০৬:৪২ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নবীন চারু শিল্পীদের স্বপ্ন পূরণের লক্ষ্যে যাত্রা শুরু খুলনা আর্ট একাডেমির

###    খুলনা নগরীর শেরে বাংলা রোডে অবস্থিত খুলনা আর্ট একাডেমি ২০১০সাল থেকে নবীন শিক্ষার্থীদের জীবনে আলোর সন্ধান দিতে নিজে জীবনের সাথে সংগ্রাম করে শিল্পী গড়ার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।চিত্রশিল্পী মিলন বিশ্বাস নবীনদের চারুকলায় অনার্স পড়ার প্রশিক্ষণ দেন।চলতি বছর ১৩তম ব্যাচের নবীনদের নিয়ে যাত্রা শুরু হয়। এসময় উপস্থিত উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ডিবেটিং এর পরিচালক এএইচএম জামাল উদ্দিন ও পরিমল কুমার বৈরাগী, সহকারি পরিচালক শিলা বিশ্বাস ও পরিচালক মিলন বিশ্বাস, ইংরেজি শিক্ষক সবিনয় মন্ডল, নারায়ণগঞ্জ থেকে আগত শিল্পী শিব শংকর মন্ডল,জয়া বৈরাগী, শম্পা মুনী,পার্থ হালদার,রিপন ঢালী, সৌহার্দ্য বিশ্বাস, সম্প্রীতি বিশ্বাস প্রমুখ।

অনুষ্টানে প্রতিষ্টাতা মিলন বিশ্বাস জানান, খুলনা আর্ট একাডেমি বাংলাদেশের সকল চারুকলায় সফলতার ধারাবাহিকতার  সুনাম ছড়িয়েছে। তখন শিল্পচর্চা করার প্রতিষ্ঠানটি বন্ধ হয়ে যাবে এমন কথা চিন্তা করে বাবার সম্পত্তি বিক্রি করে প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করে আসছেন। এখনো হাল ছাড়েননি। চিত্রশিল্পী মিলন বিশ্বাস খুলনা আর্ট একাডেমির প্রাঙ্গনে নবীনদের সামনে চারুকলার সম্পর্কে জানান, চারুকলায় পড়লে কোন বিষয় নিয়ে পড়তে হয় ড্রয়িং এন্ড পেইন্টিং,ভাস্কর্য, প্রাচ্যকলা ,মৃত শিল্প,ক্রাফট,শিল্পকলা, ফ্যাশন ডিজাইন, গ্রাফিক্স ডিজাইন,ইতিহাস সহ বেশ কিছু সাবজেক্ট রয়েছে। যুগের পরিবর্তনের সাথে সাথে চারুকলার কর্মক্ষেত্রের কতটা বিস্তার ঘটছে তা আমাদের অধিকাংশের ধারনার বাইরে।সরকারি বেসরকারি সকল পর্যায়ে চারুকলার ব্যাপক চাহিদা বর্তমান যুগে। আজকের যুগে একজন আর্টিস্ট, গ্রাফিক্স ডিজাইনার,ফ্যাশন ডিজাইনার, ইন্টেরিও আর্কিটেক্ট ইত্যাদি ছাড়া কোনো প্রতিষ্ঠানের কথা কল্পনা করা যায় না। শিক্ষা ক্ষেত্রে জীবনে ক্যারিয়ার গড়তে নেই কোন বাধা।বিসিএস (সাধারণ ক্যাডার) ভুক্ত যেকোন পদে। যেমন: প্রশাসন, পুলিশ, ট্যাক্স, কাস্টমস প্রভৃতি, বিসিএস(সাধারণ শিক্ষা)-বর্তমানে চারুকলার শিক্ষার্থীদের টেলিভিশন মিডিয়া, অ্যাড ফার্ম, সংবাদপত্র, প্রোডাক্ট ডিজাইন, ফ্যাশন হাউস, অ্যানিমেশন ও গেম তৈরির প্রতিষ্ঠান, ইন্টেরিয়র ডিজাইন, সিরামিক শিল্প ইত্যাদি ছাড়াও ফ্রিল্যান্সার হিসেবে কাজ করার বহু সুযোগ আছে।বিভিন্ন চাকরিতে চারুকলার স্টুডেন্টদের ব্যাপক চাহিদা এবং ক্যারিয়ার গঠনের বিস্তর সুযোগের কারনে দিনদিন চারুকলা শিক্ষার চাহিদা বাড়ছে। চারুকলা ইনস্টিটিউট এর যেকোন বিষয়ে অনার্স-মাস্টার্স  শেষে ক্যারিয়ার গঠনের উজ্জ্বল সম্ভাবনা রয়েছে। এছাড়া দেশের বাইরে অন্যান্য ক্রিয়েটিভ সাবজেক্ট এর মত চারুকলা ব্যাপক সমাদৃত। বিভিন্ন দেশে চারুকলায় উচ্চশিক্ষার ব্যাপাক সুযোগ। সব ধরনের সাধারণ চাকরিতে যেমন চারুকলার ছাত্রদের সুযোগ রয়েছে এছাড়া চারুকলার স্পেশাল চাকরির ক্ষেত্র রয়েছে চারুকলা থেকে পাস করে সরকারি যেসব দপ্তরে চাকরি করতে পারেন। খুলনা আর্ট একাডেমির একাধিক শিক্ষার্থী সরকারি হাই স্কুলে এবং পিটিআই ট্রেনিং সেন্টারে চারুকারু বিষয়ে শিক্ষক হিসেবে চাকরি পেয়েছেন। বাংলাদেশ ভারতে ২শতর ঊর্ধ্বে পড়াশোনার সুযোগ পেয়েছে। এতে আমরা অত্যন্ত গর্বিত। ইতিমধ্যেই মিলন বিশ্বাস আইন ও অধিকার বাস্তবায়ন ফোরাম খুলনার সম্মাননা,বঙ্গবন্ধু সাহিত্য একাডেমী বঙ্গকথা সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন খুলনা, মিউজিক ক্লাব এরকম একাধিক প্রতিষ্ঠান থেকে চিত্রশিল্পী মিলন বিশ্বাসকে শিল্পী গড়ার কারিগর হিসাবে অ্যাওয়ার্ড প্রদান করেন। অনুষ্টানে প্রধান অতিথি এএইচএম জামাল উদ্দিন নবীনদের উদ্দেশ্যে মূল্যবান বক্তব্য রাখেন।##

Tag :
লেখক তথ্য সম্পর্কে

Dainik Madhumati

জনপ্রিয়

দেবহাটা রিপোর্টার্স ক্লাবের বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত 

নবীন চারু শিল্পীদের স্বপ্ন পূরণের লক্ষ্যে যাত্রা শুরু খুলনা আর্ট একাডেমির

প্রকাশিত সময় : ০১:০৭:০৯ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ৪ জানুয়ারী ২০২৩

###    খুলনা নগরীর শেরে বাংলা রোডে অবস্থিত খুলনা আর্ট একাডেমি ২০১০সাল থেকে নবীন শিক্ষার্থীদের জীবনে আলোর সন্ধান দিতে নিজে জীবনের সাথে সংগ্রাম করে শিল্পী গড়ার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।চিত্রশিল্পী মিলন বিশ্বাস নবীনদের চারুকলায় অনার্স পড়ার প্রশিক্ষণ দেন।চলতি বছর ১৩তম ব্যাচের নবীনদের নিয়ে যাত্রা শুরু হয়। এসময় উপস্থিত উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ডিবেটিং এর পরিচালক এএইচএম জামাল উদ্দিন ও পরিমল কুমার বৈরাগী, সহকারি পরিচালক শিলা বিশ্বাস ও পরিচালক মিলন বিশ্বাস, ইংরেজি শিক্ষক সবিনয় মন্ডল, নারায়ণগঞ্জ থেকে আগত শিল্পী শিব শংকর মন্ডল,জয়া বৈরাগী, শম্পা মুনী,পার্থ হালদার,রিপন ঢালী, সৌহার্দ্য বিশ্বাস, সম্প্রীতি বিশ্বাস প্রমুখ।

অনুষ্টানে প্রতিষ্টাতা মিলন বিশ্বাস জানান, খুলনা আর্ট একাডেমি বাংলাদেশের সকল চারুকলায় সফলতার ধারাবাহিকতার  সুনাম ছড়িয়েছে। তখন শিল্পচর্চা করার প্রতিষ্ঠানটি বন্ধ হয়ে যাবে এমন কথা চিন্তা করে বাবার সম্পত্তি বিক্রি করে প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করে আসছেন। এখনো হাল ছাড়েননি। চিত্রশিল্পী মিলন বিশ্বাস খুলনা আর্ট একাডেমির প্রাঙ্গনে নবীনদের সামনে চারুকলার সম্পর্কে জানান, চারুকলায় পড়লে কোন বিষয় নিয়ে পড়তে হয় ড্রয়িং এন্ড পেইন্টিং,ভাস্কর্য, প্রাচ্যকলা ,মৃত শিল্প,ক্রাফট,শিল্পকলা, ফ্যাশন ডিজাইন, গ্রাফিক্স ডিজাইন,ইতিহাস সহ বেশ কিছু সাবজেক্ট রয়েছে। যুগের পরিবর্তনের সাথে সাথে চারুকলার কর্মক্ষেত্রের কতটা বিস্তার ঘটছে তা আমাদের অধিকাংশের ধারনার বাইরে।সরকারি বেসরকারি সকল পর্যায়ে চারুকলার ব্যাপক চাহিদা বর্তমান যুগে। আজকের যুগে একজন আর্টিস্ট, গ্রাফিক্স ডিজাইনার,ফ্যাশন ডিজাইনার, ইন্টেরিও আর্কিটেক্ট ইত্যাদি ছাড়া কোনো প্রতিষ্ঠানের কথা কল্পনা করা যায় না। শিক্ষা ক্ষেত্রে জীবনে ক্যারিয়ার গড়তে নেই কোন বাধা।বিসিএস (সাধারণ ক্যাডার) ভুক্ত যেকোন পদে। যেমন: প্রশাসন, পুলিশ, ট্যাক্স, কাস্টমস প্রভৃতি, বিসিএস(সাধারণ শিক্ষা)-বর্তমানে চারুকলার শিক্ষার্থীদের টেলিভিশন মিডিয়া, অ্যাড ফার্ম, সংবাদপত্র, প্রোডাক্ট ডিজাইন, ফ্যাশন হাউস, অ্যানিমেশন ও গেম তৈরির প্রতিষ্ঠান, ইন্টেরিয়র ডিজাইন, সিরামিক শিল্প ইত্যাদি ছাড়াও ফ্রিল্যান্সার হিসেবে কাজ করার বহু সুযোগ আছে।বিভিন্ন চাকরিতে চারুকলার স্টুডেন্টদের ব্যাপক চাহিদা এবং ক্যারিয়ার গঠনের বিস্তর সুযোগের কারনে দিনদিন চারুকলা শিক্ষার চাহিদা বাড়ছে। চারুকলা ইনস্টিটিউট এর যেকোন বিষয়ে অনার্স-মাস্টার্স  শেষে ক্যারিয়ার গঠনের উজ্জ্বল সম্ভাবনা রয়েছে। এছাড়া দেশের বাইরে অন্যান্য ক্রিয়েটিভ সাবজেক্ট এর মত চারুকলা ব্যাপক সমাদৃত। বিভিন্ন দেশে চারুকলায় উচ্চশিক্ষার ব্যাপাক সুযোগ। সব ধরনের সাধারণ চাকরিতে যেমন চারুকলার ছাত্রদের সুযোগ রয়েছে এছাড়া চারুকলার স্পেশাল চাকরির ক্ষেত্র রয়েছে চারুকলা থেকে পাস করে সরকারি যেসব দপ্তরে চাকরি করতে পারেন। খুলনা আর্ট একাডেমির একাধিক শিক্ষার্থী সরকারি হাই স্কুলে এবং পিটিআই ট্রেনিং সেন্টারে চারুকারু বিষয়ে শিক্ষক হিসেবে চাকরি পেয়েছেন। বাংলাদেশ ভারতে ২শতর ঊর্ধ্বে পড়াশোনার সুযোগ পেয়েছে। এতে আমরা অত্যন্ত গর্বিত। ইতিমধ্যেই মিলন বিশ্বাস আইন ও অধিকার বাস্তবায়ন ফোরাম খুলনার সম্মাননা,বঙ্গবন্ধু সাহিত্য একাডেমী বঙ্গকথা সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন খুলনা, মিউজিক ক্লাব এরকম একাধিক প্রতিষ্ঠান থেকে চিত্রশিল্পী মিলন বিশ্বাসকে শিল্পী গড়ার কারিগর হিসাবে অ্যাওয়ার্ড প্রদান করেন। অনুষ্টানে প্রধান অতিথি এএইচএম জামাল উদ্দিন নবীনদের উদ্দেশ্যে মূল্যবান বক্তব্য রাখেন।##