০৯:৩২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৭ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

গণআন্দোলনে ভীত হয়ে সরকার বিএনপিকে নিশ্চিহ্ন করার চক্রান্ত করছে: বিএনপি

  • অফিস ডেক্স।।
  • প্রকাশিত সময় : ০৯:৩১:৫০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৬ মে ২০২৩
  • ২৫ পড়েছেন

###    খুলনা মহানগর বিএনপি নেতারা বলেছেন, গণআন্দোলনে ভীত হয়ে আওয়ামী লীগ খেই হারিয়ে বিএনপিকে নিশ্চিহ্ন করার চক্রান্তে ঝাঁপিয়ে পড়েছে। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী বৈঠক করে পরিকল্পিতভাবে বিএনপির নেতাকর্মী ও মিছিল-সমাবেশের ওপর হামলা চালাচ্ছে, গুলি চালাচ্ছে। চারিদিকে বিদায় ঘণ্টায বাজায় তারা মরণকামড় দিতে শুরু করেছে। যতই দিন যাচ্ছে ততই ভোট ডাকাত সরকারের হিংস্রতা প্রকট হচ্ছে। ভোটাধিকারের ন্যায্য দাবি, অত্যাচার, উৎপীড়ন, খুন, গুম, লুণ্ঠন, দুঃশাসনের বিরুদ্ধে জনগণের শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিও সহ্য করতে পারছে না। শুক্রবার (২৬ মে) বিকালে দলীয় কার্যালয়ে কেন্দ্র ঘোষিত ২৮ মে রবিবারের পদযাত্রা কর্মসুচি ও ৩০মে শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৪২তম শাহাদাৎ বার্ষিকী যথাযোগ্য মর্যাদায় পালনের লক্ষ্যে খুলনা মহানগর বিএনপি, অঙ্গ ও সহযোগী সাংগঠনের যৌথ প্রস্তুতি সভায় বক্তারা এসব কথা বলেন। বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও খুলনা মহানগর আহবায়ক এড. শফিকুল আলম মনার সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব শফিকুল আলম তুহিনের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় বক্তারা আরো বলেন, আওয়ামী কর্তৃত্ববাদী সরকার এখন নিজেদের অস্তিত্বের প্রশ্নে বেসামাল হয়ে উঠেছে। তাই অবৈধ শাসকগোষ্ঠী বিএনপি এবং এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনসহ বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের ওপর নানা কায়দায় জুলুম-নির্যাতন চালিয়ে তাদের ভীত-সন্ত্রস্ত করার কৌশল অবলম্বন করেছে। কিন্তু কোনো নিষ্ঠুর নিপীড়ণ-নির্যাতনেও জাতীয়তাবাদী শক্তিকে দমন করতে না পেরে রাষ্ট্রশক্তির যথেচ্ছ অপব্যবহার অব্যাহত রেখেছে। বানোয়াট ও মিথ্যা মামলা দিয়ে গ্রেফতার, বিনা ওয়ারেন্টে গ্রেফতারের পর গায়েবি মামলায় নাম দিয়ে জুলুমের এক পৈশাচিক বৃত্ত রচনা করা হয়েছে। এভাবে আর চলতে দেয়া যায়না উল্লেখ করে নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধভাবে রাজপথে থাকার আহবান জানান। সভায় উপস্থিত ছিলেন, স ম আ. রহমান, সৈয়দা রেহেনা ঈসা, কাজী মাহমুদ আলী, শের আলম সান্টু, আবুল কালাম জিয়া, মাহাবুব হাসান পিয়ারু, চৌধুরী শফিকুল ইসলাম হোসেন, মাসুদ পারভেজ বাবু, শেখ সাদি, হাসানুর রশিদ চৌধুরী মিরাজ, কে এম হুমায়ূন কবীর, হাফিজুর রহমান মনি, আবু মো. মুরশিদ কামাল, কাজী মিজানুর রহমান, মোল্লা ফরিদ আহমেদ, সৈয়দ সাজ্জাদ আহসান পরাগ, শেখ ইমাম হোসেন, আবু সাইদ হাওলাদার আব্বাস, শেখ জাহিদুল ইসলাম, বি এম তানভিরুল আজম, শাহিনুল ইসলাম পাখি, বিপ্লবুর রহমান কুদ্দুস, সৈয়দ সাজ্জাদ আহসান পরাগ, এড. চৌধুরী তৌহিদুর রহমান তুষার, জহর মীর, হাবিবুর রহমান বিশ্বাস, শেখ জামাল উদ্দিন, নাসির খান, আব্দুস সালাম, আলমগীর হোসেন, আব্দুর রহমান ডিনো, নাজমুল হুদা চৌধুরী সাগর, তারিকুল ইসলাম, মো. জাহিদ হোসেন, মিজানুর রহমান মিলটন, শফিকুল ইসলাম শফি, আলী আক্কাস, শেখ ফারুক হোসেন, মুজিবর রহমান, মতলুবুল রহমান মিতুল, মো. আব্দুল ওহাব, মো. শহীদ খান, সিরাজুল ইসলাম লিটন, কাজী কামরুল ইসলাম বাবু, মাহবুব উল্লাহ শামীম, কে এম মাহবুবুল আলম, শেখ মোস্তফা কামাল, জাহাঙ্গীর হোসেন, ঢালী মো. সালাউদ্দিন, মাজেদুল হক, মো. মাহমুদ আলম বাবু মোড়ল, আরিফুল ইসলাম বিপ্লব, ডা. আব্দুল হালিম মোড়ল, মো. আইয়ুব আলী, সিরাজুল ইসলাম সনি, মেশকাত আলী, এ কে এম সেলিম, মফিজুল ইসলাম, আলী হোসেন, মুরাদ হোসেন, ছাত্রদলের ইস্তিয়াক আহমেদ ইস্তি,সাজ্জাদ হোসেন জিতু, যুবদলের জাকির ইকবাল
বাপ্পি, হানিফ মাহমুদ, স্বেচ্ছাসেবক দলের মুনতাসির আল মামুন, নাসির
উদ্দিন, তাঁতীদলের শেখ আবু সাঈদ, মহিলা দলের কাওসারী জাহান মঞ্জু, মিসেস
মনি প্রমূখ। সভা থেকে আগামী ২৮ মে রবিবার কেন্দ্র ঘোষিত বিএনপির পদযাত্রা কর্মসুচি যেকোন মুল্যে সফল করতে সর্বস্তরের নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধভাবে রাজপথে থেকে স্মরণকালের বৃহৎ পদযাত্রা করার সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়। সভা থেকে পদযাত্রা কর্মসুচিতে সফল করতে ও অহেতুক বিএনপির নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করা থেকে বিরত থাকার জন্য পুলিশ প্রশাসনের প্রতি আহবান জানানো হয়।

সভা থেকে শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৪২তম শাহাদাৎ বার্ষিকী যথাযোগ্য মর্যাদায় পালনের লক্ষ্যে ৫দিনের কর্মসুচি গ্রহন করা হয়। সভা থেকে ২৮ মে দলীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে পদযাত্রা কর্মসুচি শুরু হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিন শেষে আবারো দলীয় কার্যালয়ে এসে শেষ করার সিদ্ধান্ত হয়। #

Tag :
লেখক তথ্য সম্পর্কে

Dainik adhumati

জনপ্রিয়

বাকেরগঞ্জে কৃষি ব্যাংকের গ্রাহকদের সঙ্গে মতবিনিময় সভা

গণআন্দোলনে ভীত হয়ে সরকার বিএনপিকে নিশ্চিহ্ন করার চক্রান্ত করছে: বিএনপি

প্রকাশিত সময় : ০৯:৩১:৫০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৬ মে ২০২৩

###    খুলনা মহানগর বিএনপি নেতারা বলেছেন, গণআন্দোলনে ভীত হয়ে আওয়ামী লীগ খেই হারিয়ে বিএনপিকে নিশ্চিহ্ন করার চক্রান্তে ঝাঁপিয়ে পড়েছে। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী বৈঠক করে পরিকল্পিতভাবে বিএনপির নেতাকর্মী ও মিছিল-সমাবেশের ওপর হামলা চালাচ্ছে, গুলি চালাচ্ছে। চারিদিকে বিদায় ঘণ্টায বাজায় তারা মরণকামড় দিতে শুরু করেছে। যতই দিন যাচ্ছে ততই ভোট ডাকাত সরকারের হিংস্রতা প্রকট হচ্ছে। ভোটাধিকারের ন্যায্য দাবি, অত্যাচার, উৎপীড়ন, খুন, গুম, লুণ্ঠন, দুঃশাসনের বিরুদ্ধে জনগণের শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিও সহ্য করতে পারছে না। শুক্রবার (২৬ মে) বিকালে দলীয় কার্যালয়ে কেন্দ্র ঘোষিত ২৮ মে রবিবারের পদযাত্রা কর্মসুচি ও ৩০মে শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৪২তম শাহাদাৎ বার্ষিকী যথাযোগ্য মর্যাদায় পালনের লক্ষ্যে খুলনা মহানগর বিএনপি, অঙ্গ ও সহযোগী সাংগঠনের যৌথ প্রস্তুতি সভায় বক্তারা এসব কথা বলেন। বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও খুলনা মহানগর আহবায়ক এড. শফিকুল আলম মনার সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব শফিকুল আলম তুহিনের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় বক্তারা আরো বলেন, আওয়ামী কর্তৃত্ববাদী সরকার এখন নিজেদের অস্তিত্বের প্রশ্নে বেসামাল হয়ে উঠেছে। তাই অবৈধ শাসকগোষ্ঠী বিএনপি এবং এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনসহ বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের ওপর নানা কায়দায় জুলুম-নির্যাতন চালিয়ে তাদের ভীত-সন্ত্রস্ত করার কৌশল অবলম্বন করেছে। কিন্তু কোনো নিষ্ঠুর নিপীড়ণ-নির্যাতনেও জাতীয়তাবাদী শক্তিকে দমন করতে না পেরে রাষ্ট্রশক্তির যথেচ্ছ অপব্যবহার অব্যাহত রেখেছে। বানোয়াট ও মিথ্যা মামলা দিয়ে গ্রেফতার, বিনা ওয়ারেন্টে গ্রেফতারের পর গায়েবি মামলায় নাম দিয়ে জুলুমের এক পৈশাচিক বৃত্ত রচনা করা হয়েছে। এভাবে আর চলতে দেয়া যায়না উল্লেখ করে নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধভাবে রাজপথে থাকার আহবান জানান। সভায় উপস্থিত ছিলেন, স ম আ. রহমান, সৈয়দা রেহেনা ঈসা, কাজী মাহমুদ আলী, শের আলম সান্টু, আবুল কালাম জিয়া, মাহাবুব হাসান পিয়ারু, চৌধুরী শফিকুল ইসলাম হোসেন, মাসুদ পারভেজ বাবু, শেখ সাদি, হাসানুর রশিদ চৌধুরী মিরাজ, কে এম হুমায়ূন কবীর, হাফিজুর রহমান মনি, আবু মো. মুরশিদ কামাল, কাজী মিজানুর রহমান, মোল্লা ফরিদ আহমেদ, সৈয়দ সাজ্জাদ আহসান পরাগ, শেখ ইমাম হোসেন, আবু সাইদ হাওলাদার আব্বাস, শেখ জাহিদুল ইসলাম, বি এম তানভিরুল আজম, শাহিনুল ইসলাম পাখি, বিপ্লবুর রহমান কুদ্দুস, সৈয়দ সাজ্জাদ আহসান পরাগ, এড. চৌধুরী তৌহিদুর রহমান তুষার, জহর মীর, হাবিবুর রহমান বিশ্বাস, শেখ জামাল উদ্দিন, নাসির খান, আব্দুস সালাম, আলমগীর হোসেন, আব্দুর রহমান ডিনো, নাজমুল হুদা চৌধুরী সাগর, তারিকুল ইসলাম, মো. জাহিদ হোসেন, মিজানুর রহমান মিলটন, শফিকুল ইসলাম শফি, আলী আক্কাস, শেখ ফারুক হোসেন, মুজিবর রহমান, মতলুবুল রহমান মিতুল, মো. আব্দুল ওহাব, মো. শহীদ খান, সিরাজুল ইসলাম লিটন, কাজী কামরুল ইসলাম বাবু, মাহবুব উল্লাহ শামীম, কে এম মাহবুবুল আলম, শেখ মোস্তফা কামাল, জাহাঙ্গীর হোসেন, ঢালী মো. সালাউদ্দিন, মাজেদুল হক, মো. মাহমুদ আলম বাবু মোড়ল, আরিফুল ইসলাম বিপ্লব, ডা. আব্দুল হালিম মোড়ল, মো. আইয়ুব আলী, সিরাজুল ইসলাম সনি, মেশকাত আলী, এ কে এম সেলিম, মফিজুল ইসলাম, আলী হোসেন, মুরাদ হোসেন, ছাত্রদলের ইস্তিয়াক আহমেদ ইস্তি,সাজ্জাদ হোসেন জিতু, যুবদলের জাকির ইকবাল
বাপ্পি, হানিফ মাহমুদ, স্বেচ্ছাসেবক দলের মুনতাসির আল মামুন, নাসির
উদ্দিন, তাঁতীদলের শেখ আবু সাঈদ, মহিলা দলের কাওসারী জাহান মঞ্জু, মিসেস
মনি প্রমূখ। সভা থেকে আগামী ২৮ মে রবিবার কেন্দ্র ঘোষিত বিএনপির পদযাত্রা কর্মসুচি যেকোন মুল্যে সফল করতে সর্বস্তরের নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধভাবে রাজপথে থেকে স্মরণকালের বৃহৎ পদযাত্রা করার সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়। সভা থেকে পদযাত্রা কর্মসুচিতে সফল করতে ও অহেতুক বিএনপির নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করা থেকে বিরত থাকার জন্য পুলিশ প্রশাসনের প্রতি আহবান জানানো হয়।

সভা থেকে শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৪২তম শাহাদাৎ বার্ষিকী যথাযোগ্য মর্যাদায় পালনের লক্ষ্যে ৫দিনের কর্মসুচি গ্রহন করা হয়। সভা থেকে ২৮ মে দলীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে পদযাত্রা কর্মসুচি শুরু হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিন শেষে আবারো দলীয় কার্যালয়ে এসে শেষ করার সিদ্ধান্ত হয়। #