১০:২১ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ৫ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দেশের কৃষক ও চাষিসহ সাধারন মানুষ সমবায়ের মাধ্যমে স্বাবলম্বী হয়েছে : সিটি মেয়র

  • সংবাদদাতা
  • প্রকাশিত সময় : ১২:০০:৩২ অপরাহ্ন, রবিবার, ৬ নভেম্বর ২০২২
  • ২৭ পড়েছেন

### খুলনায় জাতীয় সমাবেশ, বর্ণাঢ্য র‌্যালি, আলোচনা সভা, পুরস্কার বিতরণসহ বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে সমবায় দিবস পালিত হয়। দিবসটির এবারের প্রতিপাদ্য ‘বঙ্গবন্ধুর দর্শন, সমবায়ে উন্নয়ন’। শনিবার এ উপলক্ষ্যে খুলনা জেলা শিল্পকলা একাডেমি অডিটোরিয়ামে আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক। এ সময় সিটি মেয়র বলেন, বিশ্বের উন্নত দেশগুলোর মূলমন্ত্র সমবায়ভিত্তিক সমাজ গঠন। উন্নত দেশগুলো সমবায় পদ্ধতি অনুসরণ করে উন্নতি লাভ করেছে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সমবায়কে গণমুখী আন্দোলনে পরিণত করার ডাক দিয়েছিলেন। এছাড়া জাতির পিতা দ্বিতীয় বিপ্লবের ডাক দেন। মেয়র আরও বলেন, অনেক কৃষক ও চাষিরা সমবায়ের মাধ্যমে স্বাবলম্বী হয়েছে। বঙ্গবন্ধু ভূমি ব্যবস্থাপনাকে সংস্কার করেন এবং ২৫ বিঘা পর্যন্ত জমির খাজনা মওকুফ করেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১৯৯৬ সালে ক্ষমতায় আসার পর সমবায়কে গুরুত্ব দিয়ে আসছেন। বর্তমান সরকার ক্ষুধা, দারিদ্র্য, বৈষম্য ও দুর্নীতিমুক্ত সুখী-সমৃদ্ধ উন্নত বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে নানামুখী উন্নয়ন পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। সরকার সমবায়ের মাধ্যমে কৃষি জমি ও অন্যান্য সম্পদের সর্বোত্তম ব্যবহারের মাধ্যমে দেশে কর্মসংস্থান সৃষ্টি, খাদ্য ও পুষ্টি চাহিদা পূরণে কাজ করছে। খুলনা জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগের উপপরিচালক মোঃ ইউসুপ আলী’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন খুলনার অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (সার্বিক) মোঃ আব্দুর রশিদ ও কেএমপি’র অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার তাসলিমা খাতুন, জেলা সমবায় ইউনিয়নের সভাপতি অ্যাডভোকেট শেখ নাজমুল হোসেন। প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বিভাগীয় সমবায় কার্যালয়ের যুগ্ম নিবন্ধক মোঃ মিজানুর রহমান। অনুষ্ঠানে জেলা সমবায় কর্মকর্তা সৈয়দ জসীম উদ্দিন, জেলা সমবায় ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মোঃ শাহজাহানসহ সমবায় নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠানে মেয়র শ্রেষ্ঠ চারটি সমবায় সমিতি, দুইজন সমবায় সংগঠক ও একজন শ্রেষ্ঠ সমবায়ীর মধ্যে সম্মাননা ক্রেস্ট বিতরণ করেন। এর আগে মেয়রের নেতৃত্বে নগরীর শহীদ হাদিস পার্ক থেকে বর্ণাঢ্য র‌্যালি শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে জেলা শিল্পকলা একাডেমি প্রাঙ্গণে এসে শেষ হয়। র‌্যালিতে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ অংশ গ্রহণ করেন। খুলনা সমবায় বিভাগ ও জেলা সমবায় ইউনিয়ন যৌথভাবে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

Tag :
লেখক তথ্য সম্পর্কে

Dainik Madhumati

জনপ্রিয়

দেশের কৃষক ও চাষিসহ সাধারন মানুষ সমবায়ের মাধ্যমে স্বাবলম্বী হয়েছে : সিটি মেয়র

প্রকাশিত সময় : ১২:০০:৩২ অপরাহ্ন, রবিবার, ৬ নভেম্বর ২০২২

### খুলনায় জাতীয় সমাবেশ, বর্ণাঢ্য র‌্যালি, আলোচনা সভা, পুরস্কার বিতরণসহ বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে সমবায় দিবস পালিত হয়। দিবসটির এবারের প্রতিপাদ্য ‘বঙ্গবন্ধুর দর্শন, সমবায়ে উন্নয়ন’। শনিবার এ উপলক্ষ্যে খুলনা জেলা শিল্পকলা একাডেমি অডিটোরিয়ামে আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক। এ সময় সিটি মেয়র বলেন, বিশ্বের উন্নত দেশগুলোর মূলমন্ত্র সমবায়ভিত্তিক সমাজ গঠন। উন্নত দেশগুলো সমবায় পদ্ধতি অনুসরণ করে উন্নতি লাভ করেছে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সমবায়কে গণমুখী আন্দোলনে পরিণত করার ডাক দিয়েছিলেন। এছাড়া জাতির পিতা দ্বিতীয় বিপ্লবের ডাক দেন। মেয়র আরও বলেন, অনেক কৃষক ও চাষিরা সমবায়ের মাধ্যমে স্বাবলম্বী হয়েছে। বঙ্গবন্ধু ভূমি ব্যবস্থাপনাকে সংস্কার করেন এবং ২৫ বিঘা পর্যন্ত জমির খাজনা মওকুফ করেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১৯৯৬ সালে ক্ষমতায় আসার পর সমবায়কে গুরুত্ব দিয়ে আসছেন। বর্তমান সরকার ক্ষুধা, দারিদ্র্য, বৈষম্য ও দুর্নীতিমুক্ত সুখী-সমৃদ্ধ উন্নত বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে নানামুখী উন্নয়ন পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। সরকার সমবায়ের মাধ্যমে কৃষি জমি ও অন্যান্য সম্পদের সর্বোত্তম ব্যবহারের মাধ্যমে দেশে কর্মসংস্থান সৃষ্টি, খাদ্য ও পুষ্টি চাহিদা পূরণে কাজ করছে। খুলনা জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগের উপপরিচালক মোঃ ইউসুপ আলী’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন খুলনার অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (সার্বিক) মোঃ আব্দুর রশিদ ও কেএমপি’র অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার তাসলিমা খাতুন, জেলা সমবায় ইউনিয়নের সভাপতি অ্যাডভোকেট শেখ নাজমুল হোসেন। প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বিভাগীয় সমবায় কার্যালয়ের যুগ্ম নিবন্ধক মোঃ মিজানুর রহমান। অনুষ্ঠানে জেলা সমবায় কর্মকর্তা সৈয়দ জসীম উদ্দিন, জেলা সমবায় ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মোঃ শাহজাহানসহ সমবায় নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠানে মেয়র শ্রেষ্ঠ চারটি সমবায় সমিতি, দুইজন সমবায় সংগঠক ও একজন শ্রেষ্ঠ সমবায়ীর মধ্যে সম্মাননা ক্রেস্ট বিতরণ করেন। এর আগে মেয়রের নেতৃত্বে নগরীর শহীদ হাদিস পার্ক থেকে বর্ণাঢ্য র‌্যালি শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে জেলা শিল্পকলা একাডেমি প্রাঙ্গণে এসে শেষ হয়। র‌্যালিতে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ অংশ গ্রহণ করেন। খুলনা সমবায় বিভাগ ও জেলা সমবায় ইউনিয়ন যৌথভাবে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।