১০:৪১ অপরাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

প্রাথমিক শিক্ষার মানোন্নয়নে শিক্ষক ও অভিভাবকদের মধ্যে সুসম্পর্ক গড়ে তুলতে হবে : প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিব

###   প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মোঃ আমিনুল ইসলাম খান বলেছেন, শিশুর চিরন্তন স্বভাব গঠনে মায়ের ভূমিকা সবচেয়ে বেশি। মা-ই শিশুকে উন্নত জীবনের স্বপ্ন দেখাতে পারেন। শিশুকে সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তোলার জন্য মানসম্মত শিক্ষার বিকল্প নেই। এজন্য শিক্ষকের পাশাপাশি মায়েদের মূখ্য ভূমিকা পালন করতে হবে। পুঁথিগত শিক্ষার সাথে সাথে শিশুর নৈতিকতা এবং মূল্যবোধ গঠনে মায়েদের নজর দিতে হবে। শিক্ষকদের নিজের ওপর অর্পিত দায়িত্ব নিষ্ঠার সাথে পালন করতে হবে। শিক্ষক এবং অভিভাবকদের মধ্যে সুসম্পর্ক গড়ে তুলতে হবে। তাহলেই প্রাথমিক শিক্ষার মান উন্নত হবে। শিক্ষার মান উন্নয়নের জন্য হটলাইন সেবা চালু করা হবে। এ সময় শিশুদের জন্য মিড-ডে-মিল আবার চালু করার বিষয়ে আশাবাদ ব্যক্ত করেন সিনিয়র সচিব।

রবিবার দুপুরে খুলনা জেলা শিল্পকলা একাডেমি অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত মানসম্মত প্রাথমিক শিক্ষা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে সামাজিক উদ্বুদ্ধকরণের অংশ হিসেবে মা সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।

খুলনা জেলার ছয়টি উপজেলা থেকে আগত ৫০০জন মা উপস্থিত হয়ে প্রাথমিক শিক্ষার মান নিয়ে সংশ্লিষ্টদের সাথে উন্মুক্ত আলোচনায় অংশ নেন। খুলনার জেলা প্রশাসক মোঃ মনিরুজ্জামান তালুদকার অনুষ্ঠানে সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক শাহ রেজওয়ান হায়াত, অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (সার্বিক) মোঃ আব্দুর রশিদ, প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের পরিচালক(অর্থ) এসএম আনছারুজ্জামান ও প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের খুলনা বিভাগীয় উপপরিচালক মোঃ মোসলেম উদ্দিন।এর আগে সিনিয়র সচিব খুলনা বিভাগীয় প্রাথমিক শিক্ষা কার্যালয়ের নতুন ভবন ও খুলনা জেলার কস্ট সেন্টারসমূহের বাজেট প্রস্তুত এবং বাস্তবায়ন বিষয়ক দিনব্যাপী প্রশিক্ষণের উদ্বোধন করেন। ##

Tag :
লেখক তথ্য সম্পর্কে

Dainik Madhumati

জনপ্রিয়

মোল্লাহাটে কেন্দ্রে কেন্দ্রে পৌঁছে গেছে নির্বাচনী সরঞ্জাম

প্রাথমিক শিক্ষার মানোন্নয়নে শিক্ষক ও অভিভাবকদের মধ্যে সুসম্পর্ক গড়ে তুলতে হবে : প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিব

প্রকাশিত সময় : ০১:২২:৪৯ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৪ অক্টোবর ২০২২

###   প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মোঃ আমিনুল ইসলাম খান বলেছেন, শিশুর চিরন্তন স্বভাব গঠনে মায়ের ভূমিকা সবচেয়ে বেশি। মা-ই শিশুকে উন্নত জীবনের স্বপ্ন দেখাতে পারেন। শিশুকে সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তোলার জন্য মানসম্মত শিক্ষার বিকল্প নেই। এজন্য শিক্ষকের পাশাপাশি মায়েদের মূখ্য ভূমিকা পালন করতে হবে। পুঁথিগত শিক্ষার সাথে সাথে শিশুর নৈতিকতা এবং মূল্যবোধ গঠনে মায়েদের নজর দিতে হবে। শিক্ষকদের নিজের ওপর অর্পিত দায়িত্ব নিষ্ঠার সাথে পালন করতে হবে। শিক্ষক এবং অভিভাবকদের মধ্যে সুসম্পর্ক গড়ে তুলতে হবে। তাহলেই প্রাথমিক শিক্ষার মান উন্নত হবে। শিক্ষার মান উন্নয়নের জন্য হটলাইন সেবা চালু করা হবে। এ সময় শিশুদের জন্য মিড-ডে-মিল আবার চালু করার বিষয়ে আশাবাদ ব্যক্ত করেন সিনিয়র সচিব।

রবিবার দুপুরে খুলনা জেলা শিল্পকলা একাডেমি অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত মানসম্মত প্রাথমিক শিক্ষা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে সামাজিক উদ্বুদ্ধকরণের অংশ হিসেবে মা সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।

খুলনা জেলার ছয়টি উপজেলা থেকে আগত ৫০০জন মা উপস্থিত হয়ে প্রাথমিক শিক্ষার মান নিয়ে সংশ্লিষ্টদের সাথে উন্মুক্ত আলোচনায় অংশ নেন। খুলনার জেলা প্রশাসক মোঃ মনিরুজ্জামান তালুদকার অনুষ্ঠানে সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক শাহ রেজওয়ান হায়াত, অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (সার্বিক) মোঃ আব্দুর রশিদ, প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের পরিচালক(অর্থ) এসএম আনছারুজ্জামান ও প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের খুলনা বিভাগীয় উপপরিচালক মোঃ মোসলেম উদ্দিন।এর আগে সিনিয়র সচিব খুলনা বিভাগীয় প্রাথমিক শিক্ষা কার্যালয়ের নতুন ভবন ও খুলনা জেলার কস্ট সেন্টারসমূহের বাজেট প্রস্তুত এবং বাস্তবায়ন বিষয়ক দিনব্যাপী প্রশিক্ষণের উদ্বোধন করেন। ##