০৬:৪৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

জ্ঞান ও সভ্যতার বিকাশে প্রিন্টমেকিং গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে : খুবি উপাচার্য

###    খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রিন্টমেকিং ডিসিপ্লিনের উদ্যোগে ‘আর্ট, আর্টিস্ট এবং ক্রিয়েশন’ শীর্ষক দিনব্যাপী কর্মশালা ২২ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য জগদীশচন্দ্র বসু একাডেমিক ভবনের সাংবাদিক লিয়াকত আলী মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। কর্মশালায় প্রধান অতিথি ছিলেন উপাচার্য প্রফেসর ড. মাহমুদ হোসেন। এ সময় তিনি বলেন, আমাদের প্রত্যেকের জীবন দর্শন ভিন্ন ভিন্ন রকম। শিল্পীদের দৃষ্টিভঙ্গি ও দর্শন সবার থেকে আলাদা। তাদের সৃজনশীল কর্মের মধ্য দিয়ে জীবনের নানা দিক ফুটে ওঠে। মননের নান্দনিকতা ফুটিয়ে তোলা বা সেই দর্শনবোধ সৃষ্টিতে শিল্পীর অসাধারণ ভূমিকা রয়েছে। সৃজনশীলতার মাধ্যমে জ্ঞান ও সভ্যতার বিকাশে প্রিন্টমেকিং গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছে।তিনি আরও বলেন, জ্ঞান-বিজ্ঞান বিকাশের এই যুগে বইকে সহজলভ্য করার পেছনে রয়েছে প্রিন্টমেকিং। উড ব্লকের পর থ্রিডিসহ অন্যান্য প্রিন্টিংয়ের ক্ষেত্রেও প্রিন্টমেকিংয়ের ভূমিকা রয়েছে। উপাচার্য বলেন, সভ্যতার বিকাশ ও কৃষ্টির সাথে আমাদের ঐতিহ্য ভুলে গেলে চলবে না। দেশের ঐতিহ্য ধরে রাখতে লোকজ দিকগুলো প্রিন্টের মাধ্যমে তুলে ধরে তা বাঁচিয়ে রাখতে হবে।আজকের এই কর্মশালায় উপস্থিত খ্যাতনামা শিল্পীদের আলোচনা থেকে সৃজনশীলতার প্রসার ঘটবে এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি শিক্ষকরাও আলোকিত হবেন বলে উপাচার্য আশা প্রকাশ করেন। এ বছর খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণার ক্ষেত্রে ৪ কোটি টাকার মতো নতুন দেওয়া হয়েছে উল্লেখ করে এই আলোচনা থেকে গবেষণার নতুন নতুন বিষয়ে উঠবে আসবে বলে তিনি মন্তব্য করেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন দেশবরেণ্য শিল্পী প্রফেসর রফিকুন নবী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের ডিন প্রফেসর নিসার হোসেন। অভিব্যক্তি ব্যক্ত করেন ভারতের রবীন্দ্র ভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক শিল্পী জয়ন্ত নস্কর। সভাপতিত্ব করেন খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা স্কুলের ডিন ও প্রিন্টমেকিং ডিসিপ্লিন প্রধান প্রফেসর ড. নিহার রঞ্জন সিংহ। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন প্রিন্টমেকিং ডিসিপ্লিনের সহযোগী অধ্যাপক মো. নাদিমুদ্দৌলা। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে চারুকলা স্কুলভুক্ত বিভিন্ন ডিসিপ্লিন প্রধান, শিক্ষক-শিক্ষার্থীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

উদ্বোধনী পর্বের পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের ডিন শিল্পী প্রফেসর নিসার হোসেন ‘দি প্রব্লেম এন্ড পসিবিলিটিস অব ফোক আর্ট রিসার্চ ইন বাংলাদেশ’ শীর্ষক নিবন্ধ উপস্থাপন করেন। এরপর ‘লিভিং উইথ আর্ট এন্ড মাই ওয়ার্কস’ শীর্ষক নিবন্ধ উপস্থাপন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের খ্যাতনামা শিক্ষক প্রফেসর রফিকুন নবী। এছাড়া ওয়াটার এন্ড রিডিউসার বেজড সেরিগ্রাফি শীর্ষক ওয়ার্কশপ পরিচালনা করেন ভারতের শিল্পশিক্ষক জয়ন্ত নস্কর।##

Tag :
লেখক তথ্য সম্পর্কে

Dainik Madhumati

জনপ্রিয়

দেবহাটায় জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন এ্যাডভোকেসি সভা অনুষ্ঠিত 

জ্ঞান ও সভ্যতার বিকাশে প্রিন্টমেকিং গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে : খুবি উপাচার্য

প্রকাশিত সময় : ১২:৫০:৩২ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ডিসেম্বর ২০২২

###    খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রিন্টমেকিং ডিসিপ্লিনের উদ্যোগে ‘আর্ট, আর্টিস্ট এবং ক্রিয়েশন’ শীর্ষক দিনব্যাপী কর্মশালা ২২ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য জগদীশচন্দ্র বসু একাডেমিক ভবনের সাংবাদিক লিয়াকত আলী মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। কর্মশালায় প্রধান অতিথি ছিলেন উপাচার্য প্রফেসর ড. মাহমুদ হোসেন। এ সময় তিনি বলেন, আমাদের প্রত্যেকের জীবন দর্শন ভিন্ন ভিন্ন রকম। শিল্পীদের দৃষ্টিভঙ্গি ও দর্শন সবার থেকে আলাদা। তাদের সৃজনশীল কর্মের মধ্য দিয়ে জীবনের নানা দিক ফুটে ওঠে। মননের নান্দনিকতা ফুটিয়ে তোলা বা সেই দর্শনবোধ সৃষ্টিতে শিল্পীর অসাধারণ ভূমিকা রয়েছে। সৃজনশীলতার মাধ্যমে জ্ঞান ও সভ্যতার বিকাশে প্রিন্টমেকিং গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছে।তিনি আরও বলেন, জ্ঞান-বিজ্ঞান বিকাশের এই যুগে বইকে সহজলভ্য করার পেছনে রয়েছে প্রিন্টমেকিং। উড ব্লকের পর থ্রিডিসহ অন্যান্য প্রিন্টিংয়ের ক্ষেত্রেও প্রিন্টমেকিংয়ের ভূমিকা রয়েছে। উপাচার্য বলেন, সভ্যতার বিকাশ ও কৃষ্টির সাথে আমাদের ঐতিহ্য ভুলে গেলে চলবে না। দেশের ঐতিহ্য ধরে রাখতে লোকজ দিকগুলো প্রিন্টের মাধ্যমে তুলে ধরে তা বাঁচিয়ে রাখতে হবে।আজকের এই কর্মশালায় উপস্থিত খ্যাতনামা শিল্পীদের আলোচনা থেকে সৃজনশীলতার প্রসার ঘটবে এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি শিক্ষকরাও আলোকিত হবেন বলে উপাচার্য আশা প্রকাশ করেন। এ বছর খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণার ক্ষেত্রে ৪ কোটি টাকার মতো নতুন দেওয়া হয়েছে উল্লেখ করে এই আলোচনা থেকে গবেষণার নতুন নতুন বিষয়ে উঠবে আসবে বলে তিনি মন্তব্য করেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন দেশবরেণ্য শিল্পী প্রফেসর রফিকুন নবী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের ডিন প্রফেসর নিসার হোসেন। অভিব্যক্তি ব্যক্ত করেন ভারতের রবীন্দ্র ভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক শিল্পী জয়ন্ত নস্কর। সভাপতিত্ব করেন খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা স্কুলের ডিন ও প্রিন্টমেকিং ডিসিপ্লিন প্রধান প্রফেসর ড. নিহার রঞ্জন সিংহ। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন প্রিন্টমেকিং ডিসিপ্লিনের সহযোগী অধ্যাপক মো. নাদিমুদ্দৌলা। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে চারুকলা স্কুলভুক্ত বিভিন্ন ডিসিপ্লিন প্রধান, শিক্ষক-শিক্ষার্থীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

উদ্বোধনী পর্বের পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের ডিন শিল্পী প্রফেসর নিসার হোসেন ‘দি প্রব্লেম এন্ড পসিবিলিটিস অব ফোক আর্ট রিসার্চ ইন বাংলাদেশ’ শীর্ষক নিবন্ধ উপস্থাপন করেন। এরপর ‘লিভিং উইথ আর্ট এন্ড মাই ওয়ার্কস’ শীর্ষক নিবন্ধ উপস্থাপন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের খ্যাতনামা শিক্ষক প্রফেসর রফিকুন নবী। এছাড়া ওয়াটার এন্ড রিডিউসার বেজড সেরিগ্রাফি শীর্ষক ওয়ার্কশপ পরিচালনা করেন ভারতের শিল্পশিক্ষক জয়ন্ত নস্কর।##