০৯:৪৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নগরবাসীর সম্মিলিত প্রচেষ্টা ছাড়া স্বাস্থ্য সেবার মানোন্নয়ন সম্ভব নয় : সিটি মেয়র

###   খুলনার সিটি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক বলেছেন, খুলনা মহানগরীর মানুষের নাগরিক সুবিধা বৃদ্ধিতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আন্তরিক। খুলনা নগরীর মানুষের স্বাস্থ্য সেবার মানোন্নয়নে আমরা আন্তরিকভাবে কাজ করে যাচ্ছি। কিন্তু কেসিসির একার পক্ষে সেটা সম্ভব নয়। স্বাস্থ্য সেবার মানোন্নয়নে নগরবাসীর সম্মিলিত প্রচেষ্টা প্রয়োজন। নাগরিকদের সহযোগিতা ছাড়া এ কাজ সফল হবে না। বৃহস্পতিবার সকালে খুলনা নগর ভবনের শহীদ আলতাফ মিলনায়তনে নাগরিক ফোরামের আয়োজনে রূপান্তর ও দ্য এশিয়া ফাউন্ডেশনের সহায়তায় “সুশাসন উন্নয়নে জনসম্পৃক্তকরণ” প্রকল্পের কেসিসির স্বাস্থ্য সেবার মান উন্নয়ন বিষয়ক এক পরামর্শ সভায় তিনি প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। সিটি মেয়র কেসিসির কর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, খুলনা মহানগরীর মানুষের করের টাকায় আপনাদের বেতন হয়। তাদের দুর্ভোগ লাঘব করতে নিজ নিজ দায়িত্ব পালন করবেন। তিনি আরো বলেন, সক্রিয় নাগরিক সম্পৃক্ততার মাধ্যমে স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানে কাজের স্বচ্ছতা, গতিশীলতা ও সংবেদনশীলতা জোরদার হয়। আর এ জন্যেই ব্যক্তিগতভাবে আমি আগেও নাগরিক ফোরামকে বিভিন্নভাবে সহযোগিতা করেছি। ভবিষ্যতেও এই ধারা অব্যাহত থাকবে। নাগরিক ফোরাম খুলনা মহানগরের সদস্য সচিব এ্যাডঃ সেলিনা আক্তার পিয়ার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত এ সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কেসিসির প্যানেল মেয়র মোঃ আমিনুল ইসলাম(মুন্না), মোঃ আলী আকবর টিপু এবং এ্যাড. মেমোরী সুফিয়া রহমান(শুনু), কেসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা লস্কার তাজুল ইসলাম ও রূপান্তরের নির্বাহী পরিচালক স্বপন কুমার গুহ। সভায় বক্তৃতা করেন কেসিসির কাউন্সিলর আশফাকুর রহমান কাকন, মাজেদা খাতুন, রেকসোনা কামাল লিলি, কেসিসি’র প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা স্বপন কুমার হালদার, স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. শরীফ সামিউল আলম, সাংবাদিক হাসান হিমালয়, খলিলুর রহমান সুমন, শহীদুজ্জামান প্রমূখ। স্বাগত বক্তৃতা করেন নাগরিক ফোরাম খুলনার যুগ্ম-আহ্বায়ক হাসান হাফিজুর রহমান। সভায় উপস্থিত ছিলেন নগরীতে স্বাস্থ্য সেবা নিয়ে কাজ করা বেসরকারি প্রতিষ্ঠান সূর্যের হাসি ক্লিনিক ও স্বাস্থ্য নিয়ে কাজ করা এনজিওসমূহের প্রতিনিধিগণ, নাগরিক নেতৃবৃন্দ, কাউন্সিলরবৃন্দ, কেসিসি’র কর্মকর্তাবৃন্দ, নাগরিক নেতা, সাংবাদিকবৃন্দ। অনুষ্ঠানের শুরুতে কেসিসি’র স্বাস্থ্য সেবা বিষয়ে নাগরিক সন্তুষ্টি জরীপের ফলাফল উপস্থাপন করেন নাগরিক ফোরাম খুলনা মহানগরের সদস্য সচিব এ্যাডঃ সেলিনা আক্তার পিয়া। অনুষ্ঠানে জানানো হয়, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা পৃথিবীর পাঁচটি নগরীকে “হেলদি নগরী” হিসেবে গড়ে তুলতে কাজ করছে। তার একটি হচ্ছে খুলনা। দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় খুলনা ছাড়া আর কোন নগরী এই তালিকায় স্থান পায়নি। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এই উদ্যোগ সফল করে তুলতে সবাইকে একযোগে কাজ করার আহ্বান জানানো হয়।##

Tag :
লেখক তথ্য সম্পর্কে

Dainik Madhumati

জনপ্রিয়

মোল্লাহাটে কেন্দ্রে কেন্দ্রে পৌঁছে গেছে নির্বাচনী সরঞ্জাম

নগরবাসীর সম্মিলিত প্রচেষ্টা ছাড়া স্বাস্থ্য সেবার মানোন্নয়ন সম্ভব নয় : সিটি মেয়র

প্রকাশিত সময় : ০৫:২২:২৬ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২

###   খুলনার সিটি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক বলেছেন, খুলনা মহানগরীর মানুষের নাগরিক সুবিধা বৃদ্ধিতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আন্তরিক। খুলনা নগরীর মানুষের স্বাস্থ্য সেবার মানোন্নয়নে আমরা আন্তরিকভাবে কাজ করে যাচ্ছি। কিন্তু কেসিসির একার পক্ষে সেটা সম্ভব নয়। স্বাস্থ্য সেবার মানোন্নয়নে নগরবাসীর সম্মিলিত প্রচেষ্টা প্রয়োজন। নাগরিকদের সহযোগিতা ছাড়া এ কাজ সফল হবে না। বৃহস্পতিবার সকালে খুলনা নগর ভবনের শহীদ আলতাফ মিলনায়তনে নাগরিক ফোরামের আয়োজনে রূপান্তর ও দ্য এশিয়া ফাউন্ডেশনের সহায়তায় “সুশাসন উন্নয়নে জনসম্পৃক্তকরণ” প্রকল্পের কেসিসির স্বাস্থ্য সেবার মান উন্নয়ন বিষয়ক এক পরামর্শ সভায় তিনি প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। সিটি মেয়র কেসিসির কর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, খুলনা মহানগরীর মানুষের করের টাকায় আপনাদের বেতন হয়। তাদের দুর্ভোগ লাঘব করতে নিজ নিজ দায়িত্ব পালন করবেন। তিনি আরো বলেন, সক্রিয় নাগরিক সম্পৃক্ততার মাধ্যমে স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানে কাজের স্বচ্ছতা, গতিশীলতা ও সংবেদনশীলতা জোরদার হয়। আর এ জন্যেই ব্যক্তিগতভাবে আমি আগেও নাগরিক ফোরামকে বিভিন্নভাবে সহযোগিতা করেছি। ভবিষ্যতেও এই ধারা অব্যাহত থাকবে। নাগরিক ফোরাম খুলনা মহানগরের সদস্য সচিব এ্যাডঃ সেলিনা আক্তার পিয়ার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত এ সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কেসিসির প্যানেল মেয়র মোঃ আমিনুল ইসলাম(মুন্না), মোঃ আলী আকবর টিপু এবং এ্যাড. মেমোরী সুফিয়া রহমান(শুনু), কেসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা লস্কার তাজুল ইসলাম ও রূপান্তরের নির্বাহী পরিচালক স্বপন কুমার গুহ। সভায় বক্তৃতা করেন কেসিসির কাউন্সিলর আশফাকুর রহমান কাকন, মাজেদা খাতুন, রেকসোনা কামাল লিলি, কেসিসি’র প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা স্বপন কুমার হালদার, স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. শরীফ সামিউল আলম, সাংবাদিক হাসান হিমালয়, খলিলুর রহমান সুমন, শহীদুজ্জামান প্রমূখ। স্বাগত বক্তৃতা করেন নাগরিক ফোরাম খুলনার যুগ্ম-আহ্বায়ক হাসান হাফিজুর রহমান। সভায় উপস্থিত ছিলেন নগরীতে স্বাস্থ্য সেবা নিয়ে কাজ করা বেসরকারি প্রতিষ্ঠান সূর্যের হাসি ক্লিনিক ও স্বাস্থ্য নিয়ে কাজ করা এনজিওসমূহের প্রতিনিধিগণ, নাগরিক নেতৃবৃন্দ, কাউন্সিলরবৃন্দ, কেসিসি’র কর্মকর্তাবৃন্দ, নাগরিক নেতা, সাংবাদিকবৃন্দ। অনুষ্ঠানের শুরুতে কেসিসি’র স্বাস্থ্য সেবা বিষয়ে নাগরিক সন্তুষ্টি জরীপের ফলাফল উপস্থাপন করেন নাগরিক ফোরাম খুলনা মহানগরের সদস্য সচিব এ্যাডঃ সেলিনা আক্তার পিয়া। অনুষ্ঠানে জানানো হয়, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা পৃথিবীর পাঁচটি নগরীকে “হেলদি নগরী” হিসেবে গড়ে তুলতে কাজ করছে। তার একটি হচ্ছে খুলনা। দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় খুলনা ছাড়া আর কোন নগরী এই তালিকায় স্থান পায়নি। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এই উদ্যোগ সফল করে তুলতে সবাইকে একযোগে কাজ করার আহ্বান জানানো হয়।##