১০:২০ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ২২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ঝালকাঠিতে সাবেক ইউপি সদস্য ও ভাতিজাকে কুপিয়ে হত্যা

###     ঝালকাঠির রাজাপুরে সাবেক ইউপি সদস্য আঃ রব হাওলাদার ও তার ভাতিজা বেলায়েত হোসেনকে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা  ৷ সোমবার রাত ৮ টার দিকে রাজাপুর উপজেলার শুক্তাগড় ইউনিয়নের জগাইরহাট এলাকায় এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে । স্থানীয় বাসিন্দা ও নিহতের স্বজনদের সুত্রে জানা যায়, আঃ রব হাওলাদার ও তার ভাতিজা বেলায়েত হোসেন জগাইরহাট বাজার থেকে বাড়ি যাওয়ার সময় দুর্বৃত্তরা তাদের ওপর ধারালো অস্ত্র দিয়ে হামলা চালায়। তাদের চিৎকারে স্থানীয়রা ছুটে আসলে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। আহতদের স্থানীয়রা উদ্ধার করে রাজাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্য চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনার পর পুলিশ অভিযানে নেমেছে। নিহতের পরিবারের দাবি, মাদক ব্যবসায় বাধা দেয়ায় স্থানীয় একটি মাদকচক্র পরিকল্পিতভাবে তাদের হত্যা করেছে। ঝালকাঠি পুলিশ সুপার আফরুজুল হক টুটুল বলেন, এটা ডাবল মার্ডার। আমরা ঘটনাস্থল ভিজিট করেছি। নাম তদন্ত কাজ চলমান আছে। তদন্তের স্বার্থে নাম প্রকাশ করছি না। একজনকে আমরা আটক করেছি বাকিদের খুব দ্রুত আইনের আওতায় আনা হবে। প্রাথমকি ভাবে ধারণা করছি আধিপত্য ও সম্পত্তির ব্যাপারও আছে। তদন্তে সব বেরিয়ে আসবে।##

Tag :
লেখক তথ্য সম্পর্কে

Dainik adhumati

ঝালকাঠিতে সাবেক ইউপি সদস্য ও ভাতিজাকে কুপিয়ে হত্যা

প্রকাশিত সময় : ১২:১৫:২৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৩

###     ঝালকাঠির রাজাপুরে সাবেক ইউপি সদস্য আঃ রব হাওলাদার ও তার ভাতিজা বেলায়েত হোসেনকে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা  ৷ সোমবার রাত ৮ টার দিকে রাজাপুর উপজেলার শুক্তাগড় ইউনিয়নের জগাইরহাট এলাকায় এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে । স্থানীয় বাসিন্দা ও নিহতের স্বজনদের সুত্রে জানা যায়, আঃ রব হাওলাদার ও তার ভাতিজা বেলায়েত হোসেন জগাইরহাট বাজার থেকে বাড়ি যাওয়ার সময় দুর্বৃত্তরা তাদের ওপর ধারালো অস্ত্র দিয়ে হামলা চালায়। তাদের চিৎকারে স্থানীয়রা ছুটে আসলে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। আহতদের স্থানীয়রা উদ্ধার করে রাজাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্য চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনার পর পুলিশ অভিযানে নেমেছে। নিহতের পরিবারের দাবি, মাদক ব্যবসায় বাধা দেয়ায় স্থানীয় একটি মাদকচক্র পরিকল্পিতভাবে তাদের হত্যা করেছে। ঝালকাঠি পুলিশ সুপার আফরুজুল হক টুটুল বলেন, এটা ডাবল মার্ডার। আমরা ঘটনাস্থল ভিজিট করেছি। নাম তদন্ত কাজ চলমান আছে। তদন্তের স্বার্থে নাম প্রকাশ করছি না। একজনকে আমরা আটক করেছি বাকিদের খুব দ্রুত আইনের আওতায় আনা হবে। প্রাথমকি ভাবে ধারণা করছি আধিপত্য ও সম্পত্তির ব্যাপারও আছে। তদন্তে সব বেরিয়ে আসবে।##