০৫:১০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ জুলাই ২০২৪, ২৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রামপালে চুরির অপবাদে শিশুকে নির্যাতনের অভিযোগে আটক -৩

####

রামপালে চুরির অপবাদ দিয়ে ইয়াছিন আরাফাত (১৫) নামের এক কিশোরকে আটকে রেখে বর্বর নির্যাতন ও হত্যাচেষ্টার ঘটনা ঘটেছে। শুক্রবার (২১ জুলাই) সকাল সাড়ে ৯ টায় আসামী সরোয়ার হাওলাদারের বাড়ীতে ফেলে বেধড়ক মারপিট করে গুরুতর আহত করা হয়। এ নির্মম নির্যাতনের ঘটনায় কিশোরের পিতা অলিয়ার হাওলাদার বাদী হয়ে রামপাল থানায় একটি হত্যাচেষ্টার অভিযোগে মামলা দায়ের করেন। নির্যাতনের শিকার কিশোর আরাফাতকে রামপাল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। খবর পেয়ে রামপাল থানার ওসি এস, এম আশরাফুল আলম দ্রুত ঘটনাস্থলে ছুটে যান। ওই সময় তিনি অভিযুক্ত ৩ জনকে আটক করেন। নির্যাতনকারী আসামীরা হলো, উপজেলার মল্লিকেরবেড় গ্রামের মৃত মোজাম্মেল হাওলাদারের পুত্র সরোয়ার হাওলাদার (৬০), স্বামী সরোয়ার হাওলাদারের স্ত্রী আকলি বেগম (৫৫), শহিদুল মাঝির পুত্র মাহামুদ ইসলাম (২৫), মোজাম্মেল হাওলাদারের পুত্র কেরামত হাওলাদার (৫০) আ. রহমান খানের পুত্র গ্রামপুলিশ মো. নাসিম হাওলাদার (৩৬)। এদের মধ্যে সরোয়ার ও তার স্ত্রী আকলি পলাতক রয়েছেন। আসামীদের বাগেরহাটের বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। রামপাল থানার ওসি এস, এম আশরাফুল আলম জানান, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে চুরির মিথ্যা অপবাদ দিয়ে কিশোর  ইয়াছিনকে মধ্যযুগীয় কায়দায় হাত পা বেঁধে নির্মমভাবে মারপিট করে হত্যার চেষ্টা চালায়। তিনি আরও বলেন খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে চিকিৎসার জন্য শিশুকে দ্রুত হাসপাতালে প্রেরণ করি এবং ঘটনার সাথে জড়িত তিনজনকে আটক করি। অন্যদের আটকের জোর চেষ্টা চলছে।#

Tag :
লেখক তথ্য সম্পর্কে

Dainik Madhumati

দশমিনায় অসহায় ও দরিদ্রদের মাঝে চেক বিতরণ

রামপালে চুরির অপবাদে শিশুকে নির্যাতনের অভিযোগে আটক -৩

প্রকাশিত সময় : ১২:২২:২৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুলাই ২০২৩

####

রামপালে চুরির অপবাদ দিয়ে ইয়াছিন আরাফাত (১৫) নামের এক কিশোরকে আটকে রেখে বর্বর নির্যাতন ও হত্যাচেষ্টার ঘটনা ঘটেছে। শুক্রবার (২১ জুলাই) সকাল সাড়ে ৯ টায় আসামী সরোয়ার হাওলাদারের বাড়ীতে ফেলে বেধড়ক মারপিট করে গুরুতর আহত করা হয়। এ নির্মম নির্যাতনের ঘটনায় কিশোরের পিতা অলিয়ার হাওলাদার বাদী হয়ে রামপাল থানায় একটি হত্যাচেষ্টার অভিযোগে মামলা দায়ের করেন। নির্যাতনের শিকার কিশোর আরাফাতকে রামপাল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। খবর পেয়ে রামপাল থানার ওসি এস, এম আশরাফুল আলম দ্রুত ঘটনাস্থলে ছুটে যান। ওই সময় তিনি অভিযুক্ত ৩ জনকে আটক করেন। নির্যাতনকারী আসামীরা হলো, উপজেলার মল্লিকেরবেড় গ্রামের মৃত মোজাম্মেল হাওলাদারের পুত্র সরোয়ার হাওলাদার (৬০), স্বামী সরোয়ার হাওলাদারের স্ত্রী আকলি বেগম (৫৫), শহিদুল মাঝির পুত্র মাহামুদ ইসলাম (২৫), মোজাম্মেল হাওলাদারের পুত্র কেরামত হাওলাদার (৫০) আ. রহমান খানের পুত্র গ্রামপুলিশ মো. নাসিম হাওলাদার (৩৬)। এদের মধ্যে সরোয়ার ও তার স্ত্রী আকলি পলাতক রয়েছেন। আসামীদের বাগেরহাটের বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। রামপাল থানার ওসি এস, এম আশরাফুল আলম জানান, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে চুরির মিথ্যা অপবাদ দিয়ে কিশোর  ইয়াছিনকে মধ্যযুগীয় কায়দায় হাত পা বেঁধে নির্মমভাবে মারপিট করে হত্যার চেষ্টা চালায়। তিনি আরও বলেন খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে চিকিৎসার জন্য শিশুকে দ্রুত হাসপাতালে প্রেরণ করি এবং ঘটনার সাথে জড়িত তিনজনকে আটক করি। অন্যদের আটকের জোর চেষ্টা চলছে।#