০৯:২৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সবাই নিরাপদ সড়ক চায় তবুও ফুটপাতের হকারদের পক্ষে নেতারা-যা জাতির জন্য দুর্ভাগ্যজনক : খুলনা সিটি মেয়র

###   খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক বলেছেন, মৃত্যুর ভয় আমাদের সবার আছে। তাই সবাই নিরাপদ সড়ক চাই । সমন্বিতভাবে এটা বাস্তবায়ন করতে পারলে সড়ক দূর্ঘটনা হ্রাস পাবে।  আমাদের প্রায় ৩০০-৩৫০ রাস্তার কাজ চলছে। প্রত্যেকটা রাস্তায় ফুটপাত রয়েছে। এই ফুটপাতগুলো তৈরি করি পথচারীরা যাতে হাঁটতে পারবে তার জন্য। কিন্তু আমাদের দেশের এক শ্রেণীর মানুষ মনে করে ফুটপাত হল তাদের ব্যবসার কেন্দ্রবিন্দু। এ বিষয়ে আমরা যখন কথা বলি তখন অনেক সচেতন নেতাও তাদের পক্ষে কথা বলে। জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত সড়ক নিরাপত্তা বিষয়ক সাংবাদিক ও সুধী সমাজের সাথে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক এসব কথা বলেন।সিটি মেয়র আরও বলেন, নেতারা কেন ফুটপাতের হকারদের পক্ষে থাকে তা জানি না তব বেশিরভাগ নেতা তাদের পক্ষে থাকে। এটা আমাদের জাতির জন্য দুর্ভাগ্যজনক। একদিকে বলা হবে এক্সিডেন্ট কেন হয়। অন্যদিকে ফুটপাতে মানুষ হাঁটতে পারে না। হকার উঠাতে গেলে ওদের জন্য বিকল্প ব্যবস্থা করতে বলে। শনিবার(৮অক্টোবর) বিকেল ৪টায় খুলনা প্রেসক্লাবের হুমায়ুন কবীর বালু মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় প্রধান বক্তা ছিলেন নিরাপদ সড়ক চাই(নিসচা)-এর প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন।

প্রধান বক্তার বক্তৃতায় ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন, অনেকে মটরসাইকেল চালানোর সময় হেলমেট পরে না। প্রত্যেককে তার কমিউনিটিকে ঠিক করতে হবে। পুলিশ যদি কাউকে আটকায় তাহলে সে যদি তার কমিউনিটির নেতাকে ফোন দেয় নেতা আবার পুলিশকে ফোন দেয় তাহলে তো হবে না। সব জিনিসের একটা সঠিক নেতৃত্বের দরকার আছে। নেতৃত্ব না থাকলে আমরা দেশ স্বাধীন করতে পারতাম না। বঙ্গবন্ধু সেরকম নেতা ছিল বলেই দেশ স্বাধীন করতে পেরেছেন। কিন্তু আমরা নেতা বলতে শুধু রাজনৈতিক নেতা বুঝি। নেতা বলতে শুধু রাজনৈতিক নেতা নয়। কমিউনিটির যিনি প্রধান তিনিও কিন্তু নেতা। সেই নেতাকে কিন্তু সে রকম হতে হবে। খুলনার পুলিশের নেতা পুলিশ কমিশনার। কমিউনিটির পুলিশ কেমন থাকবে সেটা তার উপর নির্ভর করবে। মেয়র খুলনা সিটির ফাদার। তিনি তার সন্তানদের যেন রাখবেন তারা সে রকম থাকবে।

নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা) খুলনা মহানগর কমিটির আয়োজনে মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন খুলনা প্রেসক্লাবের সভাপতি এস এম নজরুল ইসলাম।অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মাসুদুর রহমান ভূঞা, খুলনা-২ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য ও নিসচা’র উপদেষ্টা নজরুল ইসলাম মঞ্জু, সড়ক ও জনপথ বিভাগ খুলনার নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ আনিছুজ্জামান মাসুদ, বিআরটিএ খুলনার সহকারী পরিচালক (ইঞ্জিনিয়ারিং) তানভীর আহমেদ। সুধী সমাজের সাথে মতবিনিময় সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা) খুলনা মহানগরের সভাপতি এস এম ইকবাল হোসেন বিপ্লব। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন নিসচার খুলনা মহানগর শাখার সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রহমান মুন্না। বক্তৃতা করেন খুলনা প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি মকবুল হোসেন মিন্টু, এসএম জাহিদ হোসেন, , খুলনা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি ফারুক আহমেদ, খুলনা প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি মুন্সী মাহবুব আলম সোহাগখুলনা টিভি রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি মল্লিক সুধাংশু, খুলনা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মামুন রেজা, নাগরিক নেতা মিজানুর রহমান বাবু প্রমুখ।

এর আগে সকাল ১০ টায় কুয়েট রোডের খুলনা মহিলা করিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের সহযোগিতায় প্রতিষ্ঠানের সেমিনার হলে নিরাপদ সড়ক চাই খুলনা মহানগর শাখা ‘সড়ক নিরাপত্তা বিষয়ক চালক প্রশিক্ষণ কর্মশালার আয়োজন করে।কর্মশালায় প্রধান অতিথি থেকে প্রশিক্ষনার্থীদের মোটিভেশনাল ট্রেনিং প্রদান করেন নিরাপদ সড়ক চাই  আন্দোলনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন। বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত খুলনা জেলা প্রশাসক পুলক কুমার মন্ডল, খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও নিসচার খুলনা মহানগর শাখার উপদেষ্টা শ্যামল সিংহ রায়, নিরাপদ সড়ক চাইয়ের কেন্দ্রীয় কমিটির সহাসচিব লিটন এরশাদ। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন খুলনা মহিলা কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের অধ্যক্ষ মো. রিয়াজ শরীফ।কর্মশালায় বক্তব্য রাখেন নিসচার কেন্দ্রীয় কমিটির অর্থ সম্পাদক আসাদুর রহমান, কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম আজাদ হোসেন, জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস উদযাপন কমিটির সদস্য সচিব, কেন্দ্রীয় কমিটির নির্বাহী সদস্য রোকনুজ্জামান রোকন, কেন্দ্রীয় কমিটির প্রশিক্ষণ সম্পাদক এম নাহিদুল ইসলাম এবং বৃহত্তর খুলনা উন্নয়ন সংগ্রাম সমন্বয় কমিটির মহাসচিব ও খুলনা সিটি কর্পোরেশনের ৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শেখ মোহাম্মদ আলী। ##

Tag :
লেখক তথ্য সম্পর্কে

Dainik Madhumati

জনপ্রিয়

ঘূর্ণিঝড় রেমালের প্রভাবে গলাচিপায় বেড়েছে বাতাস ও নদীর পানি

সবাই নিরাপদ সড়ক চায় তবুও ফুটপাতের হকারদের পক্ষে নেতারা-যা জাতির জন্য দুর্ভাগ্যজনক : খুলনা সিটি মেয়র

প্রকাশিত সময় : ০৭:৫৮:৪৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ৮ অক্টোবর ২০২২

###   খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক বলেছেন, মৃত্যুর ভয় আমাদের সবার আছে। তাই সবাই নিরাপদ সড়ক চাই । সমন্বিতভাবে এটা বাস্তবায়ন করতে পারলে সড়ক দূর্ঘটনা হ্রাস পাবে।  আমাদের প্রায় ৩০০-৩৫০ রাস্তার কাজ চলছে। প্রত্যেকটা রাস্তায় ফুটপাত রয়েছে। এই ফুটপাতগুলো তৈরি করি পথচারীরা যাতে হাঁটতে পারবে তার জন্য। কিন্তু আমাদের দেশের এক শ্রেণীর মানুষ মনে করে ফুটপাত হল তাদের ব্যবসার কেন্দ্রবিন্দু। এ বিষয়ে আমরা যখন কথা বলি তখন অনেক সচেতন নেতাও তাদের পক্ষে কথা বলে। জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত সড়ক নিরাপত্তা বিষয়ক সাংবাদিক ও সুধী সমাজের সাথে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক এসব কথা বলেন।সিটি মেয়র আরও বলেন, নেতারা কেন ফুটপাতের হকারদের পক্ষে থাকে তা জানি না তব বেশিরভাগ নেতা তাদের পক্ষে থাকে। এটা আমাদের জাতির জন্য দুর্ভাগ্যজনক। একদিকে বলা হবে এক্সিডেন্ট কেন হয়। অন্যদিকে ফুটপাতে মানুষ হাঁটতে পারে না। হকার উঠাতে গেলে ওদের জন্য বিকল্প ব্যবস্থা করতে বলে। শনিবার(৮অক্টোবর) বিকেল ৪টায় খুলনা প্রেসক্লাবের হুমায়ুন কবীর বালু মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় প্রধান বক্তা ছিলেন নিরাপদ সড়ক চাই(নিসচা)-এর প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন।

প্রধান বক্তার বক্তৃতায় ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন, অনেকে মটরসাইকেল চালানোর সময় হেলমেট পরে না। প্রত্যেককে তার কমিউনিটিকে ঠিক করতে হবে। পুলিশ যদি কাউকে আটকায় তাহলে সে যদি তার কমিউনিটির নেতাকে ফোন দেয় নেতা আবার পুলিশকে ফোন দেয় তাহলে তো হবে না। সব জিনিসের একটা সঠিক নেতৃত্বের দরকার আছে। নেতৃত্ব না থাকলে আমরা দেশ স্বাধীন করতে পারতাম না। বঙ্গবন্ধু সেরকম নেতা ছিল বলেই দেশ স্বাধীন করতে পেরেছেন। কিন্তু আমরা নেতা বলতে শুধু রাজনৈতিক নেতা বুঝি। নেতা বলতে শুধু রাজনৈতিক নেতা নয়। কমিউনিটির যিনি প্রধান তিনিও কিন্তু নেতা। সেই নেতাকে কিন্তু সে রকম হতে হবে। খুলনার পুলিশের নেতা পুলিশ কমিশনার। কমিউনিটির পুলিশ কেমন থাকবে সেটা তার উপর নির্ভর করবে। মেয়র খুলনা সিটির ফাদার। তিনি তার সন্তানদের যেন রাখবেন তারা সে রকম থাকবে।

নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা) খুলনা মহানগর কমিটির আয়োজনে মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন খুলনা প্রেসক্লাবের সভাপতি এস এম নজরুল ইসলাম।অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মাসুদুর রহমান ভূঞা, খুলনা-২ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য ও নিসচা’র উপদেষ্টা নজরুল ইসলাম মঞ্জু, সড়ক ও জনপথ বিভাগ খুলনার নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ আনিছুজ্জামান মাসুদ, বিআরটিএ খুলনার সহকারী পরিচালক (ইঞ্জিনিয়ারিং) তানভীর আহমেদ। সুধী সমাজের সাথে মতবিনিময় সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা) খুলনা মহানগরের সভাপতি এস এম ইকবাল হোসেন বিপ্লব। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন নিসচার খুলনা মহানগর শাখার সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রহমান মুন্না। বক্তৃতা করেন খুলনা প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি মকবুল হোসেন মিন্টু, এসএম জাহিদ হোসেন, , খুলনা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি ফারুক আহমেদ, খুলনা প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি মুন্সী মাহবুব আলম সোহাগখুলনা টিভি রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি মল্লিক সুধাংশু, খুলনা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মামুন রেজা, নাগরিক নেতা মিজানুর রহমান বাবু প্রমুখ।

এর আগে সকাল ১০ টায় কুয়েট রোডের খুলনা মহিলা করিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের সহযোগিতায় প্রতিষ্ঠানের সেমিনার হলে নিরাপদ সড়ক চাই খুলনা মহানগর শাখা ‘সড়ক নিরাপত্তা বিষয়ক চালক প্রশিক্ষণ কর্মশালার আয়োজন করে।কর্মশালায় প্রধান অতিথি থেকে প্রশিক্ষনার্থীদের মোটিভেশনাল ট্রেনিং প্রদান করেন নিরাপদ সড়ক চাই  আন্দোলনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন। বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত খুলনা জেলা প্রশাসক পুলক কুমার মন্ডল, খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও নিসচার খুলনা মহানগর শাখার উপদেষ্টা শ্যামল সিংহ রায়, নিরাপদ সড়ক চাইয়ের কেন্দ্রীয় কমিটির সহাসচিব লিটন এরশাদ। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন খুলনা মহিলা কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের অধ্যক্ষ মো. রিয়াজ শরীফ।কর্মশালায় বক্তব্য রাখেন নিসচার কেন্দ্রীয় কমিটির অর্থ সম্পাদক আসাদুর রহমান, কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম আজাদ হোসেন, জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস উদযাপন কমিটির সদস্য সচিব, কেন্দ্রীয় কমিটির নির্বাহী সদস্য রোকনুজ্জামান রোকন, কেন্দ্রীয় কমিটির প্রশিক্ষণ সম্পাদক এম নাহিদুল ইসলাম এবং বৃহত্তর খুলনা উন্নয়ন সংগ্রাম সমন্বয় কমিটির মহাসচিব ও খুলনা সিটি কর্পোরেশনের ৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শেখ মোহাম্মদ আলী। ##