালো আচরণ করলে তার জন্য স্বীকৃতি প্রেরণা জোগায়। এমনকি শুধুমাত্র তাকে প্রশংসা করলেও সে উৎসাহিত হয়। তিনি খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়কে বিশ্বমানে পৌঁছাতে বিভিন্ন উদ্যোগের কথা উল্লেখ করে দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য প্রশিক্ষণ অব্যাহত রাখা হবে বলে জানান। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. মোসাম্মাৎ হোসনে আরা। আইকিউএসির পরিচালক প্রফেসর ড. মোহাম্মদ জিয়াউল হায়দারের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন আইকিউএসির অতিরিক্ত পরিচালক প্রফেসর ড. জগদীশ চন্দ্র জোয়ার্দার, আইকিউএসির অতিরিক্ত পরিচালক প্রফেসর ড. মো. মতিউল ইসলাম। দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত এ প্রশিক্ষণ কর্মসূচিতে রিসোর্স পার্সন হিসেবে বিষয়ভিত্তিক সেশন পরিচালনা করেন খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণিত ডিসিপ্লিনের প্রফেসর ড. লস্কর এরশাদ আলী, খুলনা সিটি কর্পোরেশনের সচিব মো. আজমুল হক এবং ইউজিসির যুগ্ম-সচিব(প্রশাসন) জাফর আহম্মদ জাহাঙ্গীর। উদ্বোধনপর্ব সঞ্চালনা করেন আইকিউএসির উপ-রেজিস্ট্রার মোঃ নুরুল ইসলাম সিদ্দিকী। প্রশিক্ষণ কর্মসূচিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-রেজিস্ট্রার, সহকারী রেজিস্ট্রার ও সেকশন অফিসার পর্যায়ের ৩০ জন কর্মকর্তা অংশগ্রহণ করেন। ##