১১:০৬ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ৫ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বাঘা উপজেলা নির্বাচন: সবার ভাবনায় পিন্টু

####

তফসীল ঘোষণা হওয়ার আগেই নির্বাচনী প্রচারে নেমে পড়েছেন রাজশাহীর বাঘা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের সম্ভাব্য প্রার্থীরা। আগামী ২৫ মে অনুষ্ঠিত নির্বাচন উপলক্ষে এ উপজেলায় এখন পর্যন্ত জামাত-বিএনপির কেউ প্রচারে না নামলেও আওয়ামী লীগের সাতজন চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতার ঘোষণা দিয়েছেন। এদের মধ্যে নতুন প্রার্থী হিসেবে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছেন বাঘা উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম সম্পাদক ও বাঘা পৌরসভার সাবেক প্যানেল মেয়র শাহিনুর রহমান পিন্টু। ভোটার ও প্রার্থীদের মাঝে তার নামটাই জোরেশোরে আলোচনায় উঠে আসছে।

এ উপজেলায় আসন্ন নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দিতার জন্য বর্তমান চেয়ারম্যান ও রাজশাহী জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সম্পাদক অ্যাডভোকেট লায়েব উদ্দিন লাভলু ছাড়াও অন্যান্যদের মধ্যে আছেন, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম বাবুল, উপজেলা আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ সম্পাদক ( সাবেক) সুজিত কুমার পান্ডে বাকু,উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান ( মহিলা) ফাতেমা খাতুন লতা।

এছাড়াও অন্যান্যদের মধ্যে সম্ভাব্য প্রার্থিতার নাম আসছে, বাঘা উপজেলা আ’লীগের সাবেক সহসভাপতি ও চকরাজাপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আজিজুল আযম, বাঘা উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান, জাতীয় সমাজ তান্ত্রিক দল (জাসদ ইনু)’র  জেলা কমিটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমিটির সাবেক কসান্ডার, বাজুবাঘা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান এবং জাতীয় সমাজ তান্ত্রিক দল জাসদ কেন্দ্রীয় কার্যকরি কমিটির সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা শফিউর রহমান শফি। তবে এদের কেউ প্রচারে নেই।
এদিকে আসন্ন নির্বাচনে প্রার্থিতা নিয়ে এ জনপদের রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতামত, ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ এবার তাদের দলীয় প্রার্থী না দেওয়ায় প্রার্থীদের নিজস্ব জনপ্রিয়তায় নির্বাচনী বৈতরণী পার হতে হবে। সেই দৃষ্টিকোণে সব থেকে এগিয়ে রয়েছেন বর্তমান চেয়ারম্যান লায়েব উদ্দিন লাভলু ও উদীয়মান তরুণ নেতা শাহিনুর রহমান পিন্টু।
সরেজমিন ঘুরে ভোটারদের সাথে আলাপকালে জানা যায়, এই উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে মূল আলোচনায় রয়েছেন বর্তমান চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন সম্পাদক অ্যাডভোকেট লায়েব উদ্দিন লাভলু এবং শাহিনুর রহমান পিন্টু। দুজনের অনুসারীরা নিজ নিজ প্রার্থীর পক্ষে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপকভাবে প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন।
একাধিক ভোটারদের অভিমত, জনপ্রিয়তার দিক থেকে এবার ব্যাপকভাবে আলোচিত নাম শাহিনুর রহমান পিন্টু। তার জনপ্রিয়তা আ’লীগের বড় অংশসহ সকল পর্যায়ের মানুষের মাঝে আছে। পিন্টু ২০১৭ সালের বাঘা পৌরসভা নির্বাচনে বিপুল ভোটে
৫ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছিলেন। পরে প্যানেল মেয়রের দায়িত্ব পেয়ে শুধু পৌর এলাকা নয়, পুরো উপজেলার জনগণের সুখে দুঃখে পাশে ছিলেন। সেই সুবাদে তিনি ২০১৮ সাল থেকে এলাকায় জনপ্রিয় হয়ে উঠেন। তার রয়েছে পারিবারিক ও গোষ্ঠীগত আলাদা ভোট ব্যাংক। উপজেলার বিভিন্ন ধর্মীয়, সামাজিক ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সহ, পারিবারিকভাবে রয়েছে তার ব্যাপক অনুদান। তাই তার অনুসারীদের প্রত্যাশা, আসন্ন উপজেলা নির্বাচনে, শাহিনুর রহমান পিন্টু বিপুল ভোটে বিজয়ী হবেন।
অপরদিকে বর্তমান চেয়ারম্যান লায়েব উদ্দিন লাভলুর অনুসারীদের ভাবনা, চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে লায়েব উদ্দিন লাভলু সবার সেরা। জনগণ যদি যোগ্যতা দেখে ভোট দেয় তাহলে লায়েব উদ্দিন লাভলু বিপুল ভোটে বিজয়ী হয়ে আবার উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হবেন।

সরেজমিনে ঘুরে জানা যায়, প্রার্থীরা একেকদিন একেক এলাকায় উঠান বৈঠক করে প্রার্থীতার জানান দিচ্ছেন। দিচ্ছেন নানান প্রতিশ্রুতি। নির্বাচনের ক্ষণ এগিয়ে আসার সাথে সাথে সরগরম হয়ে উঠছে প্রচারণার মাঠ। চায়ের দোকান, রেস্টুরেন্টসহ সর্বত্রই চলছে প্রধান দুই হেভিওয়েট চেয়ারম্যান প্রার্থী নিয়ে আলোচনা।
ইসি অফিস সূত্রে জানা যায়, ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ৪ ধাপে অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচন অফিস সূত্রে পাওয়া সম্ভাব্য তারিখ হলো, প্রথম ধাপের ভোট হবে ৪ মে, দ্বিতীয় ধাপের ভোট হবে ১১ মে, তৃতীয় ধাপের ভোট হবে ১৮ মে এবং চতুর্থ ধাপের ভোট হবে ২৫ মে। এ উপজেলার ভোট গ্রহণ হবে ২৫শে মে চতুর্থ ধাপে। ৭টি ইউনিয়ন ও ২টি পৌরসভা নিয়ে গঠিত বাঘা উপজেলা পরিষদ।

Tag :
লেখক তথ্য সম্পর্কে

Dainik Madhumati

জনপ্রিয়

বাঘা উপজেলা নির্বাচন: সবার ভাবনায় পিন্টু

প্রকাশিত সময় : ১১:৫৮:৪৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

####

তফসীল ঘোষণা হওয়ার আগেই নির্বাচনী প্রচারে নেমে পড়েছেন রাজশাহীর বাঘা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের সম্ভাব্য প্রার্থীরা। আগামী ২৫ মে অনুষ্ঠিত নির্বাচন উপলক্ষে এ উপজেলায় এখন পর্যন্ত জামাত-বিএনপির কেউ প্রচারে না নামলেও আওয়ামী লীগের সাতজন চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতার ঘোষণা দিয়েছেন। এদের মধ্যে নতুন প্রার্থী হিসেবে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছেন বাঘা উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম সম্পাদক ও বাঘা পৌরসভার সাবেক প্যানেল মেয়র শাহিনুর রহমান পিন্টু। ভোটার ও প্রার্থীদের মাঝে তার নামটাই জোরেশোরে আলোচনায় উঠে আসছে।

এ উপজেলায় আসন্ন নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দিতার জন্য বর্তমান চেয়ারম্যান ও রাজশাহী জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সম্পাদক অ্যাডভোকেট লায়েব উদ্দিন লাভলু ছাড়াও অন্যান্যদের মধ্যে আছেন, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম বাবুল, উপজেলা আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ সম্পাদক ( সাবেক) সুজিত কুমার পান্ডে বাকু,উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান ( মহিলা) ফাতেমা খাতুন লতা।

এছাড়াও অন্যান্যদের মধ্যে সম্ভাব্য প্রার্থিতার নাম আসছে, বাঘা উপজেলা আ’লীগের সাবেক সহসভাপতি ও চকরাজাপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আজিজুল আযম, বাঘা উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান, জাতীয় সমাজ তান্ত্রিক দল (জাসদ ইনু)’র  জেলা কমিটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমিটির সাবেক কসান্ডার, বাজুবাঘা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান এবং জাতীয় সমাজ তান্ত্রিক দল জাসদ কেন্দ্রীয় কার্যকরি কমিটির সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা শফিউর রহমান শফি। তবে এদের কেউ প্রচারে নেই।
এদিকে আসন্ন নির্বাচনে প্রার্থিতা নিয়ে এ জনপদের রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতামত, ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ এবার তাদের দলীয় প্রার্থী না দেওয়ায় প্রার্থীদের নিজস্ব জনপ্রিয়তায় নির্বাচনী বৈতরণী পার হতে হবে। সেই দৃষ্টিকোণে সব থেকে এগিয়ে রয়েছেন বর্তমান চেয়ারম্যান লায়েব উদ্দিন লাভলু ও উদীয়মান তরুণ নেতা শাহিনুর রহমান পিন্টু।
সরেজমিন ঘুরে ভোটারদের সাথে আলাপকালে জানা যায়, এই উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে মূল আলোচনায় রয়েছেন বর্তমান চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন সম্পাদক অ্যাডভোকেট লায়েব উদ্দিন লাভলু এবং শাহিনুর রহমান পিন্টু। দুজনের অনুসারীরা নিজ নিজ প্রার্থীর পক্ষে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপকভাবে প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন।
একাধিক ভোটারদের অভিমত, জনপ্রিয়তার দিক থেকে এবার ব্যাপকভাবে আলোচিত নাম শাহিনুর রহমান পিন্টু। তার জনপ্রিয়তা আ’লীগের বড় অংশসহ সকল পর্যায়ের মানুষের মাঝে আছে। পিন্টু ২০১৭ সালের বাঘা পৌরসভা নির্বাচনে বিপুল ভোটে
৫ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছিলেন। পরে প্যানেল মেয়রের দায়িত্ব পেয়ে শুধু পৌর এলাকা নয়, পুরো উপজেলার জনগণের সুখে দুঃখে পাশে ছিলেন। সেই সুবাদে তিনি ২০১৮ সাল থেকে এলাকায় জনপ্রিয় হয়ে উঠেন। তার রয়েছে পারিবারিক ও গোষ্ঠীগত আলাদা ভোট ব্যাংক। উপজেলার বিভিন্ন ধর্মীয়, সামাজিক ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সহ, পারিবারিকভাবে রয়েছে তার ব্যাপক অনুদান। তাই তার অনুসারীদের প্রত্যাশা, আসন্ন উপজেলা নির্বাচনে, শাহিনুর রহমান পিন্টু বিপুল ভোটে বিজয়ী হবেন।
অপরদিকে বর্তমান চেয়ারম্যান লায়েব উদ্দিন লাভলুর অনুসারীদের ভাবনা, চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে লায়েব উদ্দিন লাভলু সবার সেরা। জনগণ যদি যোগ্যতা দেখে ভোট দেয় তাহলে লায়েব উদ্দিন লাভলু বিপুল ভোটে বিজয়ী হয়ে আবার উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হবেন।

সরেজমিনে ঘুরে জানা যায়, প্রার্থীরা একেকদিন একেক এলাকায় উঠান বৈঠক করে প্রার্থীতার জানান দিচ্ছেন। দিচ্ছেন নানান প্রতিশ্রুতি। নির্বাচনের ক্ষণ এগিয়ে আসার সাথে সাথে সরগরম হয়ে উঠছে প্রচারণার মাঠ। চায়ের দোকান, রেস্টুরেন্টসহ সর্বত্রই চলছে প্রধান দুই হেভিওয়েট চেয়ারম্যান প্রার্থী নিয়ে আলোচনা।
ইসি অফিস সূত্রে জানা যায়, ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ৪ ধাপে অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচন অফিস সূত্রে পাওয়া সম্ভাব্য তারিখ হলো, প্রথম ধাপের ভোট হবে ৪ মে, দ্বিতীয় ধাপের ভোট হবে ১১ মে, তৃতীয় ধাপের ভোট হবে ১৮ মে এবং চতুর্থ ধাপের ভোট হবে ২৫ মে। এ উপজেলার ভোট গ্রহণ হবে ২৫শে মে চতুর্থ ধাপে। ৭টি ইউনিয়ন ও ২টি পৌরসভা নিয়ে গঠিত বাঘা উপজেলা পরিষদ।