১০:২৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ৫ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দাকোপকে পরিবেশ সুরক্ষা ও বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় মডেল হিসেবে গড়তে প্রচারাভিযান

###    খুলনার দাকোপে পরিবেশ সুরক্ষা ও বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিষয়ক শিক্ষার্থীদের প্রচারাভিযান উপলক্ষে দিনভর নানান কর্মসূচী পালিত হয়েছে। কর্মসূচীর মধ্যে ছিল বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা, পটগান পরিবেশন, প্রচারপত্র বিলি, পোস্টার ও চিত্র প্রদর্শনী, সুবিধাভোগীদের স্টল পরিচালনা, বর্জ্যরে বিনিময়ে উপহার প্রদান, রচনা, পোস্টার, চিত্রাঙ্কন, বিতর্ক ও উপস্থিত বক্তৃতা প্রতিযোগিতার পুরষ্কার বিতরণী, দাকোপ ঘোষণা পাঠ ও আলোচনা সভা। সোমবার সকালে উপজেলা পরিষদ ময়দান থেকে পরিবেশ সুরক্ষা ও বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিষয়ে জনসচেতনতা সৃষ্টিতে একটি বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রায় বিভিন্ন বিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষার্থী, অভিভাবক, সরকারি কর্মকর্তাবৃন্দ, সাংবাদিকবৃন্দ, উন্নয়নকর্মীগণসহ কয়েকশ’ মানুষ অংশগ্রহণ করেন।শোভাযাত্রাটি দাকোপের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে চালনা পৌরসভা কার্যালয়ে গিয়ে শেষ হয়। সুইজারল্যান্ড সরকারের সহায়তায় করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জন্য জরুরী পুনর্বাসন প্রকল্পের উদ্যোগে এই প্রচারাভিযানের আয়োজন করা হয়। চালনা পৌরসভা চত্বরে পোস্টার ও চিত্র প্রদর্শনী, সুবিধাভোগীদের স্টল পরিচালনা, বর্জ্যর বিনিময়ে উপহার প্রদান কার্যক্রম কেন্দ্র স্থাপন করা হয়। রূপান্তরের নির্বাহী পরিচালক স্বপন কৃমার গুহের সভাপতিত্বে এবং কর্মসূচী সমন্বয়কারী অসীম আনন্দ দাসের সঞ্চালনায় এ অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তৃতা এবং প্রচারাভিযানের উদ্দেশ্য তুলে ধরেন কর্মসূচী পরিচালক ফারুক আহমেদ। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন দাকোপ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মিন্টু বিশ্বাস। সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চালনা পৌরসভার মেয়র সনত কুমার বিশ্বাস, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ সোহেল হোসেন এবং পরিবেশবিদ, সুন্দরবন একাডেমীর নির্বাহী পরিচালক অধ্যাপক আনোয়ারুল কাদির। অনুষ্ঠানে ক্যাম্পেইনে অংশগ্রহণকারী বিদ্যালয় সমূহের পক্ষে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন মোহাম্মদ আলী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক মোঃ হাসেম আলী,দাকোপ প্রেস ক্লাবের সভাপতি শিপন ভূঁইয়া, শিক্ষার্থীদের পক্ষে চালনা বিল্লালিয়া আলিম মাদ্রাসার আতকিয়া ইয়াসমিন, চালনা কেসি পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের মোঃ মুরছালিন আলম। শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে ১০ দফার দাকোপ ঘোষণা পাঠ করেন চালনা বাজার সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের পাপলি বৈরাগী।১০দফা দাবীনামার মধ্যে-সুষ্টু বর্র্জ্য ব্যবস্থাপনা নিশ্চিত করতে উদ্ভাবনী এবং কার্যকর সমাধান খুঁজে বের করতে হবে। বিশেষ করে প্লাস্টিক বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় দাকোপ উপজেলাকে রোল মডেল করতে উদ্যোগ নিতে হবে। জলবায়ু পরিবর্তনজনিত অভিঘাত মোকাবেলায় জনসচেতনতা সৃষ্টিতে দাকোপের প্রশাসন এবং জনপ্রতিনিধিগণ সমন্বিত উদ্যোগ গ্রহণ করবেন। বর্জ্য ব্যবস্থাপনার আধুনিক পদ্ধতি প্রয়োগের মাধ্যমে চালনা পৌরসভাকে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে। যেখানে সেখানে ময়লা আবর্জনা ফেলা বন্ধ করতে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে হবে। রাস্তার ও নদীর দুপাশ দিয়ে সবুজ বনায়ন তৈরীর দাবী জানানো হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি দাকোপের উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিন্টু বিশ্বাস বলেন, পরিবেশ সুরক্ষার সাথে বর্জ্য ব্যবস্থাপনার বিষয়টি ওতোপ্রোতভাবে জড়িত। জনগণের অংশগ্রহণ ছাড়া সুষ্ঠু বর্জ্য ব্যবস্থাপনা সম্ভব নয়। এ কাজে স্থানীয় প্রশাসন ও স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানসমূহ সম্ভব সব কিছু করবে বলেও আশ্বাস প্রদান করেন।##

Tag :
লেখক তথ্য সম্পর্কে

Dainik Madhumati

জনপ্রিয়

দাকোপকে পরিবেশ সুরক্ষা ও বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় মডেল হিসেবে গড়তে প্রচারাভিযান

প্রকাশিত সময় : ০১:২৭:৩৮ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২২ নভেম্বর ২০২২

###    খুলনার দাকোপে পরিবেশ সুরক্ষা ও বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিষয়ক শিক্ষার্থীদের প্রচারাভিযান উপলক্ষে দিনভর নানান কর্মসূচী পালিত হয়েছে। কর্মসূচীর মধ্যে ছিল বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা, পটগান পরিবেশন, প্রচারপত্র বিলি, পোস্টার ও চিত্র প্রদর্শনী, সুবিধাভোগীদের স্টল পরিচালনা, বর্জ্যরে বিনিময়ে উপহার প্রদান, রচনা, পোস্টার, চিত্রাঙ্কন, বিতর্ক ও উপস্থিত বক্তৃতা প্রতিযোগিতার পুরষ্কার বিতরণী, দাকোপ ঘোষণা পাঠ ও আলোচনা সভা। সোমবার সকালে উপজেলা পরিষদ ময়দান থেকে পরিবেশ সুরক্ষা ও বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিষয়ে জনসচেতনতা সৃষ্টিতে একটি বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রায় বিভিন্ন বিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষার্থী, অভিভাবক, সরকারি কর্মকর্তাবৃন্দ, সাংবাদিকবৃন্দ, উন্নয়নকর্মীগণসহ কয়েকশ’ মানুষ অংশগ্রহণ করেন।শোভাযাত্রাটি দাকোপের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে চালনা পৌরসভা কার্যালয়ে গিয়ে শেষ হয়। সুইজারল্যান্ড সরকারের সহায়তায় করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জন্য জরুরী পুনর্বাসন প্রকল্পের উদ্যোগে এই প্রচারাভিযানের আয়োজন করা হয়। চালনা পৌরসভা চত্বরে পোস্টার ও চিত্র প্রদর্শনী, সুবিধাভোগীদের স্টল পরিচালনা, বর্জ্যর বিনিময়ে উপহার প্রদান কার্যক্রম কেন্দ্র স্থাপন করা হয়। রূপান্তরের নির্বাহী পরিচালক স্বপন কৃমার গুহের সভাপতিত্বে এবং কর্মসূচী সমন্বয়কারী অসীম আনন্দ দাসের সঞ্চালনায় এ অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তৃতা এবং প্রচারাভিযানের উদ্দেশ্য তুলে ধরেন কর্মসূচী পরিচালক ফারুক আহমেদ। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন দাকোপ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মিন্টু বিশ্বাস। সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চালনা পৌরসভার মেয়র সনত কুমার বিশ্বাস, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ সোহেল হোসেন এবং পরিবেশবিদ, সুন্দরবন একাডেমীর নির্বাহী পরিচালক অধ্যাপক আনোয়ারুল কাদির। অনুষ্ঠানে ক্যাম্পেইনে অংশগ্রহণকারী বিদ্যালয় সমূহের পক্ষে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন মোহাম্মদ আলী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক মোঃ হাসেম আলী,দাকোপ প্রেস ক্লাবের সভাপতি শিপন ভূঁইয়া, শিক্ষার্থীদের পক্ষে চালনা বিল্লালিয়া আলিম মাদ্রাসার আতকিয়া ইয়াসমিন, চালনা কেসি পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের মোঃ মুরছালিন আলম। শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে ১০ দফার দাকোপ ঘোষণা পাঠ করেন চালনা বাজার সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের পাপলি বৈরাগী।১০দফা দাবীনামার মধ্যে-সুষ্টু বর্র্জ্য ব্যবস্থাপনা নিশ্চিত করতে উদ্ভাবনী এবং কার্যকর সমাধান খুঁজে বের করতে হবে। বিশেষ করে প্লাস্টিক বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় দাকোপ উপজেলাকে রোল মডেল করতে উদ্যোগ নিতে হবে। জলবায়ু পরিবর্তনজনিত অভিঘাত মোকাবেলায় জনসচেতনতা সৃষ্টিতে দাকোপের প্রশাসন এবং জনপ্রতিনিধিগণ সমন্বিত উদ্যোগ গ্রহণ করবেন। বর্জ্য ব্যবস্থাপনার আধুনিক পদ্ধতি প্রয়োগের মাধ্যমে চালনা পৌরসভাকে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে। যেখানে সেখানে ময়লা আবর্জনা ফেলা বন্ধ করতে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে হবে। রাস্তার ও নদীর দুপাশ দিয়ে সবুজ বনায়ন তৈরীর দাবী জানানো হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি দাকোপের উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিন্টু বিশ্বাস বলেন, পরিবেশ সুরক্ষার সাথে বর্জ্য ব্যবস্থাপনার বিষয়টি ওতোপ্রোতভাবে জড়িত। জনগণের অংশগ্রহণ ছাড়া সুষ্ঠু বর্জ্য ব্যবস্থাপনা সম্ভব নয়। এ কাজে স্থানীয় প্রশাসন ও স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানসমূহ সম্ভব সব কিছু করবে বলেও আশ্বাস প্রদান করেন।##