১০:০১ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শার্শায় পূর্বশত্রুতার জেরে যুবককে কুপিয়ে হত্যা

####
যশোরের শার্শা উপজেলার লক্ষনপুর ইউনিয়নের হরিনাপোতা গ্রামে পূর্বশত্রুতার জেরে মুসা (৩০) নামে এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। সে ওই গ্রামের মৃত আতাউল হকের ছেলে। আসামীরা হলেন, শার্শার হরিনাপোতা গ্রামের নান্নুর ছেলে মিলন, আব্দুল ওহাবের ছেলে রফিকুল ও শান্টুু মিয়ার ছেলে সুমন। বৃহস্পতিবার রাতে তাকে কুপিয়ে আহত অবস্থায় রাস্তায় ফেলে তারা পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন। পরে তার অবস্থা অবনতি হলে তাকে ঢাকা একটি হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এঘটনায় ৩ জনকে আসামী করে শার্শা থানায় মামরা দায়ের হয়েছে।
হরিনাপোতা গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য মোঃ হানিফ জানান, মুসা মান্দারতলা বাজারের একটি চায়ের দোকান বসেছিল। হঠাৎ দুটি মাইক্রোবাস এসে থামে। মাইক্রোবাস থেকে নেমে কয়েকজন মুখোশধারী দুর্বৃত্ত মুসাকে এলোপাতাড়ি ভাবে দা দিয়ে কুপাতে থাকে। পরে মারা গেছে ভেবে তাকে ফেলে তারা চলে যায়। যাবার সময় দুইটি বোমার বিস্ফোরণ ঘটিয়ে যান বলে জানান ওই ইউপি সদস্য।
এ ব্যাপারে শার্শা থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ মনিরুজ্জামান জানান, এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার রাতেই শার্শা থানায় একটি মামলা হয়েছে। আজ বিকালে ঢাকাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা গেছে বলে জেনেছি। জড়িতদের আটকে পুলিশী অভিযান চলছে। #

Tag :
লেখক তথ্য সম্পর্কে

Dainik Madhumati

জনপ্রিয়

ডুমুরিয়ায় মোটরসাইকেল-ইঞ্জিন ভ্যান সংঘর্ষে নিহত-২,আহত-৪

শার্শায় পূর্বশত্রুতার জেরে যুবককে কুপিয়ে হত্যা

প্রকাশিত সময় : ০১:০১:২৮ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১ জুন ২০২৪

####
যশোরের শার্শা উপজেলার লক্ষনপুর ইউনিয়নের হরিনাপোতা গ্রামে পূর্বশত্রুতার জেরে মুসা (৩০) নামে এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। সে ওই গ্রামের মৃত আতাউল হকের ছেলে। আসামীরা হলেন, শার্শার হরিনাপোতা গ্রামের নান্নুর ছেলে মিলন, আব্দুল ওহাবের ছেলে রফিকুল ও শান্টুু মিয়ার ছেলে সুমন। বৃহস্পতিবার রাতে তাকে কুপিয়ে আহত অবস্থায় রাস্তায় ফেলে তারা পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন। পরে তার অবস্থা অবনতি হলে তাকে ঢাকা একটি হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এঘটনায় ৩ জনকে আসামী করে শার্শা থানায় মামরা দায়ের হয়েছে।
হরিনাপোতা গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য মোঃ হানিফ জানান, মুসা মান্দারতলা বাজারের একটি চায়ের দোকান বসেছিল। হঠাৎ দুটি মাইক্রোবাস এসে থামে। মাইক্রোবাস থেকে নেমে কয়েকজন মুখোশধারী দুর্বৃত্ত মুসাকে এলোপাতাড়ি ভাবে দা দিয়ে কুপাতে থাকে। পরে মারা গেছে ভেবে তাকে ফেলে তারা চলে যায়। যাবার সময় দুইটি বোমার বিস্ফোরণ ঘটিয়ে যান বলে জানান ওই ইউপি সদস্য।
এ ব্যাপারে শার্শা থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ মনিরুজ্জামান জানান, এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার রাতেই শার্শা থানায় একটি মামলা হয়েছে। আজ বিকালে ঢাকাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা গেছে বলে জেনেছি। জড়িতদের আটকে পুলিশী অভিযান চলছে। #