০৪:০৪ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে চাকুরি দেয়ার নামে টাকা আত্নসাতের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

###    গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে রেলওয়ে বিভাগে ওয়েম্যান পদে চাকুরি দেওয়ার নাম করে ৬ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়ার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছে ভূতক্তভোগি সুজন বাবু। পেশায় চা বিক্রেতা । সে উপজেলার সর্বানন্দ ইউনিয়নের কিশামত সর্বানন্দ গ্রামের সুখী লালের ছেলে। রোববার (১৯ মার্চ) দুপুরে সুন্দরগঞ্জ প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য দানকালে সুজন বাবু বলেন, বাংলাদেশ রেলওয়েতে ওয়েম্যান পদে কর্মরত একই গ্রামের মাহাতাব ব্যাপারির ছেলে আসাদুল ইসলাম ৬ মাসের মধ্যে ওয়েম্যান পদে চাকুরি দেওয়ার নাম করে ২০১৮ সালে ৬ লাখ ৫ হাজার টাকা তার কাছ থেকে গ্রহণ করে। এসময় আসাদুলের বড় ভাই ফজলুল হক ও ভাতিজা ফারুক মিয়া উপস্থিত ছিলেন। সুজন বিভিন্ন জনের কাছ থেকে ধার-দেনা করে চাকুরি পাওয়ার আশায় টাকা দেয়। কিন্তু ৪ বছর পেরিয়ে গেলেও তার চাকুরির কোন খবর নাই। সুজন বাবু পরে জানতে পারে আসাদুল একজন প্রতারক। এভাবে চাকুরি দেওয়ার নাম করে আরও বিভিন্ন জনের কাছ থেকে টাকা নিয়েছে এবং প্রতারণা করেছে। চাকুরি না পেয়ে নিঃস্ব হয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছে সুজন।সুজন আরও বলেন চাকুরির আশা ছেড়ে দিয়ে টাকা ফেরত চাইলে ছয় মাসের মধ্যে টাকা ফেরত দেওয়ার অঙ্গীকার করেন। সেই ছয় মাসও পার হয়েছে কিন্তু টাকা পাই নাই। এখন টাকা চাইতে গেলে আসাদুল ও তার লোকজন বিভিন্ন ধরণের হুমকি দেয়। এমনকি পরপর কয়েকদিন গভীর রাতে আসাদুলের বাহিনী সুজনের বাড়িতে হামলা চালিয়েছে বলে জানান। এসময় সর্বানন্দ ইউনিয়নের আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি আঃ করিমসহ ৪/৫ জন উপস্থিত ছিলেন। চাকুরি দেওয়ার কথা বলে টাকা নিয়ে প্রতারণা করায় তার শাস্তি দাবি করেন সুজন। এব্যাপারে আসাদুলের মুঠোফোনে একাধিকবার কল করা হলেও তিনি কল কেটে দেন।##

Tag :
লেখক তথ্য সম্পর্কে

Dainik adhumati

জনপ্রিয়

গলাচিপায় অবৈধ দোকান উচ্ছেদের মাধ্যমে রাস্তা উন্মুক্ত করায় প্রসংশিত মেয়র

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে চাকুরি দেয়ার নামে টাকা আত্নসাতের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

প্রকাশিত সময় : ০৭:৩৫:২৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৯ মার্চ ২০২৩

###    গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে রেলওয়ে বিভাগে ওয়েম্যান পদে চাকুরি দেওয়ার নাম করে ৬ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়ার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছে ভূতক্তভোগি সুজন বাবু। পেশায় চা বিক্রেতা । সে উপজেলার সর্বানন্দ ইউনিয়নের কিশামত সর্বানন্দ গ্রামের সুখী লালের ছেলে। রোববার (১৯ মার্চ) দুপুরে সুন্দরগঞ্জ প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য দানকালে সুজন বাবু বলেন, বাংলাদেশ রেলওয়েতে ওয়েম্যান পদে কর্মরত একই গ্রামের মাহাতাব ব্যাপারির ছেলে আসাদুল ইসলাম ৬ মাসের মধ্যে ওয়েম্যান পদে চাকুরি দেওয়ার নাম করে ২০১৮ সালে ৬ লাখ ৫ হাজার টাকা তার কাছ থেকে গ্রহণ করে। এসময় আসাদুলের বড় ভাই ফজলুল হক ও ভাতিজা ফারুক মিয়া উপস্থিত ছিলেন। সুজন বিভিন্ন জনের কাছ থেকে ধার-দেনা করে চাকুরি পাওয়ার আশায় টাকা দেয়। কিন্তু ৪ বছর পেরিয়ে গেলেও তার চাকুরির কোন খবর নাই। সুজন বাবু পরে জানতে পারে আসাদুল একজন প্রতারক। এভাবে চাকুরি দেওয়ার নাম করে আরও বিভিন্ন জনের কাছ থেকে টাকা নিয়েছে এবং প্রতারণা করেছে। চাকুরি না পেয়ে নিঃস্ব হয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছে সুজন।সুজন আরও বলেন চাকুরির আশা ছেড়ে দিয়ে টাকা ফেরত চাইলে ছয় মাসের মধ্যে টাকা ফেরত দেওয়ার অঙ্গীকার করেন। সেই ছয় মাসও পার হয়েছে কিন্তু টাকা পাই নাই। এখন টাকা চাইতে গেলে আসাদুল ও তার লোকজন বিভিন্ন ধরণের হুমকি দেয়। এমনকি পরপর কয়েকদিন গভীর রাতে আসাদুলের বাহিনী সুজনের বাড়িতে হামলা চালিয়েছে বলে জানান। এসময় সর্বানন্দ ইউনিয়নের আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি আঃ করিমসহ ৪/৫ জন উপস্থিত ছিলেন। চাকুরি দেওয়ার কথা বলে টাকা নিয়ে প্রতারণা করায় তার শাস্তি দাবি করেন সুজন। এব্যাপারে আসাদুলের মুঠোফোনে একাধিকবার কল করা হলেও তিনি কল কেটে দেন।##