১১:১৪ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ৫ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দৌলতপুরে পাওনা টাকা চাওয়ায় হামলা-বাড়িঘর ভাঙচুর লুট, আহত ২

###    কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার ৪নং মরিচা ইউনিয়নের বৈরাগীর চর রহিমপুর গ্রামে পাওনা টাকা চাওয়াকে কেন্দ্র করে হামলা ভাংচুর করে নগদ অর্থসহ প্রায ৫লাখ টাকার মালা মাল লুট করে নিয়ে গেছে। এই ঘটনায বাড়ির স্বামী স্ত্রী ২জন আহত হয়ে কুষ্টিয়ার জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। আহতর ছেলে নিজে বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছে। পুলিশ ও পরিবার সুত্রে জানা যায়, গত ১৭নভেম্বর উপজেলার মরিচা ইউপির বৈরাগীরচর রহিমপুর গ্রামে হরমত প্রামানিক প্রতিবেশি ইজাজুল হকের নিকট পাওনা টাকা চাইতে গেলে ইজাজুল টাকা দিতে অস্বীকার করে। এ নিয়ে ২জনের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে ক্ষিপ্ত হয়ে ইজাজুল সরদার ও তার ছেলে গিয়াস হোসেন, বিল্পব, শিমুল, সিহাব, সিদ্দিকসহ ১০-১২জন লোহার রোড, লাঠিসোটা নিয়ে হুরমত প্রামানিকের উপর হামলা ও এলোপাতাড়ি কুপিয়ে মারাত্মক জখম করে। এ সময তার স্ত্রী বাধা দিতে আসলে তাঁকে বেধড়ক মার পিট করে আহত করে এবং হুরমতের কাছে থাকা নগদ ১লাখ ২৫হাজার টাকাসহ ঘরে সুকেস ভেঙে ১২আনা স্বর্নের চেন ও দুলসহ প্রায় ৫লাখ টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। এলাকাবাসী আহতদের উদ্ধার করে দৌলতপুর হাসপাতালে পরে তাদের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়া কর্তব্যরত ডাক্তার তাদেরকে কুষ্টিয়ার জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। তারা অসংখ্য জনক অবস্থায় কুষ্টিয়া জেলার হাসপাতালে চিকিৎস্বাধীন রয়েছে। পরে আহতের ছেলে আল আমিন বাদী হয়ে দৌলতপুর থানায় মামলার জন্য লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। দৌলতপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মজিবর রহমান জানান, এ ঘটনায় অভিযোগ পেয়ে নিয়মিত মামলা রেকর্ড করা (নং৪৩ তারিখ-১৮/১১/২২) হয়েছে। এ রিপোর্ট লেখার সময় পর্যন্ত আসামিরা গাঁ ঢাকা দিয়েছে বলে জানা গেছে। ##

Tag :
লেখক তথ্য সম্পর্কে

Dainik Madhumati

জনপ্রিয়

দৌলতপুরে পাওনা টাকা চাওয়ায় হামলা-বাড়িঘর ভাঙচুর লুট, আহত ২

প্রকাশিত সময় : ০১:৩৩:০৬ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৪ নভেম্বর ২০২২

###    কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার ৪নং মরিচা ইউনিয়নের বৈরাগীর চর রহিমপুর গ্রামে পাওনা টাকা চাওয়াকে কেন্দ্র করে হামলা ভাংচুর করে নগদ অর্থসহ প্রায ৫লাখ টাকার মালা মাল লুট করে নিয়ে গেছে। এই ঘটনায বাড়ির স্বামী স্ত্রী ২জন আহত হয়ে কুষ্টিয়ার জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। আহতর ছেলে নিজে বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছে। পুলিশ ও পরিবার সুত্রে জানা যায়, গত ১৭নভেম্বর উপজেলার মরিচা ইউপির বৈরাগীরচর রহিমপুর গ্রামে হরমত প্রামানিক প্রতিবেশি ইজাজুল হকের নিকট পাওনা টাকা চাইতে গেলে ইজাজুল টাকা দিতে অস্বীকার করে। এ নিয়ে ২জনের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে ক্ষিপ্ত হয়ে ইজাজুল সরদার ও তার ছেলে গিয়াস হোসেন, বিল্পব, শিমুল, সিহাব, সিদ্দিকসহ ১০-১২জন লোহার রোড, লাঠিসোটা নিয়ে হুরমত প্রামানিকের উপর হামলা ও এলোপাতাড়ি কুপিয়ে মারাত্মক জখম করে। এ সময তার স্ত্রী বাধা দিতে আসলে তাঁকে বেধড়ক মার পিট করে আহত করে এবং হুরমতের কাছে থাকা নগদ ১লাখ ২৫হাজার টাকাসহ ঘরে সুকেস ভেঙে ১২আনা স্বর্নের চেন ও দুলসহ প্রায় ৫লাখ টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। এলাকাবাসী আহতদের উদ্ধার করে দৌলতপুর হাসপাতালে পরে তাদের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়া কর্তব্যরত ডাক্তার তাদেরকে কুষ্টিয়ার জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। তারা অসংখ্য জনক অবস্থায় কুষ্টিয়া জেলার হাসপাতালে চিকিৎস্বাধীন রয়েছে। পরে আহতের ছেলে আল আমিন বাদী হয়ে দৌলতপুর থানায় মামলার জন্য লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। দৌলতপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মজিবর রহমান জানান, এ ঘটনায় অভিযোগ পেয়ে নিয়মিত মামলা রেকর্ড করা (নং৪৩ তারিখ-১৮/১১/২২) হয়েছে। এ রিপোর্ট লেখার সময় পর্যন্ত আসামিরা গাঁ ঢাকা দিয়েছে বলে জানা গেছে। ##