০৯:৩২ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নগরীর খানজাহান আলীতে পুলিশ সদস্যের স্ত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

  • সংবাদদাতা
  • প্রকাশিত সময় : ০২:২২:১৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২২
  • ৪৭ পড়েছেন

###   খুলনা নগরীর খানজাহান আলী থানা এলাকায় পুলিশ সদস্যের স্ত্রী মাহমুদা খাতুন টুম্পার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার রাত ১০টার দিকে নগরীর খানজাহান আলী থানার ৪নং যোগীপোল এলাকার ভাড়াবাড়ি থেকে তার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়। সে খুলনা কোর্ট-এর্ দায়িত্বরত পুলিশ সদস্য শাকিল আহমেদের স্ত্রী।খানজাহান আলী থানার অফিসার ইনচার্জা কামাল হোসেন খান জানান, মাহমুদা খাতুন ও শাকিল দম্পতি যোগীপোল ৪নং ওয়ার্ড-এ স্বপন কুমার রাহার বাড়ির ভাড়াটিয়া হিসেবে বসবাস করেন। শাকিল খুলনায় কোর্ট পুলিশের সদস্য হিসেবে কর্মরত রয়েছেন। দুপুরের খাবার খেয়ে ডিউটির জন্য খুলনায় চলে আসেন। রাত সাড়ে ৯টার দিকে যোগীপোল এলাকার ওই ভাড়াবাড়িতে পৌছান তিনি। রাতে বাড়িতে ফিরে এসে বাইরে থেকে দরজা বন্ধ দেখে ডাকাডাকি করতে থাকেন। পরে বাড়ির মালিককে ডেকে এনে দরজা ভেঙ্গে স্ত্রীর ঝুলন্ত লাশ দেখতে পেয়ে চিৎকার করতে থাকে। পরে পুলিশকে খবর দিলে তারা এসে লাশটি নামায়। তিনি আরও বলেন, দাম্পত্য জীবনে পুলিশ সদস্য শাকিল দু’সন্তানের জনক। বড় মেয়ে স্থানীয় একটি স্কুলের সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী। ছোট বাচ্চার বয়স আড়াই বছর। বাচ্চা দু’টিকে অন্য একটি কক্ষে আটক রেখে আত্মহত্যা করেন টুম্পা। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে তিনি আত্মহত্যা করছেন। তবে কী কারণে তিনি আত্মহত্যা করছেন তা জানা যায়নি। পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে ঝুলন্ত লাশ নামিয়ে সুরাতহাল রির্পোট তৈরি করে ময়না তদন্তের জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেছে। ময়নাতদন্তের রির্পোট পাওয়া গেলে প্রকৃত ঘটনা জানা যাবে বলে তিনি জানান।##

Tag :
লেখক তথ্য সম্পর্কে

Dainik Madhumati

জনপ্রিয়

ঘূর্ণিঝড় রেমালের প্রভাবে গলাচিপায় বেড়েছে বাতাস ও নদীর পানি

নগরীর খানজাহান আলীতে পুলিশ সদস্যের স্ত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

প্রকাশিত সময় : ০২:২২:১৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২২

###   খুলনা নগরীর খানজাহান আলী থানা এলাকায় পুলিশ সদস্যের স্ত্রী মাহমুদা খাতুন টুম্পার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার রাত ১০টার দিকে নগরীর খানজাহান আলী থানার ৪নং যোগীপোল এলাকার ভাড়াবাড়ি থেকে তার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়। সে খুলনা কোর্ট-এর্ দায়িত্বরত পুলিশ সদস্য শাকিল আহমেদের স্ত্রী।খানজাহান আলী থানার অফিসার ইনচার্জা কামাল হোসেন খান জানান, মাহমুদা খাতুন ও শাকিল দম্পতি যোগীপোল ৪নং ওয়ার্ড-এ স্বপন কুমার রাহার বাড়ির ভাড়াটিয়া হিসেবে বসবাস করেন। শাকিল খুলনায় কোর্ট পুলিশের সদস্য হিসেবে কর্মরত রয়েছেন। দুপুরের খাবার খেয়ে ডিউটির জন্য খুলনায় চলে আসেন। রাত সাড়ে ৯টার দিকে যোগীপোল এলাকার ওই ভাড়াবাড়িতে পৌছান তিনি। রাতে বাড়িতে ফিরে এসে বাইরে থেকে দরজা বন্ধ দেখে ডাকাডাকি করতে থাকেন। পরে বাড়ির মালিককে ডেকে এনে দরজা ভেঙ্গে স্ত্রীর ঝুলন্ত লাশ দেখতে পেয়ে চিৎকার করতে থাকে। পরে পুলিশকে খবর দিলে তারা এসে লাশটি নামায়। তিনি আরও বলেন, দাম্পত্য জীবনে পুলিশ সদস্য শাকিল দু’সন্তানের জনক। বড় মেয়ে স্থানীয় একটি স্কুলের সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী। ছোট বাচ্চার বয়স আড়াই বছর। বাচ্চা দু’টিকে অন্য একটি কক্ষে আটক রেখে আত্মহত্যা করেন টুম্পা। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে তিনি আত্মহত্যা করছেন। তবে কী কারণে তিনি আত্মহত্যা করছেন তা জানা যায়নি। পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে ঝুলন্ত লাশ নামিয়ে সুরাতহাল রির্পোট তৈরি করে ময়না তদন্তের জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেছে। ময়নাতদন্তের রির্পোট পাওয়া গেলে প্রকৃত ঘটনা জানা যাবে বলে তিনি জানান।##