০৯:১৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বাকেরগঞ্জের কলসকাঠী ইউপি চেয়ারম্যান আওয়ামীলীগ নেতা মুন্না তালুকদারসহ ৬জনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারী পরোয়ানা

###   বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলার কলসকাঠী ইউপি চেয়ারম্যান আওয়ামীলীগ নেতা মোঃ ফয়সাল ওয়াহিদ মুন্না তালুকদারসহ ৬জনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। মঙ্গলবার (১২অক্টোবর) বরিশালের অতিরিক্ত চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলী আদালতের বিচারক জহির উদ্দিন তিনিসহ ৬জনের বিরুদ্ধে এ আদেশ জারি করেন। আদালত সুত্র জানায়, ২০২১সালের মার্চ মাসে উপজেলার কলসকাঠী ইউনিয়নের উপ-নির্বাচনকালীন আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী মোঃ ফয়সাল ওয়াহিদ মুন্না তালুকদারের নেতৃত্বে তার প্রতিদ্বন্দ্বি স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী ওয়াদুদ খন্দকার টিটুর নারাঙ্গল গ্রামের বাড়িতে ও মসজিদে হামলা ও ভাঙচুর করা হয়। এ ঘটনায় তার চাচাতো ভাই মোঃ হেলাল খন্দকার বাদী হয়ে ১০জনের নামোল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা ১০-১২জনকে আসামী করে বাকেরগঞ্জ থানায় ২৩মার্চ একটি মামলা দায়ের করেন।

এ মামলায় তদন্ত কর্মকর্তা অভিযুক্ত ৯জনকে অব্যাহতি দিয়ে আদালতে চূড়ান্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন।মামলার বাদি মোঃ হেলাল খন্দকার এ প্রতিবেদনের বিরুদ্ধে আদালতে নারাজি দাখিল করলে বিজ্ঞ বিচারক মামলাটি পুনঃতদন্তের জন্য জেলা পিবিআইকে নির্দেশ দেয়। বরিশাল জেলা পিবিআইর উপ-পুলিশ পরিদর্শক প্রলয় কান্তি দাস অধিকতর তদন্ত শেষে ১অক্টোবর হামলা ও ভাংচুরের হুকুমদাতা ফয়সাল ওয়াহিদ মুন্না তালুকদারসহ আরও ৬জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন।বুধবার মামলার  তারিখ ধার্য ছিল। প্রতিবেদনে উল্লেখিত অভিযুক্তরা আদালতে উপস্থিত না থাকায় বরিশাল অতিরিক্ত চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলী আদালতের বিচারক জহির উদ্দিন প্রতিবেদনটি আমলে নিয়ে কলসকাঠী ইউপি চেয়ারম্যান ফয়সাল ওয়াহিদ মুন্না তালুকদারসহ ৬আসামীর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারী পরোয়ানা জারী করেন। আদালতের জিআরও জাকির হোসেন জানান, কলসকাঠীর হেলাল খন্দকারের মামলায় বিজ্ঞ বিচারক ফয়সাল ওয়াহিদ মুন্না তালুকদারসহ ৬জনের নামে গ্রেপ্তারী পরোয়ানা জারী করেছেন।##

Tag :
লেখক তথ্য সম্পর্কে

Dainik Madhumati

জনপ্রিয়

ঘূর্ণিঝড় রেমালের প্রভাবে গলাচিপায় বেড়েছে বাতাস ও নদীর পানি

বাকেরগঞ্জের কলসকাঠী ইউপি চেয়ারম্যান আওয়ামীলীগ নেতা মুন্না তালুকদারসহ ৬জনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারী পরোয়ানা

প্রকাশিত সময় : ০৩:১২:০৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ১২ অক্টোবর ২০২২

###   বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলার কলসকাঠী ইউপি চেয়ারম্যান আওয়ামীলীগ নেতা মোঃ ফয়সাল ওয়াহিদ মুন্না তালুকদারসহ ৬জনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। মঙ্গলবার (১২অক্টোবর) বরিশালের অতিরিক্ত চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলী আদালতের বিচারক জহির উদ্দিন তিনিসহ ৬জনের বিরুদ্ধে এ আদেশ জারি করেন। আদালত সুত্র জানায়, ২০২১সালের মার্চ মাসে উপজেলার কলসকাঠী ইউনিয়নের উপ-নির্বাচনকালীন আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী মোঃ ফয়সাল ওয়াহিদ মুন্না তালুকদারের নেতৃত্বে তার প্রতিদ্বন্দ্বি স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী ওয়াদুদ খন্দকার টিটুর নারাঙ্গল গ্রামের বাড়িতে ও মসজিদে হামলা ও ভাঙচুর করা হয়। এ ঘটনায় তার চাচাতো ভাই মোঃ হেলাল খন্দকার বাদী হয়ে ১০জনের নামোল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা ১০-১২জনকে আসামী করে বাকেরগঞ্জ থানায় ২৩মার্চ একটি মামলা দায়ের করেন।

এ মামলায় তদন্ত কর্মকর্তা অভিযুক্ত ৯জনকে অব্যাহতি দিয়ে আদালতে চূড়ান্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন।মামলার বাদি মোঃ হেলাল খন্দকার এ প্রতিবেদনের বিরুদ্ধে আদালতে নারাজি দাখিল করলে বিজ্ঞ বিচারক মামলাটি পুনঃতদন্তের জন্য জেলা পিবিআইকে নির্দেশ দেয়। বরিশাল জেলা পিবিআইর উপ-পুলিশ পরিদর্শক প্রলয় কান্তি দাস অধিকতর তদন্ত শেষে ১অক্টোবর হামলা ও ভাংচুরের হুকুমদাতা ফয়সাল ওয়াহিদ মুন্না তালুকদারসহ আরও ৬জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন।বুধবার মামলার  তারিখ ধার্য ছিল। প্রতিবেদনে উল্লেখিত অভিযুক্তরা আদালতে উপস্থিত না থাকায় বরিশাল অতিরিক্ত চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলী আদালতের বিচারক জহির উদ্দিন প্রতিবেদনটি আমলে নিয়ে কলসকাঠী ইউপি চেয়ারম্যান ফয়সাল ওয়াহিদ মুন্না তালুকদারসহ ৬আসামীর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারী পরোয়ানা জারী করেন। আদালতের জিআরও জাকির হোসেন জানান, কলসকাঠীর হেলাল খন্দকারের মামলায় বিজ্ঞ বিচারক ফয়সাল ওয়াহিদ মুন্না তালুকদারসহ ৬জনের নামে গ্রেপ্তারী পরোয়ানা জারী করেছেন।##