০৬:০৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

দেশে ইসলাম চর্চা এবং বিকাশে শেখ হাসিনার অবদান সবচেয়ে বেশী: প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ

  • নিউজ ডেক্স।।
  • প্রকাশিত সময় : ১১:৪১:১২ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩
  • ৫২ পড়েছেন

###    নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, দেশে ইসলাম চর্চা এবং বিকাশে শেখ হাসিনার অবদান সবচেয়ে বেশী। শেখ হাসিনাই কেবল ইসলামের চর্চা ও সুরক্ষায় ভূমিকা রাখতে পারেন। তিনি বলেন, এটা কোন মনগড়া কথা নয়, যে কথাগুলো আমি বললাম তা হলো বাস্তবভিত্তিক কথা। প্রতিমন্ত্রী বৃহস্পতিবার দিনাজপুরের বিরলের ভান্ডারা ইউনিয়নের ভাড়াডাঙ্গী দারুস সুন্নাহ দাখিল মাদ্রাসার নবনির্মিত চারতলা একাডেমিক ভবনের শুভ উদ্বোধনী অনুষ্ঠান ও সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য প্রদানকালে এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, পূর্বে মাদ্রাসা শিক্ষা ব্যবস্থা কিন্তু বর্তমানের মত ছিল না। এই প্রতিষ্ঠানে সুপার সাহেব যখন লেখাপড়া করেছেন, তখন শুধুমাত্র ধর্মীয় বিষয়ে লেখাপড়া করেছেন। ১৯৯৬ সালে যখন আজকের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশ পরিচালনার দায়িত্ব নিয়েছিলেন তখন এই মাদ্রাসার ছাত্ররা পাশ করে এরকম শিক্ষক হতে পারতো না। তারা তখন মসজিদের ইমাম হতো, কিংবা হাফেজ হতো, কিংবা মোয়াজ্জেম হতো বা এতিমখানার দায়িত্ব নিতো। ১৯৯৬ সালে তখন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মাদ্রাসা শিক্ষা ব্যবস্থায় সাধারণ শিক্ষা অন্তর্ভুক্ত করেছিলেন। আজ এর সুফল ভোগ করছে মাদ্রাসার সবাই। প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, একটি শ্রেণী ইসলামের কথা বলে, কিন্তু ইসলামের কোন পরিচর্যা করেনি , কিন্তু তারা ইসলামী শিক্ষা ব্যবস্থার কোন সার্টিফিকেট দেয় নাই। তারা ধর্মের কথা বলে, ইসলামের কথা বলে, কিন্তু ইসলামের জন্য কোন দায়িত্ব পালন করেনি।  মাদ্রাসা শিক্ষা ব্যবস্থার কোন সার্টিফিকেট ছিল না, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড গঠন করেছিলেন। তিনি প্রথম মাদ্রাসা শিক্ষা ব্যবস্থার স্বীকৃতি দিয়েছেন।
মাদ্রাসার সভাপতি ও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মামুনুর রশদি এর সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান ও সূধী সমাবেশে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোছাঃ আফছানা কাওছার, শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী এস এম শাহীনূর ইসলাম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পৌর মেয়র আলহাজ্ব সবুজার সিদ্দিক সাগর, সাধারণ সম্পাদক রমাকান্ত রায়। এর আগে প্রধান অতিথি ফিতা কেটে ও উদ্বোধনী ফলক উন্মোচন করে ভবনটির  উদ্বোধন করেন এবং সকালে বিরল উপজেলা ভূমি অফিস পরিদর্শন করেন।##

Tag :
লেখক তথ্য সম্পর্কে

Dainik adhumati

জনপ্রিয়

মোল্লাহাটে বিয়ের জন্য মেয়েকে পছন্দ না করায় ছেলের ভগ্নিপতিকে হত্যা, আহত ১০

দেশে ইসলাম চর্চা এবং বিকাশে শেখ হাসিনার অবদান সবচেয়ে বেশী: প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ

প্রকাশিত সময় : ১১:৪১:১২ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

###    নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, দেশে ইসলাম চর্চা এবং বিকাশে শেখ হাসিনার অবদান সবচেয়ে বেশী। শেখ হাসিনাই কেবল ইসলামের চর্চা ও সুরক্ষায় ভূমিকা রাখতে পারেন। তিনি বলেন, এটা কোন মনগড়া কথা নয়, যে কথাগুলো আমি বললাম তা হলো বাস্তবভিত্তিক কথা। প্রতিমন্ত্রী বৃহস্পতিবার দিনাজপুরের বিরলের ভান্ডারা ইউনিয়নের ভাড়াডাঙ্গী দারুস সুন্নাহ দাখিল মাদ্রাসার নবনির্মিত চারতলা একাডেমিক ভবনের শুভ উদ্বোধনী অনুষ্ঠান ও সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য প্রদানকালে এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, পূর্বে মাদ্রাসা শিক্ষা ব্যবস্থা কিন্তু বর্তমানের মত ছিল না। এই প্রতিষ্ঠানে সুপার সাহেব যখন লেখাপড়া করেছেন, তখন শুধুমাত্র ধর্মীয় বিষয়ে লেখাপড়া করেছেন। ১৯৯৬ সালে যখন আজকের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশ পরিচালনার দায়িত্ব নিয়েছিলেন তখন এই মাদ্রাসার ছাত্ররা পাশ করে এরকম শিক্ষক হতে পারতো না। তারা তখন মসজিদের ইমাম হতো, কিংবা হাফেজ হতো, কিংবা মোয়াজ্জেম হতো বা এতিমখানার দায়িত্ব নিতো। ১৯৯৬ সালে তখন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মাদ্রাসা শিক্ষা ব্যবস্থায় সাধারণ শিক্ষা অন্তর্ভুক্ত করেছিলেন। আজ এর সুফল ভোগ করছে মাদ্রাসার সবাই। প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, একটি শ্রেণী ইসলামের কথা বলে, কিন্তু ইসলামের কোন পরিচর্যা করেনি , কিন্তু তারা ইসলামী শিক্ষা ব্যবস্থার কোন সার্টিফিকেট দেয় নাই। তারা ধর্মের কথা বলে, ইসলামের কথা বলে, কিন্তু ইসলামের জন্য কোন দায়িত্ব পালন করেনি।  মাদ্রাসা শিক্ষা ব্যবস্থার কোন সার্টিফিকেট ছিল না, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড গঠন করেছিলেন। তিনি প্রথম মাদ্রাসা শিক্ষা ব্যবস্থার স্বীকৃতি দিয়েছেন।
মাদ্রাসার সভাপতি ও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মামুনুর রশদি এর সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান ও সূধী সমাবেশে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোছাঃ আফছানা কাওছার, শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী এস এম শাহীনূর ইসলাম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পৌর মেয়র আলহাজ্ব সবুজার সিদ্দিক সাগর, সাধারণ সম্পাদক রমাকান্ত রায়। এর আগে প্রধান অতিথি ফিতা কেটে ও উদ্বোধনী ফলক উন্মোচন করে ভবনটির  উদ্বোধন করেন এবং সকালে বিরল উপজেলা ভূমি অফিস পরিদর্শন করেন।##