১০:০৪ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গুজব ছড়িয়ে লাভ নাই ; ভোট হবে নিরপেক্ষ  চিতলমারীতে নির্বাচনী সভায় আলমগীর সিদ্দিকী

  • সংবাদদাতা
  • প্রকাশিত সময় : ১০:১৪:৪২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ মে ২০২৪
  • ১০০ পড়েছেন

একরামুল হক মুন্সী, চিতলমারী (বাগেরহাট) প্রতিনিধি :

ষষ্ঠ উপজেলা নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপে বাগেহাটের চিতলমারী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের আর মাত্র ৫দিন বাকী আছে। এই নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দিতায় মাঠে ছিলেন তিনজন প্রার্থী। তার মধ্যে আনারস প্রতীকের এস এম অহিদুজ্জামান প্রার্থীতা প্রত্যাহার করেছেন। বর্তমান নির্বাচনী মাঠে প্রতিদ্বন্দিতায় রয়েছেন অশোক কুমার বড়াল মোটর সাইকেল প্রতীক এবং এ জে এম আলমগীর সিদ্দিকী দোয়াত কলম প্রতীক।

তারই ধারা বাহিকতায় সরগরম নির্বাচনী মাঠ। অশোক কুমার বড়ালের পাশাপাশি ১৬ মে (বৃহস্পতিবার) বিকাল ৪টায়, এ জে এম আলমগীর সিদ্দিকীর কর্মী সমার্থক অয়োজিত উপজেলার কচুড়িয়া আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে দোয়াত কলম প্রতীক আলমগীর সিদ্দিকীর নির্বাচনী সভা অনুষ্ঠিত হয়। আশুতোষ ঘরামির সভাপতিত্বে এ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে আলমগীর সিদ্দিকী বলেন,

পরাজয় বা বিজয় হলে মেনে নেব। কিন্তু ভোট কাটবেন, হুমকি ধামকি দেবেন,তাদের হুশিয়ার করতে চাই। ভোট কেন্দ্রে সন্ত্রাসী করার চিন্তা করবেন না। আপনি আমার প্রতিদ্বন্দি, আপনি ভোট চাইলে আমিও ভোট চাইবো। আমার ভোট আমি দেব, যাকে খুশি তাকে দেব। এটা আমার এমপি শেখ হেলাল উদ্দীনের নির্বাচনী এলাকা এখানে গুজব ছড়িয়ে লাভ নাই।

এ সভায় আরো বক্তব্য রাখেন, যুবলীগ নেতা মুন্সী নাহিদুজ্জামান, বিশিষ্ঠ ব্যবসায়ী মোঃ এখলাসুর রহমান, অধ্যাপক কাজী কামরুজ্জামান, মোঃ এনামুল হক ও ইকবাল হোসেনসহ নেতৃবৃন্দ। সভাটি পরিচালনায় ছিলেন মোঃ মনি মোল্লা।

Tag :
লেখক তথ্য সম্পর্কে

dainik madhumati

জনপ্রিয়

ডুমুরিয়ায় মোটরসাইকেল-ইঞ্জিন ভ্যান সংঘর্ষে নিহত-২,আহত-৪

গুজব ছড়িয়ে লাভ নাই ; ভোট হবে নিরপেক্ষ  চিতলমারীতে নির্বাচনী সভায় আলমগীর সিদ্দিকী

প্রকাশিত সময় : ১০:১৪:৪২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ মে ২০২৪

একরামুল হক মুন্সী, চিতলমারী (বাগেরহাট) প্রতিনিধি :

ষষ্ঠ উপজেলা নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপে বাগেহাটের চিতলমারী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের আর মাত্র ৫দিন বাকী আছে। এই নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দিতায় মাঠে ছিলেন তিনজন প্রার্থী। তার মধ্যে আনারস প্রতীকের এস এম অহিদুজ্জামান প্রার্থীতা প্রত্যাহার করেছেন। বর্তমান নির্বাচনী মাঠে প্রতিদ্বন্দিতায় রয়েছেন অশোক কুমার বড়াল মোটর সাইকেল প্রতীক এবং এ জে এম আলমগীর সিদ্দিকী দোয়াত কলম প্রতীক।

তারই ধারা বাহিকতায় সরগরম নির্বাচনী মাঠ। অশোক কুমার বড়ালের পাশাপাশি ১৬ মে (বৃহস্পতিবার) বিকাল ৪টায়, এ জে এম আলমগীর সিদ্দিকীর কর্মী সমার্থক অয়োজিত উপজেলার কচুড়িয়া আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে দোয়াত কলম প্রতীক আলমগীর সিদ্দিকীর নির্বাচনী সভা অনুষ্ঠিত হয়। আশুতোষ ঘরামির সভাপতিত্বে এ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে আলমগীর সিদ্দিকী বলেন,

পরাজয় বা বিজয় হলে মেনে নেব। কিন্তু ভোট কাটবেন, হুমকি ধামকি দেবেন,তাদের হুশিয়ার করতে চাই। ভোট কেন্দ্রে সন্ত্রাসী করার চিন্তা করবেন না। আপনি আমার প্রতিদ্বন্দি, আপনি ভোট চাইলে আমিও ভোট চাইবো। আমার ভোট আমি দেব, যাকে খুশি তাকে দেব। এটা আমার এমপি শেখ হেলাল উদ্দীনের নির্বাচনী এলাকা এখানে গুজব ছড়িয়ে লাভ নাই।

এ সভায় আরো বক্তব্য রাখেন, যুবলীগ নেতা মুন্সী নাহিদুজ্জামান, বিশিষ্ঠ ব্যবসায়ী মোঃ এখলাসুর রহমান, অধ্যাপক কাজী কামরুজ্জামান, মোঃ এনামুল হক ও ইকবাল হোসেনসহ নেতৃবৃন্দ। সভাটি পরিচালনায় ছিলেন মোঃ মনি মোল্লা।