১০:০৫ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সুন্দরগঞ্জ ট্র্যাজেডির ১০ বছর পূর্তিতে নিহত ০৪ পুলিশ স্মরণে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল

###    গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ ট্র্যাজেডির ১০বছর পূর্তিতে নিহত ০৪ পুলিশ স্মরণে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ উপলক্ষে মঙ্গলবার দুপুরে বামনডাঙ্গা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের আয়োজনে নিহত ০৪ পুলিশ স্মরণে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন রংপুর রেঞ্জের ডিআইজি মোহাম্মদ আব্দুল আলীম মাহমুদ। জেলা পুলিশ সুপার কামাল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক(সার্বিক) সুশান্ত কুমার মাহাতো, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আফরুজা বারী। বক্তব্য রাখেন থানা অফিসার ইনচার্জ সরকার ইফতেখারুল মোকাদ্দেম। বামনডাঙ্গা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ শফিকুজ্জামান সরকারের সঞ্চালনায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল জব্বার, উপজেলা কমিউনিটি পুলিশের সভাপতি অধ্যক্ষ একেএম হাবিব সরকার, বীর মুক্তিযোদ্ধা আজগর আলীসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক সংগঠনের স্থানীয় নেতৃবৃন্দ। অনুষ্ঠানের শুরুতে নিহত ০৪ পুলিশ সদস্য সাঘাটা উপজেলার খামার ধনরুহা গ্রামের নিজাম উদ্দিন, রংপুরের পীরগাছা উপজেলার রহমতেরচর গ্রামের তোজাম্মেল হক, কুড়িগ্রামের রাজারহাট উপজেলার কিশামত গোবধা গ্রামের হযরত আলী ও বগুড়ার সোনাতলা উপজেলার ঠাকুরপাড়া গ্রামের বাবলু মিয়ার স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পমাল্য অর্পণ ও তাঁদের পরিবারের সম্বর্ধনা প্রদান করেন অতিথিবৃন্দ।
উল্লেখ্য, ২০১৩ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারী আন্তর্জাতিক মানবতা বিরোধী অপরাধ ট্রাইব্যুনাল কর্তৃক জামায়াত নেতা দেলওয়ার হুসাইন সাঈদীর ফাঁসির রায় ঘোষণাকে কেন্দ্র করে উপজেলায় জামায়াত-শিবিরের ব্যাপক নারকীয় তান্ডবে ০৪ পুলিশ সদস্য নিহত হন। সুন্দরগঞ্জ থানা, বানডাঙ্গা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রসহ উপজেলার অধিকাংশ স্থানে নাশকতা তান্ডব চালিয়ে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ঘরবাড়ি, রেলওয়ে স্টেশন, ইউএনও’র বাসভবনসহ প্রশাসনিক বিভিন্ন দপ্তর, সরকারী, বে-সরকারী বিভিন্ন স্থাপনায় হামলা, অগ্নিসংযোগ, ভাংচুর করে। বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, আবাসস্থল, রাস্তা-ঘাট, গাছপালার ব্যপক ক্ষতি করে। এঘটনায় সুন্দরগঞ্জ থানার তৎকালীন উপ-পরিদর্শক আবু হানিফ বাদী হয়ে জামায়াতের সাবেক এমপি ও যুদ্ধ অপরাধ মামলায় আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে ফাঁসির দন্ডাদেশপ্রাপ্ত পলাতক আসামী মাওলানা আব্দুল আজিজ ওরফে ঘোড়ামারা আজিজকে প্রধান আসামী করে ৮৯ জনের নাম উল্লেখ পূর্বক অজ্ঞাত নামা আরো ২ হাজার ৫শ’ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন। এরপর ২০১৪ সালের ১৪ সেপ্টেম্বর প্রধান আসামী আজিজসহ ২শ’ ৩৫ জনের বিরুদ্ধে বিজ্ঞ আদালতে চার্জশীট দাখিল করে পুলিশ। বামনডাঙ্গা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ পুলিশ পরিদর্শক শফিকুজ্জামান সরকার জানান, উক্ত মামলায় বিজ্ঞ আদালত স্বাক্ষ্য গ্রহণ চলমান রয়েছে। ##

Tag :
লেখক তথ্য সম্পর্কে

Dainik adhumati

জনপ্রিয়

ডুমুরিয়ায় মোটরসাইকেল-ইঞ্জিন ভ্যান সংঘর্ষে নিহত-২,আহত-৪

সুন্দরগঞ্জ ট্র্যাজেডির ১০ বছর পূর্তিতে নিহত ০৪ পুলিশ স্মরণে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল

প্রকাশিত সময় : ০৩:৪৪:৫৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ১ মার্চ ২০২৩

###    গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ ট্র্যাজেডির ১০বছর পূর্তিতে নিহত ০৪ পুলিশ স্মরণে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ উপলক্ষে মঙ্গলবার দুপুরে বামনডাঙ্গা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের আয়োজনে নিহত ০৪ পুলিশ স্মরণে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন রংপুর রেঞ্জের ডিআইজি মোহাম্মদ আব্দুল আলীম মাহমুদ। জেলা পুলিশ সুপার কামাল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক(সার্বিক) সুশান্ত কুমার মাহাতো, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আফরুজা বারী। বক্তব্য রাখেন থানা অফিসার ইনচার্জ সরকার ইফতেখারুল মোকাদ্দেম। বামনডাঙ্গা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ শফিকুজ্জামান সরকারের সঞ্চালনায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল জব্বার, উপজেলা কমিউনিটি পুলিশের সভাপতি অধ্যক্ষ একেএম হাবিব সরকার, বীর মুক্তিযোদ্ধা আজগর আলীসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক সংগঠনের স্থানীয় নেতৃবৃন্দ। অনুষ্ঠানের শুরুতে নিহত ০৪ পুলিশ সদস্য সাঘাটা উপজেলার খামার ধনরুহা গ্রামের নিজাম উদ্দিন, রংপুরের পীরগাছা উপজেলার রহমতেরচর গ্রামের তোজাম্মেল হক, কুড়িগ্রামের রাজারহাট উপজেলার কিশামত গোবধা গ্রামের হযরত আলী ও বগুড়ার সোনাতলা উপজেলার ঠাকুরপাড়া গ্রামের বাবলু মিয়ার স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পমাল্য অর্পণ ও তাঁদের পরিবারের সম্বর্ধনা প্রদান করেন অতিথিবৃন্দ।
উল্লেখ্য, ২০১৩ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারী আন্তর্জাতিক মানবতা বিরোধী অপরাধ ট্রাইব্যুনাল কর্তৃক জামায়াত নেতা দেলওয়ার হুসাইন সাঈদীর ফাঁসির রায় ঘোষণাকে কেন্দ্র করে উপজেলায় জামায়াত-শিবিরের ব্যাপক নারকীয় তান্ডবে ০৪ পুলিশ সদস্য নিহত হন। সুন্দরগঞ্জ থানা, বানডাঙ্গা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রসহ উপজেলার অধিকাংশ স্থানে নাশকতা তান্ডব চালিয়ে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ঘরবাড়ি, রেলওয়ে স্টেশন, ইউএনও’র বাসভবনসহ প্রশাসনিক বিভিন্ন দপ্তর, সরকারী, বে-সরকারী বিভিন্ন স্থাপনায় হামলা, অগ্নিসংযোগ, ভাংচুর করে। বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, আবাসস্থল, রাস্তা-ঘাট, গাছপালার ব্যপক ক্ষতি করে। এঘটনায় সুন্দরগঞ্জ থানার তৎকালীন উপ-পরিদর্শক আবু হানিফ বাদী হয়ে জামায়াতের সাবেক এমপি ও যুদ্ধ অপরাধ মামলায় আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে ফাঁসির দন্ডাদেশপ্রাপ্ত পলাতক আসামী মাওলানা আব্দুল আজিজ ওরফে ঘোড়ামারা আজিজকে প্রধান আসামী করে ৮৯ জনের নাম উল্লেখ পূর্বক অজ্ঞাত নামা আরো ২ হাজার ৫শ’ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন। এরপর ২০১৪ সালের ১৪ সেপ্টেম্বর প্রধান আসামী আজিজসহ ২শ’ ৩৫ জনের বিরুদ্ধে বিজ্ঞ আদালতে চার্জশীট দাখিল করে পুলিশ। বামনডাঙ্গা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ পুলিশ পরিদর্শক শফিকুজ্জামান সরকার জানান, উক্ত মামলায় বিজ্ঞ আদালত স্বাক্ষ্য গ্রহণ চলমান রয়েছে। ##