০৯:৪০ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বাঘায় মসজিদে ঢুকে ব্যাংকারকে হত্যা চেষ্টা মামলার আসামী আটক

###   রাজশাহীর বাঘায় পূর্ব শত্রুতার জেরে মসজিদের ভিতরে ঢুকে ব্যাংকার আবু ফজল মোঃ সিদ্দিককে ছুরিকাঘাত করে হত্যা চেষ্টার ঘটনার আসামী মনিরুল ইসলাম জমজম(৪৪)কে আটক করেছে পুলিশ।শুক্রবার(৭অক্টোবর) সকালে নিজ বাড়ী থেকে আটক করা হয়।আটক মনিরুল জমজম উত্তর কলিগ্রামের আয়েজ উদ্দিনের ছেলে। স্থানীয়রা জানান, উপজেলার উত্তর কলিকগ্রাম এলাকার মনিরুল ইসলাম কয়েক বছর পূর্বে তার পিতা আয়েজ উদ্দিনকে নিজে হত্যা করে। এ মামলায় প্রত্যক্ষ সাক্ষী হন একই এলাকার মরহুম মুক্তযোদ্ধা আবুল হোসেনের মাষ্টারের ছেলে আবু বাশার মোঃ সিদ্দিক। পরবর্তিতে পারিবারিকভাবে মামলাটি আপোশ-মীমাংসা করায় সে জেল থেকে ছাড়া পায়।

বৃহস্পতিবার(৬অক্টোবর)উপজেলার উত্তর কলিগ্রাম জামে মসজিদে মাগরিব নামাজের সময় ফরজ নামাজ আদায়ের সময় একই এলাকার ব্যাংকার আবু ফজল মোঃ সিদ্দিককে ছুরিকাঘাত করে মনিরুল ইসলাম জমজম।স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে বাঘা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়ে দেয়।আহত আবুল ফজল মোঃসিদ্দিক একই গ্রামের বাসিন্দা ও অগ্রণী ব্যাংক বাঘা শাখায় কর্মরত। এ ঘটনায় আহতের ভাই আবু বাশার মোঃসিদ্দিক বাদি হয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।

আহতের ভাই আবু বাশার মোঃ সিদ্দিক জানান, মনিরুল ইসলাম জমজম তার নিজ বাবা আয়েজ উদ্দিনকে হত্যা মামলায় আমাকে শ্বাক্ষী করা হয়।সেই থেকে বিভিন্ন সময় অস্ত্র নিয়ে আমাকে প্রাণে মেরে ফেলার কয়েকবার চেষ্টা করে।এ বিষয়েও থানায় লিখিত অভিযোগও দিয়ে ছিলাম। গত বৃহষ্প্রতিবার মাগরিব নামাজ পড়া অবস্থায় মনিরুলেআমার ছোট ভাই আবুল ফজলকে ছুরিকাঘাত করে হত্যার চেষ্টা করে।

বাঘা থানার ইনচার্জ(ওসি) সাজ্জাদ হোসেন সাজু জানান, ঘটনার পর থেকে মনিরুল ইসলাম জমজম আত্বগোপনে ছিলো। শুক্রবার(৭অক্টোবর) সকালে আটক করে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। ##

Tag :
লেখক তথ্য সম্পর্কে

Dainik Madhumati

জনপ্রিয়

ঘূর্ণিঝড় রেমালের প্রভাবে গলাচিপায় বেড়েছে বাতাস ও নদীর পানি

বাঘায় মসজিদে ঢুকে ব্যাংকারকে হত্যা চেষ্টা মামলার আসামী আটক

প্রকাশিত সময় : ০৩:৩০:১০ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৮ অক্টোবর ২০২২

###   রাজশাহীর বাঘায় পূর্ব শত্রুতার জেরে মসজিদের ভিতরে ঢুকে ব্যাংকার আবু ফজল মোঃ সিদ্দিককে ছুরিকাঘাত করে হত্যা চেষ্টার ঘটনার আসামী মনিরুল ইসলাম জমজম(৪৪)কে আটক করেছে পুলিশ।শুক্রবার(৭অক্টোবর) সকালে নিজ বাড়ী থেকে আটক করা হয়।আটক মনিরুল জমজম উত্তর কলিগ্রামের আয়েজ উদ্দিনের ছেলে। স্থানীয়রা জানান, উপজেলার উত্তর কলিকগ্রাম এলাকার মনিরুল ইসলাম কয়েক বছর পূর্বে তার পিতা আয়েজ উদ্দিনকে নিজে হত্যা করে। এ মামলায় প্রত্যক্ষ সাক্ষী হন একই এলাকার মরহুম মুক্তযোদ্ধা আবুল হোসেনের মাষ্টারের ছেলে আবু বাশার মোঃ সিদ্দিক। পরবর্তিতে পারিবারিকভাবে মামলাটি আপোশ-মীমাংসা করায় সে জেল থেকে ছাড়া পায়।

বৃহস্পতিবার(৬অক্টোবর)উপজেলার উত্তর কলিগ্রাম জামে মসজিদে মাগরিব নামাজের সময় ফরজ নামাজ আদায়ের সময় একই এলাকার ব্যাংকার আবু ফজল মোঃ সিদ্দিককে ছুরিকাঘাত করে মনিরুল ইসলাম জমজম।স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে বাঘা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়ে দেয়।আহত আবুল ফজল মোঃসিদ্দিক একই গ্রামের বাসিন্দা ও অগ্রণী ব্যাংক বাঘা শাখায় কর্মরত। এ ঘটনায় আহতের ভাই আবু বাশার মোঃসিদ্দিক বাদি হয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।

আহতের ভাই আবু বাশার মোঃ সিদ্দিক জানান, মনিরুল ইসলাম জমজম তার নিজ বাবা আয়েজ উদ্দিনকে হত্যা মামলায় আমাকে শ্বাক্ষী করা হয়।সেই থেকে বিভিন্ন সময় অস্ত্র নিয়ে আমাকে প্রাণে মেরে ফেলার কয়েকবার চেষ্টা করে।এ বিষয়েও থানায় লিখিত অভিযোগও দিয়ে ছিলাম। গত বৃহষ্প্রতিবার মাগরিব নামাজ পড়া অবস্থায় মনিরুলেআমার ছোট ভাই আবুল ফজলকে ছুরিকাঘাত করে হত্যার চেষ্টা করে।

বাঘা থানার ইনচার্জ(ওসি) সাজ্জাদ হোসেন সাজু জানান, ঘটনার পর থেকে মনিরুল ইসলাম জমজম আত্বগোপনে ছিলো। শুক্রবার(৭অক্টোবর) সকালে আটক করে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। ##