০৪:১৮ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে জমি নিয়ে সংঘর্ষে আহত ৭

###    গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার ছাপড়হাটী ইউনিয়নের দক্ষিণ মরুয়াদহ গ্রামে জমি নিয়ে সংঘর্ষে নারীসহ আহত হয়েছেন উভয় পক্ষের ৭ জন। এছাড়া, বসতবাড়ির ব্যাপক ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে। শনিবার বিকালে উপজেলার ধাপাচিলা মাদ্রাসার পাশে এ সংঘর্ষে র ঘটনা ঘটে।  স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, ভাতিজা জাহিদুল ইসলাম গং জমিজমা সম্পর্কিত বিরোধের জের ধরে চাচা দুলাল মিয়া ওরফে দুলা গংয়ের উপর হামলা চালায়। এতে উভয় পক্ষের মাঝে সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়ে। সংঘর্ষে দুলাল মিয়া (৫১), তার স্ত্রী সেলিনা বেগম (৪১), ভাই দেলোয়ার হোসেন (৫৬),আব্দুল কুদ্দুস মিয়া (৫৪) ও হাসেন আলী (৫৯) আহত হন। তাদের মধ্যে হাসেন আলী ও সেলিনা বেগমসহ ৩ জনের অবস্থা গুরুতর। আহতরা সকলেই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এরপর দুলাল গংদের বসতবাড়ির ব্যাপক ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে। অপরদিকে, জাহিদুল গংদের ২ জন আহত হয়েছেন। তবে তাদের নাম পরিচয় কেউই বলতে পারেন না। সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন বীট পুলিশিংয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত এসআই সাইদুর রহমান জানান, ঘটনার পর বিষয়টি জানতে পেয়েছি। দুলাল মিয়াসহ তার পক্ষে আহত ৫জন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। জাহিদুল পক্ষের ২জন আহত হবার কথা শোনা গেলেও সুনির্দিষ্টভাবে জানা যায়নি। এ ব্যাপারে এসআই রায়হানুল ইসলাম জানান, আগের মারামারি বিষয়ে দুলাল মিয়ার স্ত্রী সেলিনা বেগমের দায়েরকৃত বিজ্ঞ আদালতের একটি মামলায় তদন্ত অব্যাহত রয়েছে। মামলাটির তদন্তকারী কর্মকর্তা হিসেবে বিষয়টি জানতে পেয়ে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন আহতদেরকে দেখেছি। এখনও কোনও অভিযোগ পাইনি।থানা অফিসার ইনচার্জ কেএম আজমিরুজ্জামান জানান, দু’পক্ষের পৃথক অভিযোগ পাওয়া গেছে। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।##

Tag :
লেখক তথ্য সম্পর্কে

Dainik adhumati

জনপ্রিয়

গলাচিপায় অবৈধ দোকান উচ্ছেদের মাধ্যমে রাস্তা উন্মুক্ত করায় প্রসংশিত মেয়র

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে জমি নিয়ে সংঘর্ষে আহত ৭

প্রকাশিত সময় : ০৭:১১:৪২ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৩

###    গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার ছাপড়হাটী ইউনিয়নের দক্ষিণ মরুয়াদহ গ্রামে জমি নিয়ে সংঘর্ষে নারীসহ আহত হয়েছেন উভয় পক্ষের ৭ জন। এছাড়া, বসতবাড়ির ব্যাপক ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে। শনিবার বিকালে উপজেলার ধাপাচিলা মাদ্রাসার পাশে এ সংঘর্ষে র ঘটনা ঘটে।  স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, ভাতিজা জাহিদুল ইসলাম গং জমিজমা সম্পর্কিত বিরোধের জের ধরে চাচা দুলাল মিয়া ওরফে দুলা গংয়ের উপর হামলা চালায়। এতে উভয় পক্ষের মাঝে সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়ে। সংঘর্ষে দুলাল মিয়া (৫১), তার স্ত্রী সেলিনা বেগম (৪১), ভাই দেলোয়ার হোসেন (৫৬),আব্দুল কুদ্দুস মিয়া (৫৪) ও হাসেন আলী (৫৯) আহত হন। তাদের মধ্যে হাসেন আলী ও সেলিনা বেগমসহ ৩ জনের অবস্থা গুরুতর। আহতরা সকলেই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এরপর দুলাল গংদের বসতবাড়ির ব্যাপক ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে। অপরদিকে, জাহিদুল গংদের ২ জন আহত হয়েছেন। তবে তাদের নাম পরিচয় কেউই বলতে পারেন না। সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন বীট পুলিশিংয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত এসআই সাইদুর রহমান জানান, ঘটনার পর বিষয়টি জানতে পেয়েছি। দুলাল মিয়াসহ তার পক্ষে আহত ৫জন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। জাহিদুল পক্ষের ২জন আহত হবার কথা শোনা গেলেও সুনির্দিষ্টভাবে জানা যায়নি। এ ব্যাপারে এসআই রায়হানুল ইসলাম জানান, আগের মারামারি বিষয়ে দুলাল মিয়ার স্ত্রী সেলিনা বেগমের দায়েরকৃত বিজ্ঞ আদালতের একটি মামলায় তদন্ত অব্যাহত রয়েছে। মামলাটির তদন্তকারী কর্মকর্তা হিসেবে বিষয়টি জানতে পেয়ে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন আহতদেরকে দেখেছি। এখনও কোনও অভিযোগ পাইনি।থানা অফিসার ইনচার্জ কেএম আজমিরুজ্জামান জানান, দু’পক্ষের পৃথক অভিযোগ পাওয়া গেছে। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।##